ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সেই রসরাজ কারামুক্ত

ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধি, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ১৭ জানুয়ারি ২০১৭, ১৯:২৪

ধর্ম অবমাননার অভিযোগে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি আইনের ৫৭ (২) ধারার মামলায় কারাগারে থাকা ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নাসিরনগরের রসরাজ দাস জামিনে মুক্তি পেয়েছেন।

মঙ্গলবার দুপুরে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার জেলা কারাগার থেকে বেরিয়ে আসেন তিনি। এর আগে বেলা সাড়ে ১১টার দিকে রসরাজের জামিন সংশ্লিষ্ট কাগজপত্র জেলা কারাগারে এসে পৌঁছায়।

সোমবার নির্ধারিত সময়ে আদালত থেকে জামিনের কাগজপত্র এসে না পৌঁছায় রসরাজের মুক্তি মেলেনি।  এদিন সকালে রসরাজ দাসকে জামিন শুনানির জন্য জেলা ও দায়রা জজ আদালতে হাজির করে পুলিশ। পরে শুনানি শেষে বিচারক মো. ইসমাঈল হোসেন পুলিশের পরবর্তী তদন্ত প্রতিবেদন দাখিল না করা পর্যন্ত রসরাজের জামিন মঞ্জুর করেন। কিন্তু কাগজ কারাগারে পৌঁছাতে দেরি করায় সেদিন তার মুক্তি মেলেনি।

গত বছরের ৩০ অক্টোবরে ফেসবুকে ধর্মীয় অবমাননাকর ছবি পোস্টের ঘটনায় পুলিশের দায়ের করা তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি (আইসিটি) আইনের মামলায় গ্রেপ্তার হন নাসিরনগর উপজেলার হরিপুর ইউনিয়নের হরিণবেড় গ্রামের জগন্নাথ দাসের ছেলে রসরাজ দাস (৩০)।

রসরাজের কথিত ধর্ম অবমাননার ছবির প্রতিক্রিয়ায় ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নাসিরনগরে সংখ্যালঘু পরিবারের বাড়ি-ঘর, মন্দিরে হামলা ও অগ্নিসংযোগ করা হয়। ওই ঘটনায় গ্রেপ্তারকৃত সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক যুগ্ম সম্পাদক আব্দুল আহাদকে মঙ্গলবার দুপুরে আদালতে হাজির করে পুলিশ।

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা তাকে পাঁচ দিনের রিমান্ড প্রার্থনা করলে অতিরিক্ত চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট সফিকুল ইসলামের বিচারিক আদালতে শুনানি শেষে তার এক দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করা হয়।

(ঢাকাটাইমস/১৭জানুয়ারি/ইএস/জেবি)

সংবাদটি শেয়ার করুন

বাংলাদেশ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন ফিচার বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত