পিরোজপুরে ইজতেমায় জুম্মার নামাজে মানুষের ঢল

সৈয়দ মাহ্ফুজ রহমান, পিরোজপুর থেকে
 | প্রকাশিত : ১৭ ফেব্রুয়ারি ২০১৭, ২২:৪৫

পিরোজপুর জেলা ইজতেমা মাঠে জুম্মার নামাজে হাজার হাজার ধর্মপ্রাণ মুসল্লি একত্রিত হয়ে নামাজ আদায় করেছেন।

শুক্রবার পিরোজপুর পৌরসভার খুমুরিয়া আলমাকাঠী এলাকার লোপা ব্রিক ফিল্ডের মাঠে এ চিত্র দেখা গেছে।  বৃহস্পতিবার থেকে তিন দিনের ইজতেমার আজ দ্বিতীয় ছিলো মুসল্লিদের উপচে পড় ভিড়।  

তাবলিগ জামায়াতে উপস্থিত হাজার হাজার মুসল্লিদের সঙ্গে জুম্মার নামাজ আদায়ের জন্য ১৭ ফেব্রুয়ারি শুক্রবার সকাল থেকে মুসল্লিগণ ইজতেমা ময়দানে আসতে থাকেন। দুপুর একটার মধ্যে লোকে লোকারণ্য হয়ে পড়ে ইজতেমা ময়দান। বিশাল মাঠে তাপ সহ্য করে ধর্মপ্রাণ মুসল্লিগণ জুম্মার খুতবা শোনেন এবং নামাজ আদায় করেন।

শুক্রবার ছুটির দিন হওয়ায় ও পিরোজপুরে এই প্রথম অনুষ্ঠিত তাবলিগ জামায়াতে অংশ নিতে জেলার বিভিন্ন উপজেলাসহ পার্শ্ববর্তী বাগেরহাট, গোপালগঞ্জ, বরগুনা, ঝালকাঠী জেলা থেকেও শত সহ¯্র মানুষ অংশ নেন।

এ জেলায় এতো লোক সমাগম ও অগনিত মুসল্লিদের সঙ্গে জাম্মার নামাজে শরিক হতে অনেকেই ইজতেমা মাঠে উপস্থিত হয়েছেন। কেউ কেউ বেশি ছওয়াবের আশায়ও এ বিশাল জামায়াতে জুম্মার নামাজ আদায় করেন।

জুম্মার নামাজে ইমামতি করেন, পিরোজপুর সদর উপজেলার দুর্গাপুর হাফেজিয়া মাদরাসার তত্ত্বাবধায়ক ও জামে মসজিদের পেশ ইমাম হাফেজ মাওলানা মো. হারুন অর রশিদ।

নামাজে পিরোজপুর-১ আসনের এমপি জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি একেএমএ আউয়াল, জেলা প্রশাসক মো. খায়রুল আলম সেখ, পুলিশ সুপার মো. ওয়ালিদ হোসেন ও পিরোজপুর পৌরসভার মেয়র মো. হাবিবুর রহমান মালেকসহ বিভিন্ন রাজনৈতি নেতৃবৃন্দ ও প্রশাসনের পদস্থ কর্মকর্তা শরিক হন।

পিরোজপুর পৌর মেয়র আলহাজ্ব মো. হাবিবুর রহমান মালেক সাংবাদিকদের বলেন, ইজতেমা স্থলে পিরোজপুর পৌরসভার পক্ষ থেকে পর্যাপ্ত পানি সরবরাহের ও মাঠে বিদ্যুৎ সংযোগ দেয়া হয়েছে। তদারকির জন্য একটি টিমও গঠন করা হয়েছে।
অংশগ্রহণকাারীদের চিকিৎসা সেবা দেয়ার জন্য সরকারি সেবার পাশাপাশি এপেক্স ক্লাব অব পিরোজপুর একটি মেডিকেল টিম ডাক্তারসহ সার্বক্ষণিক চিকিৎসা সেবা প্রদান করছে বলে জানান তিনি।

(ঢাকাটাইমস/১৭ফেব্রুয়ারি/প্রতিনিধি/ইএস)

সংবাদটি শেয়ার করুন

বাংলাদেশ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন ফিচার বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত