ভৈরব জেলা সময়মতো: জিল্লুরের মৃত্যুবার্ষিকীতে কাদের

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ২০ মার্চ ২০১৭, ১১:৫০

সাবেক রাষ্ট্রপতি জিল্লুর রহমান কিশোরগঞ্জের ভৈরব উপজেলাকে জেলা করার প্রক্রিয়া শুরু করেছিলেন জানিয়ে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেছেন, এই প্রক্রিয়া সময়মতো শেষ করা হবে।

সোমবার সকালে রাজধানীর বনানীতে জিল্লুর রহমানের চতুর্থ মৃত্যুবার্ষিকীতে তার কবরে শ্রদ্ধা জানানো শেষে এ কথা জানান ওবায়দুল কাদের।

২০১৩ তারিখের এই দিন সিঙ্গাপুরে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান জিল্লুর রহমান। তিনি তখন বাংলাদেশের রাষ্ট্রপতির পদে ছিলেন। তাকে দেশে ফিরিয়ে আনার পর বনানী কবরস্থানে সমাহিত করা হয়।

মৃত্যুবার্ষিকীতে স্বাধীনতা যুদ্ধের অন্যতম সংগঠক এবং বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ঘনিষ্ট সহচর এই নেতাকে শ্রদ্ধার সঙ্গে স্মরণ করেছে আওয়ামী লীগ। এ সময় এই রাজনীতিবিদের জীবন ও কর্মের স্মরণের পাশাপাশি তার নির্বাচনী এলাকা ভৈরবকে জেলা করতে উদ্যোগ নিয়ে কথা বলেন ওবায়দুল কাদের।

কিশোরগঞ্জের ১৩টি উপজেলার মধ্যে ভৈরব ও কুলিয়ারচর উপজেলা নিয়ে ছিল জিল্লুর রহমানের নির্বাচনী এলাকা। এর মধ্যে ভৈরবকে জেলা করার দাবি রয়েছে। ২০০৮ সালের ২৯ ডিসেম্বরের নির্বাচনের আগে এ বিষয়ে উদ্যোগ নিতে ভোটারদেরকে জিল্লুর রহমান আশ্বাসও দিয়েছিলেন জিল্লুর রহমান।

নির্বাচনের পর আওয়ামী লীগ সরকার ক্ষমতায় আসার পর ভৈরবকে জেলা ঘোষণার প্রাথমিক কিছু কাজও শুরু হয়। ২০১০-১১ সালে এ নিয়ে কিশোরগঞ্জ জেলায় পরস্পরবিরোধী নানা কর্মসূচি পালিত হয়। একদিকে ভৈরববাসী জেলা ঘোষণার দাবিতে আন্দোলনে নামে, তেমনি কিশোরগঞ্জবাসী কর্মসূচি দেয় জেলার অখণ্ডতা বজায় রাখার দাবিতে। আবার ভৈরব জেলা ঘোষণা হলে তাদের সঙ্গে না যাওয়ার কথা জানিয়ে আন্দোলনে নামে বেশ কিছু উপজেলার বাসিন্দারা। পরে এই উদ্যোগ থেমে যায়।

জিল্লুর রহমানের মৃত্যুবার্ষিকীতে বিষয়টি নিয়ে আবারও কথা বলেন ওবায়দুল কাদের। তিনি বলেন, ‘জিল্লুর রহমানের মৃত্যুতে ভৈরবকে জেলা করার প্রক্রিয়া থেমে যায়নি। সরকার সময় সুযোগমতো ভৈরব জেলা গঠনের প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেবে।’

ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘জিল্লুর রহমান একজন সৎ, নিষ্ঠাবান ও নিবেদিতপ্রাণ রাজনীতিক ছিলেন। আজকের দিনে আমরা সৎ, নিষ্ঠাবান রাজনীতিবিদ খুঁজছি। অথচ নিবেদিতপ্রাণ রাজনীতিক হিসেবে জিল্লুর রহমান উদাহরণ ছিলেন।’

প্রয়াত নেতাকে শ্রদ্ধা জানানোর আয়োজনে আরও উপস্থিত ছিলেন আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য আব্দুর রাজ্জাক, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর কবির নানক, সাংগঠনিক সম্পাদক খালিদ মাহমুদ চৌধুরী, দপ্তর সম্পাদক আবদুস সোবহান গোলাপ, উপদপ্তর সম্পাদক বিপ্লব বড়ুয়া প্রমুখ।

জিল্লুর রহমানের মৃত্যুবার্ষিকীতে ঢাকার গুলশানে বাসভবন এবং নিজ এলাকা ভৈরবে দোয়া, মিলাদ ও কোরআন খতমের আয়োজন রয়েছে।

ঢাকাটাইমস/২০মার্চ/টিএ/এমআর

সংবাদটি শেয়ার করুন

জাতীয় বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন ফিচার বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত