বাবা-মেয়ের আত্মহত্যা

এবার পুলিশ সদর দপ্তরের তদন্ত কমিটি

গাজীপুর প্রতিনিধি, ঢাকাটাইমস
| আপডেট : ০৩ মে ২০১৭, ১৯:১৪ | প্রকাশিত : ০৩ মে ২০১৭, ১৮:১৭

গাজীপুরের শ্রীপুর উপজেলার কর্ণপুর সিটপাড়া এলাকায় ট্রেনের নিচে লাফ দিয়ে বাবা-মেয়ের আত্মহত্যার ঘটনায় পুলিশ সদর দপ্তরের পক্ষ থেকে একটি তদন্ত কমিটি করা হয়েছে। চার সদস্য বিশিষ্ট তদন্ত কমিটির প্রধান করা হয়েছে ঢাকা রেঞ্জের অতিরিক্ত পুলিশ মহাপরিদর্শক মোহাম্মদ আলী মিয়াকে। আগামী পাঁচ থেকে সাত দিনের মধ্যে কমিটিকে তাদের প্রতিবেদন জমা দিতে বলা হয়েছে।

বুধবার দুপুরে নিহত হযরত আলীর বাড়ি পরিদর্শনের পর মোহাম্মদ আলী মিয়া এই তথ্য জানিয়েছেন।

কমিটির অন্য সদস্যরা হলেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (ঢাকা) মোসা. সাদিরা খাতুন, জেলা পুলিশের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (ডিএসবি) মো. সুলাইমান মিয়া, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (ঢাকা) মো. আক্তারুজ্জামান।

মোহাম্মদ আলী বলেন, ট্রেনের নিচে বাবা-মেয়ের লাফ দেয়ার ঘটনায় পুলিশের মহাপরিদর্শকের নির্দেশে চার সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। ঘটনাস্থল পরিদর্শনের পর মামলার ক্লু পাওয়া গেছে বলে জানান তিনি।

এর আগে ঘটনাটি তদন্তে জেলা পুলিশের পক্ষ থেকে তিন সদস্য বিশিষ্ট একটি কমিটি করা হয়। আগামীকাল বৃহস্পতিবার কমিটিকে তাদের প্রতিবেদন জমা দিতে বলা হয়েছে।

এদিকে বাবা-মেয়ের আত্মহত্যার ঘটনায় করা মামলায় শহীদ নামে আরও একজনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। জিআরপি থানায় করা ওই মামলায় মঙ্গলবার রাতে শহীদকে গ্রেপ্তার করা হয়।

গ্রেপ্তার শহীদ কর্ণপুর সিটপাড়া গ্রামের নাজির উদ্দিনের ছেলে। তবে শহীদের পরিবারের অভিযোগ, তিনি মামলার আসামি নন। অযথাই পুলিশ তাকে গ্রেপ্তার করেছে।

শ্রীপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আসাদুজ্জামান বলেন, মামলার এজাহারভূক্ত আসামি শহীদ। তবে যাচাই বাছাই শেষে নির্দোষ হলে তাকে ছেড়ে দেয়া হবে।

এর আগে এই ঘটনায় গ্রেপ্তার ইউপি সদস্য আবুল হোসেন ব্যাপারীকে দুই দিন রিমান্ড শেষে আদালতে পাঠানো হয়।

গত শনিবার সকালে শ্রীপুর রেলওয়ে স্টেশন এলাকায় ট্রেনে কাটা পড়ে শ্রীপুরের সিটপাড়া গ্রামে দিনমজুর হযরত আলী ও তার পালিত মেয়ে আয়েশা আক্তারের মৃত্যু হয়।

হযরত আলীর স্ত্রী হালিমা বেগমের অভিযোগ তার মেয়েকে বাড়ি থেকে তুলে নিয়ে ধর্ষণের চেষ্টা করে স্থানীয় বখাটে ফারুক। স্থানায়ীরা টের পেয়ে ওই মেয়েকে উদ্ধার করে। এ ঘটনায় স্থানীয় ইউপি সদস্য ও থানা পুলিশকে জানিয়ে প্রতিকার না পেয়ে মেয়েকে নিয়ে ট্রেনের নিচে ঝাঁপ দিয়ে আত্মহত্যা করেন হযরত আলী। রবিবার ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে ময়নাতদন্ত শেষে সন্ধ্যায় তাদের বাড়ির পাশে দাফন করা হয়।

ঢাকাটাইমস/৩মে/প্রতিনিধি/এমআর

সংবাদটি শেয়ার করুন

বাংলাদেশ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন ফিচার বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত