ঘোড়াশাল পুলিশ ফাঁড়ি, নিরাপত্তাহীনতায় পুলিশ

এম লুৎফর রহমান, নরসিংদী
 | প্রকাশিত : ০২ ফেব্রুয়ারি ২০১৭, ১০:৫৯

ঝুঁকিপূর্ণ রেলওয়ের পুরাতন কোয়ার্টারে আইন শৃঙ্খলার কার্যক্রম চালাতে হচ্ছে ঘোড়াশাল ফাঁড়ি পুলিশকে। স্থায়ীভাবে পুলিশ ফাঁড়িটি তৈরি না হওয়ায় ঘনঘন স্থানান্তর নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছে পুলিশ ফাঁড়ির ১৭ জন পুলিশ।

জানা যায়, দুই যুগ আগে ঘোড়াশাল পৌরসভাটি ইউনিয়ন থাকা অবস্থায় পরিষদের বাসিন্দাদের নিরাপত্তায় অস্থায়ীভাবে চালু হয় পুলিশ ফাঁড়িটি। ঘোড়াশালের শীতলক্ষ্যা নদীর পাড় একটি পুরাতন টিনসেটে চলে এর কার্যক্রম। নিরাপত্তাজনিত কারণে এখানে বেশিদিন থাকতে পারেনি পুলিশ সদস্যরা। স্থানান্তর করা হয় ঘোড়াশাল চরপাড়া এলাকার একটি দুতলা ভবনে। দীর্ঘদিনের পুরাতন এই ভবনে ফাটল দেখা দিলে ফাঁড়িটি আবার স্থানান্তরিত করা হয় ঘোড়াশাল পৌর এলাকার রেলওয়ের ৬০ বছরের পুরাতন কোয়ার্টারে।

কিন্তু ভবনটি অতি পুরাতন হওয়ায় বর্তমানে জরাজীর্ণ অবস্থায় অনেকটা ঝুঁকি নিয়েই পরিচালিত হচ্ছে পুলিশ ফাঁড়ির কার্যক্রম। ভবনটির দরজা জানালা ভাঙা থাকায় পুলিশ সদস্যরা রাতে মাথার নিচে অস্ত্র রেখে ঘুমাতে হয়। ফলে অনেকটা নিরাপত্তাহীনতায় ভুগতে হচ্ছে তাদের। ফাঁড়িটিতে নেই কোন ভাল বাথরুম, নেই খাবার পানির সুব্যবস্থা। পুলিশ সদস্যদের পোশাক রাখার জন্যও কোন ব্যবস্থা না থাকায় চৌকির উপর পোশাক এলোমেলো করে রাখতে হচ্ছে। এছাড়া এখানে হাজতখানার ব্যবস্থা না থাকায় আসামিদের গ্রেপ্তারের পর রাখতে হয় খোলা আকাশের নিচে।

ঘোড়াশাল পুলিশ ফাঁড়ির আইসি মো. গোলাম মোস্তফা জানান, ভাঙা টিনসেট ভবনের মধ্যে খুব কষ্টের মধ্যে আমাদের কার্যক্রম চালাতে হচ্ছে। ভবনটির বেহাল অবস্থার কথা কর্তৃপক্ষকে জানানো হয়েছে।

এ ব্যাপারে পলাশ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আবুল কালাম আজাদ জানান, ফাঁড়িটি রেলওয়ের পুরাতন ভবনে থাকায় পুলিশদের ঝুঁকির মধ্যে থাকতে হচ্ছে। ফাঁড়িটির সমস্যা দূর করতে ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের সহযোগিতা কামনা করে আবেদন করেছি।

(ঢাকাটাইমস/২ফেব্রুয়ারি/প্রতিনিধি/এলএ)

সংবাদটি শেয়ার করুন

বাংলাদেশ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন ফিচার বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত