ভোলায় জমি নিয়ে বিরোধে হামলা, আহত ৪

ভোলা প্রতিনিধি, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ১৩ মে ২০১৭, ২০:১৬

ভোলায় জমি-জমা সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে হামলায় একই পরিবারের চার জন আহত হয়েছেন।

শনিবার সকালে ভোলা সদর উপজেলার ধনিয়া ইউনিয়নের নবীপুর সাইক্লোন শেল্টার এলাকার কাবিল হাওলাদার বাড়ির মো. বাচ্চুর বসতবাড়িতে এ হামলার ঘটনা ঘটে। হামলায় ওই ঘরের মালিক বাচ্চু, স্ত্রী নুর নাহার, বাবা মো. ইয়াছিন ও ছেলে মো. রাব্বি আহত হয়। বর্তমানে তারা ভোলা সদর হাসপাতালে  চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

আহত নুর নাহার জানান, শনিবার সকালে তার স্বামী বাচ্চু ছেলে রাব্বিকে নিয়ে স্কুলে যায়। এসময় পশের বাড়ির মো. রফিক, নুর নবী, আবু তাহের, মিন্টু, দিনাজ ও লিপিসহ ১০/১৫জন মিলে তাদের বাড়ির গাছের আম পারতে আসে। নুর নাহার তাদেরকে আম পাড়তে নিষেধ করেন। এতে রফিক গং এই বাড়িতে জমি পাবে বলে দাবি করে আম পাড়তে থাকে। পরে নুর নাহার তার স্বামী বাচ্চুকে ফোন করলে সে এসে তাদের আম পাড়তে নিষেধ করেন। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে তারা লাঠি-সোঠা নিয়ে স্বামী বাচ্চু ও ছেলে রাব্বিকে মারধর শুরু করে। পরে এ অবস্থা দেখে নুর নাহার ও তার শ্বশুর ইয়াছিন এগিয়ে আসলে তাদেরকেও মারধর করে রফিক গংরা। এ অবস্থায় পাশের ঘরের লোকজন এসে সেখান থেকে তাদেরকে উদ্ধার করে ভোলা সদর হাসপাতালে ভর্তি করে।  

মো. বাচ্চু জানান, আমি ও আমার পূর্ব পুরুষ প্রায় ১০০বছর ধরে নবীপুর মৌজার ১৩ শতাংশ জমি রেকর্ড সূত্রে ভোগ দখল করে আসছি। কিন্তু ২০১২ সালে রফিকের বাবা আবুল কাশেম এই জমি তাদের পূর্ব পুরুষের বলে দাবি করে ধনিয়া ইউনিয়ন পরিষদে একটি মামলা করেন। পরে স্থানীয় চেয়ারম্যান এমদাদুল হক কবির কাগজপত্র যাচাই করে এর কোনো সত্যতা পাননি। ফলে সে আমাদের পক্ষে রায় দেন। বিগত এক বছর ধরে মো. রফিক ২ শতাংশ ও আবু তাহের, লিপি, মিন্টু তিন শতাংশ মোট পাঁচ শতাংশ জমি তাদের বলে দাবি করে বিভিন্ন সময়ে বাড়িতে এসে হামলা ও ভাঙচুর করে। এতে স্থানীয় চেয়ারম্যান ও গণ্যমান্য ব্যক্তিদেরকে জানালেও কোনো সমাধান হয়নি।

মো. বাচ্চু আরও অভিযোগ করে বলেন, রফিক গং আমার কাছ থেকে দেড় লাখ টাকা দাবি করে। না হলে এই বাড়িতে থাকতে দিবে না বলেও হুমকি দেয় তাঁরা।

এ ব্যাপারে কথা বলতে মো. রফিকের মোবাইলে কয়েকবার ফোন করলেও তিনি ফোন রিসিভ করেননি।

ভোলা সদর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মীর খায়রুল কবির বলেন, আমাদের কাছে এ বিষয়ে কেউ অভিযোগ করেনি। অভিযোগ পেলে তদন্ত সাপেক্ষে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।

(ঢাকাটাইমস/১৩মে/প্রতিনিধি/ইএস)

সংবাদটি শেয়ার করুন

বাংলাদেশ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন ফিচার বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত