‘চোরাচালান ঠেকাতে টেকনাফ-মংডু সীমান্তে লঞ্চ সার্ভিস’

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ২০ এপ্রিল ২০১৭, ১৭:৪৬

চোরাচালান রোধে বাংলাদেশের টেকনাফ এবং মিয়ানমারের মংডু সীমান্তে লঞ্চ সার্ভিস চালুর ব্যবস্থা নেয়ার কথা জানিয়েছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল। তিনি বলেন, ‘টেকনাফ এবং মংডু সীমান্ত দিয়ে প্রতিদিনই মানুষ যাতায়াত করছে। এদের মধ্যে অনেক পর্যটকও যাচ্ছে। বিষয়টিতে একটি সিস্টেমের মধ্যে আনতে লঞ্চ সার্ভিস চালু করা হচ্ছে, যেন সবকিছু একটি কাঠামোর মধ্য দিয়ে চলে।’

বৃহস্পতিবার সচিবালয়ে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে জাতীয় চোরাচালান প্রতিরোধ কমিটির সভা শেষে সাংবাদিকদের এসব কথা বলেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী।

আসাদুজ্জামান খাঁন জানান, ‘টেকনাফ দিয়ে পর্যটকের পাশাপাশি অনেক সাধারণ মানুষ মিয়ানমারের মংডুতে যায়। এছাড়া সেখান থেকেও অনেকে টেকনাফ আসে। এছাড়া অবৈধভাবেও অনেকে যাতায়াত করে। সবাইকেই চেক করা সম্ভব হয় না। তাই বিষয়টিকে একটি ফরমাল সিস্টেমে আনা হলে আর চোরাচালান হবে না। কেউ অবৈধ যাতায়াত এবং চোরাচালান করতে পারবে না।

মন্ত্রী জানান, ‘অক্টোবর ২০১৬ থেকে ডিসেম্বর পর্যন্ত সারাদেশে ১ লাখ ৮৫ হাজার চোরাচালানবিরোধী অভিযান হয়েছে। এর মধ্যে মামলা হয়েছে ৯ হাজার ৮৩৪টি। আটক করা হয়েছে ৮ হাজার ৬৫০ জনকে এবং সাজা হয়েছে ২ হাজার ৬৩৩ জনের।’

চোরাচালানের বিরুদ্ধে অভিযান আরও জোরদার হবে জানিয়ে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘সীমান্ত দিয়ে অবৈধভাবে চোরাচালন হয়। মাদক ব্যবসা হয়। এর সঙ্গে অনেক প্রভাবশালী জড়িত। সুনির্দিষ্ট অভিযোগের ভিত্তিতে প্রভাবশালীদের বিরুদ্ধে আইনি পদক্ষেপ নেয়া হবে।’

আসাদুজ্জামান খান বলেন, ‘সীমান্ত দিয়ে চোরাচালান বন্ধ করতে সীমান্ত এলাকায় অত্যাধুনিক সার্ভিলেন্স ডিভাইস চালু করা হবে। রেল লাইনগুলোতে চোরাচালানের মালামাল পাওয়া যায়। সেখানে রেল পুলিশের তৎপরতা বাড়ানোর নির্দেশ দেয়া হয়েছে। এছাড়া সারাদেশেও চোরাচালান বিরোধী টহল আরও জোরদার করার নির্দেশ দেয়া হয়েছে বলে জানান স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী।

ঢাকাটাইমস/২০এপ্রিল/এমএম/এমআর

সংবাদটি শেয়ার করুন

জাতীয় বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত