জাল পাসপোর্টে বিদেশে মানুষ পাঠাতো পাচারকারীরা: র‌্যাব

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকাটাইমস
| আপডেট : ২০ মার্চ ২০১৭, ১৬:০৭ | প্রকাশিত : ২০ মার্চ ২০১৭, ১৬:০৪

জাল পাসপোর্ট ও ভিসার মাধ্যম একটি চক্র দীর্ঘদিন ধরে সহজ সরল মানুষদের বিভিন্ন দেশে পাঠাতো বলে জানিয়েছে র‌্যাব। গতকাল রাতে রাজধানীর সায়েদাবাদ থেকে তিনজনকে আটকের পর দুপুরে কারওয়ানবাজারের মিডিয়া সেন্টারে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে র‌্যাব-১০ এর অধিনায়ক জাহাঙ্গীর হোসেন মাতুব্বর এই তথ্য জানান।

র‌্যাব-১০ এর অধিনায়ক বলেন, র‌্যাব সংঘবদ্ধ অপরাধী চক্র, অর্থ জালিয়াতি জাল পাসপোর্ট, জাল স্ট্যাম্প তৈরি প্রতিরোধ করতে কাজ করতে আসছে। এরই ধারাবাহিকতায় রবিবার রাতে রাজধানীর উত্তর যাত্রাবাড়ি এলাকা থেকে জাল পাসপোর্ট ও ভিসা তৈরির অপরাধে তিনজনকে গ্রেপ্তার করা হয়।

গ্রেপ্তারকৃত হলেন- নাসিবুর রহমান নাসির, আতিকুল ইসলাম লিমন এবং আবদুল কুদ্দুস। এ সময় তাদের কাছ থেকে ১৪টি জাল পাসপোর্ট, ১৬০টি বিভিন্ন দেশের স্ট্যাম্প টিকিট, ১৩০টি পাসপোর্টের কভার পেজ, ২২টি সিলমোহর, ৫০টি জাল পাসপোর্টের পাতা, ৩০টি জাল টিকিটের পাতা, ৪০টি পাসপোর্ট তৈরির রেক্সিন কভার, ১২টি ফুয়েল স্টিকার রোল, দুটি সিপিইউ, দুটি মনিটর, একটি মাউস,একটি কী বোর্ড, ৫৮টি বিভিন্ন ধরনের রংয়ের কৌটা, তিন জোড়া হ্যান্ডস গ্লোব, সাত কৌটা পেপার কাটিং ব্লেড, ৩২০ পিস পাসপোর্ট তৈরির কাগজ, পাঁচটি ওমান ভিসার কপি এবং একটি লেজার ড্রিল মেশিন উদ্ধার করা হয়।

র‌্যাব কর্মকর্তা জাহাঙ্গীর হোসেন বলেন, গতকাল রাতে ৩৩ নম্বর উত্তর যাত্রাবাড়ির একটি বাসায় তল্লাশি চালিয়ে নাসিবুর রহমান নামে এক ব্যক্তির গ্রেপ্তার করা হয়। এ সময় তার কাছ থেকে ৩২ ধরনের নকল পাসপোর্ট, বিভিন্ন দেশের নকল ভিসা ও স্ট্যাম্প তৈরির কাগজপত্র উদ্ধার করা হয়। তার দেয়া তথ্যমতে আতিকুল ইসলামকে গ্রেপ্তার করা হয়। নাসিবুর রহমানের কাছ থেকে সাড়ে চার হাজার টাকার বিনিময়ে প্রতিটি জাল পাসপোর্ট সরবরাহ করতো লিমন।

র‌্যাবের এই কর্মকর্তা আরও বলেন, এছাড়া অভিযানে ওই এলাকা থেকে গ্রেপ্তার আবদুল কুদ্দুস নকল সিলমোহর বাজারের চেয়ে বেশি দামের বিনিময়ে তৈরি করতো। জিজ্ঞাসাবাদে গ্রেপ্তাররা জানিয়েছে, তারা দীর্ঘদিন ধরে জাল পাসপোর্ট ও ভিসা তৈরি করে সেগুলো কুরিয়ার সার্ভিসযোগে বিদেশে পাচার করতো। এবং নকল ভিসা, পাসপোর্ট, স্ট্যাম্প টিকিট তৈরির কাজ করত।

তাদের দেয়া তথ্যের ভিত্তিতে আরও দুই থেকে তিনজনকে গ্রেপ্তারের চেষ্টা করা হচ্ছে।

সংবাদ সম্মেলনে আরও উপস্থিত ছিলেন র‌্যাব-১০ এর উপ অধিনায়ক মেজর মহিউদ্দিন ও সহকারী পুলিশ সুপার সোহরাব হোসেন।

ঢাকাটাইমস/২০মার্চ/এএ/এমআর

সংবাদটি শেয়ার করুন

জাতীয় বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন ফিচার বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত