‘তোমার ভাইকে আমি মেরে ফেলেছি’

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ১৫ ফেব্রুয়ারি ২০১৭, ২০:৫৭

পারিবারিক কলহের জের ধরে ইট দিয়ে মাথা থেঁতলিয়ে স্বামীকে হত্যা করেছেন স্ত্রী মৌসুমি ইসলাম নাহার। এরপর তিনি ননদকে ফোন করে বলেন, ‘তোমার ভাইকে আমি মেরে ফেলেছি।’

আজ বৃহস্পতিবার দুপুরে এ ঘটনা ঘটে। পুলিশ নিহতের লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠিয়েছে।

পুলিশ জানায়, হত্যাকাণ্ডের পর স্ত্রী ওই ভবনের অন্য একটি ফ্ল্যাটে আশ্রয় নেন। পুলিশ সেখানে গেলে তাদের কাছে সব শিকার করেন তিনি।
নিহত ব্যক্তির নাম ওহেদুল ইসলাম স্বপন (৬০)। তিনি মালিবাগ ১২ নম্বর ইউনিটের মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার ছিলেন।

স্বপনের চাচাতো ভাই জুলফিকার হারুন বলেন, ‘পারিবারিক কলহের কারণেই নাহার স্বপনকে মেরেছে বলে শুনেছি। আজ দুপুর দেড়টার সময়ে তার মৃত্যুর খবর পাই। স্বপনের বোনকে ফোন করে নাহার বলে, ‘তোমার ভাইকে আমি মেরে ফেলেছি।’

জুলফিকার বলেন,  এরপর তারা মালিবাগ বাজার রোডের ১৬৩ নম্বর বাড়ির পঞ্চম তলায় গিয়ে স্বপনের লাশ দেখতে পান। পরে শাহজাহানপুর থানার উপপরিদর্শক আবু জাফর এসে লাশ উদ্ধার করেন। এ সময় স্ত্রী মৌসুমি ইসলাম নাহারকে গ্রেপ্তার করে থানায় নেয়া হয়।
নরসিংদী জেলার শিবপুর থানার মৃত জয়নাল আবেদীন চৌধুরীর ছেলে স্বপন গণপূর্ত বিভাগ ও ঢাকা সিটি করপোরেশনের ঠিকাদার ছিলেন। তার এক ছেলে রাজধানীর নটরডেম কলেজে পড়েন।

জানতে চাইলে শাহজাহানপুর থানার উপপরিদর্শক আবু জাফর বলেন, আজ বিকাল চারটার দিকে ওই বাড়ি থেকে স্বপনের লাশ উদ্ধার করা হয়। তার কপাল, মুখম-ল, দুই ভ্রু, নাকের উপরের অংশ থেঁতলানো এবং বাম কান ছেঁড়া ছিল।

নিহত স্বপনের স্ত্রী নাহারের উদ্ধৃতি দিয়ে উপপরিদর্শক বলেন, পারিবারিক কলহের কারণে তাকে ইট দিয়ে থেঁতলে হত্যা করা হয়। এ ঘটনায় এখনো কোনো মামলা হয়নি।

(ঢাকাটাইমস/১৫ফেব্রুয়ারি/এএ/মোআ)

সংবাদটি শেয়ার করুন

রাজধানী বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন ফিচার বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত