ছাত্রদের পিঠ মাড়ানো: তদন্তের মুখে চেয়ারম্যানের গা ঢাকা

চাঁদপুর প্রতিনিধি, ঢাকাটাইমস
| আপডেট : ০২ ফেব্রুয়ারি ২০১৭, ২১:২৩ | প্রকাশিত : ০২ ফেব্রুয়ারি ২০১৭, ২০:১৪

চাঁদপুরের  একটি স্কুলে শিক্ষার্থীদের তৈরি মানবসেতুতে হেঁটে যাওয়ার ঘটনায় তদন্তের মুখে গা ঢাকা দিয়েছেন হাইমচর উপজেলা চেয়ারম্যান নুর হোসেন পাটোয়ারীসহ পাঁচ জন।

গত সোমবার হাইমচর উপজেলার নীলকমল ওসমানিয়া উচ্চবিদ্যালয়ের বার্ষিক ক্রীড়া ও পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠানে নবম ও দশম শ্রেণির কিছু শিক্ষার্থী মিলে একটি ‘মানবসেতু’ তৈরি করে। পরস্পরের হাত ধরে একদল ছাত্র সেতু বানায়। সে সেতুর উপর উপুড় হয়ে শোয়ে ছিল আরও কয়েকজন ছাত্র। ফেসবুকে ভাইরাল হওয়া ছবিতে দেখা যায় সবার উপরে হাঁটছেন অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি উপজেলা চেয়ারম্যান নুর হোসেন পাটোয়ারী।

এ ঘটনায় উপজেলার চেয়ারম্যান নূর হোসেন পাটোয়ারীসহ পাঁচজনের বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে। মামলায় অভিযুক্ত অপর চারজন হলেন, স্কুলের ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি, প্রধান শিক্ষক মোশাররফ হোসেন, ম্যানেজিং কমিটির অপর দুজন সদস্য। মামলার পর থেকেই তারা গা ঢাকা দিয়েছেন। তবে পুলিশ অভিযুক্তদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা চালাচ্ছে।

শিক্ষার্থীদের তৈরি মানবসেতুতে হেঁটে যাওয়ার ঘটনায় কমিটি গঠনের পর চট্রগ্রাম বিভাগীয় অতিরিক্ত কমিশনার ও অতিরিক্ত সচিব সৈয়দা সারোয়ার জাহান তদন্ত  করার জন্য বৃহস্পতিবার চাঁদপুরে আসেন। বিকালে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন তারা। এসময় জেলা প্রশাসক মো. আব্দুস সবুর মন্ডল, পুলিশ শামসুন্নাহার ও এডিসি জেনারেল মো. মাসুদ হোসেন উপস্থিত ছিলেন।

অতিরিক্ত সচিব সৈয়দা সারোয়ার জাহান জানান, তিন দিনের মধ্যে তদন্ত প্রতিবেদন জমা দেবেন তারা।  তিনি এখন চাঁদপুরে অবস্থান করছেন। এখানে থেকে কমিটির অন্যদেরকে নিয়ে আরও তদন্ত করবেন বলে জানান তিনি।

নূর হোসেনের বিচারের দাবিতে মানববন্ধন

শিক্ষার্থীদের তৈরি মানবসেতুতে হেঁটে যাওয়ার ঘটনায় উপজেলা চেয়ারম্যান নুর হোসেন পাটোয়ারীর বিরুদ্ধে মানববন্ধন করেছেন স্থানীয়রা। আজ বিকালে আলগী বাজার এলাকায় এ মানববন্ধন হয়। এতে নেতৃত্ব দেন হাইমচর উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান শাহজাহান মিয়া পেদা ও  আলগী দক্ষিণ ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আবদুল জলিল মাস্টার।

এর আগে সকালে ক্ষুব্ধ জনগণ আওয়ামী লীগ কার্যলয়ের আসবাবপত্র ভাংচুর করে। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, মানববন্ধনের আগে নূর হোসেন পাটওয়ারী ও শাহজাহান মিয়া ও আবদুল জলিল মাস্টারের সমর্থকরা ধাওয়া পাল্টা ধাওয়ায় লিপ্ত হয়। এসময় দুই পক্ষই ইটপাটকেল ছোড়ে এলাকায় আতংকের সৃস্টি করে। এ সময় এলাকার ব্যবসায়ীরা তাদের ব্যবসা প্রতিষ্ঠান বন্ধ করে দেয়।

(ঢাকাটাইমস/২ফেব্রুয়ারি/প্রতিনিধি/জেডএ)

সংবাদটি শেয়ার করুন

বাংলাদেশ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত