খাসির বদলে কুকুরের মাংস বিক্রি, দুই বছরের কারাদণ্ড

নরসিংদী প্রতিনিধি, ঢাকাটাইমস
| আপডেট : ২৭ ডিসেম্বর ২০১৬, ২১:২৫ | প্রকাশিত : ২৭ ডিসেম্বর ২০১৬, ১৮:৩৮

নরসিংদীতে খাসির মাংস বলে কুকুরের মাংস বিক্রির দায়ে কালাম মাসুদ নামে এক ব্যক্তিকে দুই বছরের সশ্রম কারাদণ্ড দিয়েছে ভ্রাম্যমাণ আদালত। মঙ্গলবার নরসিংদীর নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সৈয়দ সামসুল তাবরীজ তাকে হাতেনাতে আটক করার পর এই আদেশ দেন।

ভ্রাম্যমাণ আদালত সূত্রে জানা যায়, দীর্ঘদিন ধরে কালাম শহরের বিভিন্ন হোটেল ও রেস্টুরেন্টে খাসির মাংস বলে কুকুরের মাংস সরবরাহ করে আসছিল।এ খবরের ভিত্তিতে শহরের চৌয়ালা এলাকায় অভিযান চালান নরসিংদীর নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও সহকারী কমিশনার সৈয়দ সামসুল তাবরীজ। এসময় কালামকে কুকুরের মাংসসহ হাতেনাতে আটক করা হয়। তার কাছ থেকে ১০ কেজি কুকুরের মাংস, লেজ, মাথা ও চামড়া উদ্ধার করা হয়। অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় তাকে দুই বছরের সশ্রম কারাদণ্ড দেন ম্যাজিস্ট্রেট।

নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও সহকারী কমিশনার সৈয়দ সামসুল তাবরীজ ঢাকাটাইমসকে ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

এভাবে খাসির মাংস বলে কুকুরের মাংস বিক্রি করায় ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন স্থানীয়রা। তারা মাসুদের কঠোর সাজা দাবি করেছেন।

মাহিদুল ইসলাম নামে এক ব্যক্তি বলেন, কালাম জঘন্য কাজ করেছে। সাধারণদের সঙ্গে অমানুষের মত কাজ করেছে সে। তাকে শুধু কারাদণ্ড নয়, দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দেয়া উচিৎ। যাতে কেউ এ ধরনের প্রতারণা করতে সাহস না পায়।

উর্মি রহমান নামে এক নারী ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, কুকুরের মাংস বিক্রি করেছে এটা জানার পর তিনি মানসিকভাবে অসুস্থ বোধ করছেন। তিনি বলেন, প্রশাসনের উচিৎ, সব গোশত বিক্রেতার দোকানে নিয়মিত অভিযান চালানো। যাতে করে কেউ প্রতারণার সুযোগ না পায়। মাসুদের কঠিন শাস্তি দাবি করেন তিনি। 

নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সৈয়দ সামসুল তাবরীজ ঢাকাটাইমসকে জানান, মাসুদকে দুই বছরের কারাদণ্ড দেয়া হয়েছে। তিনি আরও জানান, এ ধরনের প্রতারকদের ধরতে অভিযান অব্যাহত থাকবে। 

(ঢাকাটাইমস/২৭ডিসেম্বর/প্রতিনিধি/এলএ/ইএস)

সংবাদটি শেয়ার করুন

বাংলাদেশ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন ফিচার বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত