জামাইয়ের হামলায় আহত চারজনের একজনের মৃত্যু

মেহেরপুর প্রতিনিধি, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ২৫ ফেব্রুয়ারি ২০১৭, ১১:৪০

মেহেরপুর গাংনী উপজেলার গাড়াডোব গ্রামে জামাইয়ের ছুরিকাঘাতে শ্যালক-শ্যালিকাসহ শ্বশুর পরিবারের আহত চারজনের মধ্যে একজন মারা গেছেন। তার জাহানারা খাতুন।

শুক্রবার দেড়টার দিকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থার তার মৃত্যু হয়।

বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় পারিবারিক কলহের জের ধরে জাহানারার ছোট বোনের স্বামী সদর উপজেলার শ্যামপুর গ্রামের আশাদুল ইসলামের হামলায় চার জন আহত হন। এ ঘটনায় আসাদুলকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করে গাংনী থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আনোয়ার হোসেন জানান, লাশ রাজশাহী মেডিকেলে ময়নাতদন্ত শেষে নিজ বাড়িতে নিয়ে আসবেন স্বজনরা।

স্থানীয় ও পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, ৮ বছর আগে শ্যামপুর গ্রামের আশাদুলের সঙ্গে গাড়াডোব জলিবিলপাড়ার বানুয়ারা বেগমের বিয়ে হয়। দাম্পত্য কলহের জেরে পাঁচ বছর বয়সী শিশুপুত্র মাসুদকে সঙ্গে নিয়ে বছর দুয়েক আগে পিতার বাড়িতে ফিরে যান বানু। বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় সেখানে যায় আশাদুল। দাম্পত্য কলহের জের ধরে ছুরি দিয়ে এলোপাথাড়ি কুপিয়ে তার শ্যালিকা পারভিনা খাতুন, শ্যালক ইছহাক আলী ও তার স্ত্রী ফরিদা খাতুন এবং স্ত্রীর বড় বোন জাহানারা খাতুনকে জখম করে। স্থানীয়রা আশাদুলকে আটকের পাশাপাশি আহত চারজনকে মেহেরপুর জেনারেল হাসপাতেল ভর্তি করেন। আশংকাজনক অবস্থায় ওই রাতেই জাহাননারাসহ দুজনকে প্রথমে কুষ্টিয়া ও পরে রাজশাহী মেডিকেলে ভর্তি করা হয়। হামলার সময় বানুয়ারা বাড়িতে ছিলেন না।

এদিকে ঘটনার রাতেই নিহতের ছোট বোন বানুয়ারা তার স্বামী আশাদুলকে আসামি করে গাংনী থানায় একটি মামলা করেন। জাহাননারার মৃত্যুতে ওই মামলার সঙ্গে এখন হত্যার ৩০২ ধারা যুক্ত হবে বলে জানান গাংনী থানার ওসি।

ওই মামলার আসামি হিসেবে আশাদুলকে শুক্রবার মেহেরপুর আদালতে সোপর্দ করে পুলিশ।

(ঢাকাটাইমস/২৫ফেব্রুয়ারি/প্রতিনিধি/এলএ)

সংবাদটি শেয়ার করুন

বাংলাদেশ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন ফিচার বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত