ডাকাতিয়া নদীতে ডুবে যাওয়া স্কুলছাত্রের মরদেহ উদ্ধার

চাঁদপুর প্রতিনিধি, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ০৫ মার্চ ২০১৭, ২২:৫৫

চাঁদপুরের হাজীগঞ্জ পৌর এলাকায় ডাকাতিয়া নদীতে বন্ধুদের সঙ্গে গোসল করতে গিয়ে ডুবে যাওয়ার তিন ঘণ্টা পর স্কুল ছাত্র সৌরভ বনিকের (১৪) মরদেহ উদ্ধার করেছে চাঁদপুর ফায়ার সার্ভিস স্টেশনের এর ডুবরি দল।

রবিবার  দুপুর সোয়া ১টায় হাজীগঞ্জ বাজারের দক্ষিণ পাশে ডাকাতিয়া নদীতে ডুবে যায় সৌরভ। চাঁদপুরের ডুবরি দল ব্যাপক তল্লাশি চালিয়ে বিকাল ৪ টায় তাকে উদ্ধার করে। সৌরভ পৌর এলাকার মকিমাবাদ গ্রামের বনিক বাড়ির শিবু বনিকের ছেলে। সে হাজীগঞ্জ পাইলট হাই  স্কুলের ৯ম শ্রেণির ছাত্র।

সৌরভ এর সহপাঠী সীমান্ত ও স্থানীয়রা জানান, দুপুর সোয়া ১টায় হাজীগঞ্জ বাজারের পাশ্ববর্তী ডাকাতিয়া নদীর পুরনো খেয়া ঘাট দিয়ে আট বন্ধু মিলে গোসল করতে আসে। এ সময় বন্ধুরাসহ সৌরভ নদীতে সাঁতার কাটছিলো। হঠাৎ করে পাশ দিয়ে একটি মালবাহী বাল্কহেড যাওয়ার সময় সৌরভ ঘোলাটে পানিতে ডুবে যায়। বন্ধুরা সবাই উঠে আসলেও ফেরেনি সৌরভ। তার না ফেরায় অবস্থা বুঝে এলাকাবাসী খোঁজা খুঁজি শুরু করেন এবং সৌরভের পরিবারকে সংবাদটি জানানো হয়।

হাজীগঞ্জ ফায়ার সার্ভিস স্টেশনের সিনিয়র স্টেশন কর্মকর্তা মো. মাহবুব আলম জানান, বিষয়টি জানতে পেরে বেলা আড়াইটায় তারা ঘটনাস্থলে আসেন। তাদের কোনো ডুবুরি না থাকায় চাঁদপুর থেকে ডুবরি আনান। বিকাল ৩টা থেকে চাঁদপুরের ডুবরি দল তল্লাশি চালিয়ে ডুবরি খোকন মজুমদার ৪টার দিকে ডাকাতিয়া নদীর মাঝখান থেকে সৌরভকে উদ্ধার করেন। তাৎক্ষণিক তাকে হাজীগঞ্জ স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যাওয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত বলে ঘোষণা করেন।

হাজীগঞ্জ থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) শাহীদ হোসাইন জানান, সৌরভের পরিবার কারো প্রতি কোনো অভিযোগ না থাকায়, স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে মৃত ঘোষণার পর সৌরভের মরদেহ পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

(ঢাকাটাইমস/০৫মার্চ/প্রতিনিধি/ইএস)

সংবাদটি শেয়ার করুন

বাংলাদেশ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন ফিচার বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত