মানিকগঞ্জে মন্দিরের জমি দখলের অভিযোগ, প্রতিবাদে মানববন্ধন

মানিকগঞ্জ প্রতিনিধি, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ২৭ এপ্রিল ২০১৭, ২০:২৩

মানিকগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের অর্থ-বিষয়ক সম্পাদক ও শিবালয় উপজেলার সাবেক চেয়ারম্যান আব্দুর রহিম খানের বিরুদ্ধে মন্দিরের জমি দখলের অভিযোগে মানববন্ধন করেছে শিবালয় শীলপাড়া সার্বজনীন মন্দির কমিটি ও স্থানীয় শীল সম্প্রদায়ের লোকজন।

বৃহস্পতিবার বেলায় সাড়ে ১২টার দিকে মানিকগঞ্জ প্রেসক্লাব চত্বরে শীলপাড়া মন্দির কমিটির ব্যানারে এই কর্মসূচি পালিত হয়।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন- শিবালয় শীলপাড়া সার্বজনীন মন্দির পরিচালনা কমিটির সভাপতি প্রমথ চন্দ্র শীল, দীনেশ চন্দ্র সরকার, সুধীর চন্দ্র শীল, দীনু চন্দ্র শীলসহ স্থানীয় শীল সম্প্রদায়ের লোকজন।

মানববন্ধনে শিবালয় শীলপাড়া সার্বজনীন মন্দির পরিচালনা কমিটির সভাপতি প্রমথ চন্দ্র শীল বলেন, গত ত্রিশ বছর আগে স্থানীয় আক্কাস মিয়া নামে এক ব্যক্তি ১৬০ শতাংশ জমির মধ্যে ৩০ শতাংশ জমি মন্দিরের নামে দান করেন। পরবর্তীতে আক্কাস মিয়ার মৃত্যুর পর তার ওয়ারিশরা জেলা আওয়ামী লীগ নেতা আব্দুর রহিম খানের কাছে মন্দিরের ৩০ শতাংশ বাদে বাকি ১৩০ শতাংশ জমি বিক্রি করেন। কিন্তু আব্দুর রহিম খান ক্ষমতার দাপটে মন্দিরের ৩০ শতাংশ জমিসহ পুরো জমি দখলে নেয়ার চেষ্টা করছেন।

তারা বলেন, গত ৩০ বছর ধরে স্থানীয় শীল সম্প্রদায়ের লোকজন মন্দিরে পূজা অর্চনা করে আসছে। এই জমি আব্দুর রহিম খান দখল করে নিলে শীল পাড়া সম্প্রদায়ের মানুষদের এলাকায় পূজা অর্চনার জায়গা থাকবে না অভিযোগ করে দ্রুত প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করেন।

এ ব্যাপারে জেলা আওয়ামী লীগের অর্থ-বিষয়ক সম্পাদক ও শিবালয় উপজেলার সাবেক চেয়ারম্যান আব্দুর রহিম খান বলেন, আমি কারো জমি দখল করিনি। আমার জমির উপর তারা মন্দির ওঠিয়ে রেখেছেন।

তিনি বলেন, আজকে যারা আমরা বিরুদ্ধে মানববন্ধন পালন করেছে- তাদের মধ্যে এলাকার কোন শীল সম্প্রদায়ের লোকজন ছিল না। নিজের স্বার্থ হাসিলে প্রমথ চন্দ্র শীল ওরফে সূর্য এই অনৈতিক কাজ করছেন।

(ঢাকাটাইমস/২৭এপ্রিল/প্রতিনিধি/এলএ)

সংবাদটি শেয়ার করুন

বাংলাদেশ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন ফিচার বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত