মানিকগঞ্জে প্রধান সড়ক থেকে সরল ড্রেজার পাইপ

মঞ্জুর রহমান, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ২৫ জানুয়ারি ২০১৭, ১৮:৪২

মানিকগঞ্জ শহরের ব্যস্ততম প্রধান সড়কে যানবাহন ও পথচারীদের চলাচলে বিড়ম্বনার কারণ ড্রেজারের সেই পাইপগুলো অবশেষে সরিয়ে নিয়েছে ঠিকাদার। এতে খুশি স্থানীয় লোকজন ও ব্যবসায়ীরা।

বারবার অবহেলা করে অবশেষে প্রশাসনের কঠোর চাপের মুখে ড্রেজারের পাইপ সরিয়ে নিতে বাধ্য হলেন ঠিকাদার।
গত ১৩ নভেম্বর পাঠকপ্রিয় নিউজ পোর্টাল ঢাকাটাইমসে ‘শহর ফুঁড়ে মাটি তোলার পাইপ, মানিকগঞ্জে ভোগান্তি” শিরোনামে  একটি প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়।

সে সময় জেলা প্রশাসক রাশিদা ফেরদৌস বলেছিলেন সরকারি দেবেন্দ্র কলেজের মাঠ ভরাট শেষ হলে ঠিকাদার রাস্তা থেকে ড্রেজারের পাইপ সরিয়ে নিবে। কিন্তু সরকারি কাজ শেষ করে মানিকগঞ্জের প্রভাবশালী ঠিকাদার ড্রেজারের পাইপ বাড়িয়ে নিয়ে যান দেবেন্দ্র কলেজের পেছনের বনগ্রাম চকে। সেখানে অন্য মানুষের নিচু জমিতে বালু ফেলে ভরাট  করতে থাকেন।
এ বিষয়ে গত ৬ জানুয়ারি  ঢাকাটাইমসে ‘কাজ শেষেও পড়ে আছে শহর ফোঁড়া সেই ড্রেজারের পাইপ’ এই শিরোনামে ২য় প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়। এ নিউজের মাধ্যমে অবগত হয়ে জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে ড্রেজারের পাইপ সরিয়ে নিতে নির্দেশ দিলেও প্রভাবশালী ঠিকাদার ড্রেজারের পাইপ সরিয়ে নিচ্ছিলেন না।

জেলা প্রশাসন সে সময় ঢাকাটাইমস পত্রিকার মানিকগঞ্জ প্রতিনিধিকে জানান, শহরের উপর থেকে ড্রেজারের পাইপ সরিয়ে দিতে সদর উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তা মুহাম্মদ শাহাদত খন্দকারকে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। এরপরও ড্রেজারের পাইপ সরিয়ে দিচ্ছে না। এটি অত্যান্ত দুঃখজনক।

এরপর গত ২০ জানুয়ারি  ‘শহর ফুঁড়ে ড্রেজারের পাইপ: ডিসির নির্দেশ মানছেন না ইউএনও’ এই শিরোনামে ঢাকাটাইমসে তৃতীয় প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়। এরপর জেলা প্রশাসন পাইপ সরিয়ে নিতে করা নির্দেশ দেয়। এরপর গতকাল মঙ্গলবার রাত ১২টার দিকে ঠিকাদারের ৪/৫ জন কর্মচারী শহরের প্রধান প্রধান সড়কের উপর থেকে ড্রেজারের পাইপ ও মাটি সরিয়ে দেন। এরপর থেকে  যানবাহন চলাচল স্বাভাবিক হয়।

আজ বুধবার সরেজমিনে ঘুরে দেখা যায়, শহীদ রফিক সড়কের আইনজীবী ভবনের পাশে ও সরকারি দেবেন্দ্র কলেজের সামনের ব্যস্ততম রাস্তার ওপর দিয়ে নেয়া ড্রেজারের পাইপ সরানো হয়েছে। সরিয়ে দেওয়া সেই পাইপ রাখা হয়েছে পাশেই।
এদিকে এস.কে সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ের সামনের আরেকটি ব্যস্ততম রাস্তার ওপর থেকে ড্রেজারের পাইপ এখনো সরানো হয়নি।

অন্যান্য রাস্তার ওপর দিয়ে নেয়া ড্রেজারের পাইপ সরানো হয়নি।
এ ব্যপারে মানিকগঞ্জ জেলা প্রশাসক রাশিদা ফেরদৌস ঢাকাটাইমসকে বলেন, সরকারি কাজ শেষ হয়েছে অর্থচ ড্রেজারের পাইপ সরাবে না, এটি জেলা প্রশাসনের প্রেস্ট্রিজ।

তিনি বলেন, শুধু দুটি স্থানের নয়, সব স্থানের ড্রেজারের পাইপ সরিয়ে দেওয়া হবে। এ ব্যপারে প্রশাসন সতর্ক রয়েছে।

(ঢাকাটাইমস/২৫জানুয়ারি/প্রতিনিধি/ইএস)

সংবাদটি শেয়ার করুন

বাংলাদেশ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন ফিচার বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত