উত্তর সিটির মোবাইল অ্যাপ ‘NOGOR’ কেন ব্যবহার করবেন?

আউয়াল খাঁন, ঢাকাটাইমস
| আপডেট : ১৮ মে ২০১৭, ১৫:০৩ | প্রকাশিত : ১৮ মে ২০১৭, ০৮:৪৩

আধুনিক বিজ্ঞানের তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বা আইসিটি খাতে একটি কার্যকর অ্যান্ড্রয়েড অপারেটিং সিস্টেমের মোবাইল অ্যাপ NOGOR নিয়ে হাজির হয়েছে ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশন।  কিন্তু কেন ব্যাবহার করবেন এই মোবাইল অ্যাপটি? কিইবা আছে এতে?

জনগণকে নিরাপদ, পরিচ্ছন্ন, সবুজ, স্মার্ট, আলোকিত, জলজট ও যানজট মুক্ত ঢাকা গড়ার স্বপ্ন দেখিয়ে ২০১৫ সালের ২৮ এপ্রিল প্রথম বারের মতো বিভক্ত সিটি করপোরেশন ‘ঢাকা উত্তরের’ মেয়র পদে নির্বাচিত হন বিশিষ্ট ব্যবসায়ী আনিসুল হক। নব নির্বাচিত এই নগর পিতার আসনের জন্য আটদিন পর শপথ গ্রহণ করেন এবং ১৬ দিন পর আনুষ্ঠানিক ভাবে কার্যক্রম শুরু করেন।  

ডিএনসিসির সংশ্লষ্ট কর্মকর্তা, স্থানীয় সংসদ সদস্য, কাউন্সিলর, পুলিশসহ বিভিন্ন বিশিষ্টজনদের সাথে নিয়ে ঢাকা সিটির উত্তর অংশকে সবুজ, পরিচ্ছন্ন ও নিরাপদ (গ্রিন, ক্লিন ও সিকিউর্ড) করার কার্যক্রম হাতে নেন। তবে পুলিশ ও কয়েকজন বিশেষজ্ঞদের পরামর্শে মানুষের নিরাপত্তার বিষটিতেই আগে জোর দেন নব নির্বাচিত এই মেয়র।  

এরই ধারাবাহিকতায় গত বছরের আগস্টের ২ তারিখে রাজধানীর কৃষিবিদ ইনস্টিটিউশন মিলনায়তনে আনুষ্ঠানিকভাবে ডিএনসিসি এই ডিজিটাল মোবাইল অ্যাপ ‘নগর’ চালু করে। ডিএনসিসির উদ্যোগে এই ‘নগর’ অ্যাপটি তৈরি করেছে বাংলাদেশ ইউনিভার্সিটির (বিইউ) আরবান ল্যাব।

অ্যাপটিতে নাগরিক সেবা সংক্রান্ত যাবতীয় তথ্য-উপাত্ত পাওয়া যাবে।  এর মাধ্যমে নিকটস্থ হাসপাতাল, বাসস্টপ, ফায়ার সার্ভিস, পুলিশ স্টেশনসহ জরুরি সেবাদানকারী প্রতিষ্ঠানের ঠিকানা জানা যাবে মুহূর্তের মধ্যে। এ ছাড়াও কোন নাগরিক চাইলেই তার অভিযোগ বা মতামত সরাসরি সিটি করপোরেশনকে জানাতে পারবে।

সড়ক, ফুটপাত, ড্রেন বা যে কোন ভোগান্তির ছবি তুলে সিটি করপোরেশনের কাছে তাৎক্ষনিক পাঠানোর ব্যবস্থাও রয়েছে অ্যাপটিতে। একই সাথে অ্যাপটিতে থাকা নিরাপত্তা ফিচারটি ব্যবহার করে প্রিয়জনের সঠিক অবস্থান ও গতিবিধি জানা যাবে। যদি কেউ বিপদে পড়ে এবং মাত্র তিন সেকেন্ড অ্যাপের ‘সেভ আওয়ার সোল বা SOS’ বাটনটি চেপে ধরে থাকে তবে স্যাটেলাইটের সহায়তায় পরিবারের সদস্য, আত্মীয়স্বজন ও নিকটস্থ পুলিশের কাছে বিপৎসংকেত বেজে উঠবে। বিপদে পড়া ব্যক্তিটির ছবি, অবস্থান ও কণ্ঠ স্বয়ংক্রিয়ভাবে পৌঁছে যাবে তার পরিবারের সদস্যদের কাছে।

ব্যাক্তিগত নিরাপত্তা:

গত ১৪ মে ফেসবুক লাইভে মেয়র আনিসুল হক বলেন, ‘আমরা ডিএনসিসিকে আধুনিক করার জন্য গত বছর একটি অ্যাপ তৈরি করেছি। এখানে আপনারা কমপ্লেইন করতে চান, ছবিও তুলে আমাদের কাছে পাঠিয়ে দিন। এটা আমার কাছে চলে আসবে এবং আমি ২৪ ঘণ্টার মধ্যে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেব।’

এই নগর অ্যাপসের মাধ্যমে নিরাপত্তা প্রাপ্তির বিষয়ে মেয়র আনিসুল হক বলেন, ‘বিশেষ করে জরুরি অবস্থায় অ্যাপসে ঢোকার পর ইমরজেন্সি নামক একটি বাটন আসবে। সেই বাটনে ক্লিক করলে আরও চারটি অপশন আসবে। ইমারজেন্সিতে ঢুকে উপরের মাঝখানে লাল রঙ সম্বলিত SOS লেখা আছে। সেখানে তিন সেকেন্ড প্রেস করে রাখলে জিপিএসের মাধ্যমে স্যাটেলাইট আপনার স্থান বের করে আপনাকে জানাবে।’

এই অ্যাপসের আরো সুবিধার কথা বলতে গিয়ে মেয়র জানান, ‘এ ছাড়া আরও চারটি অপশন আসবে। সেখানে প্রথমে রয়েছে track me। অর্থাৎ জিপিএস দিয়ে আপনার এলাকা ট্র্যাক করা হবে।

দ্বিতীয় অপশনে রয়েছে track family। এর আগে আপনাকে এই অ্যাপসটি ডাউনলোড করার পর ট্র্যাক ফ্যামিলি অপশনে আপনাকে আপনার পরিচিত আত্মীয়স্বজনকে যুক্ত করতে হবে। যাতে আপনি বিপদে পড়লে সহজেই আপনার আত্মীয়দের থেকে সাহায্য চাইতে পারেন। ট্র্যাক ফ্যামিলিতে ক্লিক করলে আপনার বিপদের কথা সংক্রিয়ভাবে আপনার আত্মীয়দের কাছে পৌঁছে যাবে।

তৃতীয় অপশনে রয়েছে ফ্যামিলি ও ফ্রেন্ডস। সেখানে আপনি আপনার আত্মীয়দের পাশাপাশি আপনার পরিচিত বন্ধুদেরও যুক্ত করতে পারবেন। শেষের অপশনটিতে রয়েছে view info। অর্থাৎ এখানে আপনি আপনার অবস্থান চিহ্নিত করার জন্য মানচিত্র ডাউনলোড করতে পারবেন। কথা রেকর্ড করে রাখতে পারবেন ও আপনি আপনার আত্মীয় ও বন্ধুদের সুবিধার্থে আপনার বিপদের স্থানের ছবি তুলে শেয়ার করতে পারবেন।

অভিযোগ ও মতামত প্রেরণে:

অ্যাপটিতে ঢুকে COMPLAINTS/SUGGESTIONS বাটনে ক্লিক করে এলাকার রাস্তা-ফুটপাত, সড়কবাতি, ড্রেনেজ, বর্জ্য, মশা, অবৈধ দখল, ঘুষ ও দুর্নীতি—এই সাতটি অভিযোগ বা মতামত সরাসরি সিটি করপোরেশনে পাঠানো যাবে। 

সেখানে আপনার অভিযোগের বাটনটিতে চাপ দেয়ার পর ক্যামেরার সংকেতটিতে ঢুকে মোবাইলে ছবি তোলার পর, অভিযোগের বিষয়টি লিখে, সংশ্লিষ্ট এলাকার ঠিকানা দিয়ে SUBMIT বাটনি চাপ দিলেই স্বয়ংক্রিয়ভাবে কর্তৃপক্ষের কাছে পৌঁছে যাবে আপনার অভিযোগ বা মতামতটি।  

ডিএনসিসি আপনার অভিযোগের ভিত্তিতে বিষয়টির সমাধানের চেষ্টা করবে, এবং সমস্যার সমাধান হলে অভিযোগকারী স্বয়ংক্রিয়ভাবেই বিষয়টি জেনে যাবে।

প্রয়োজনীয় তথ্য প্রাপ্তি:

NEAR ME তে প্রবেশ করলেই পাবেন হাতের কাছের- হাসপাতাল, পুলিস স্টেশন, বাস টার্মিনাল, ফায়ার স্টেশন, এটিএম বুথ ও বিদেশি দূতাবাসের মানচিত্র আপনার সামনে চলে আসবে।

এছাড়া ABOUT CITY CORPORATION এ প্রবেশ করলে বর্তমান মেয়র আনিসুল হক, চীফ এক্সিকিউটিভ অফিসার (সিইও), ডিএনসিসির বিভিন্ন অফিসের মানচিত্র, কর্মকর্তা ও কাউন্সিলরদের নাম। 

সব শেষে DNCC FORMS জন্ম ও মৃত্যু সার্টিফিকেট, ওয়ারিম সনদ, ট্যাক্স প্রদান, ট্রেড লাইসেন্স সংগ্রহ সংক্রান্ত তথ্য পাবেন।

অ্যাপটি কীভাবে পাবেন?

এনড্রয়েড অপারেটিং সিস্টেম চালিত মোবাইল থেকে গুগল প্লে-স্টোরে গিয়ে থেকে বিনামূল্যে অ্যাপটি ডাউনলোড ও ইনস্টল করা যাবে। CREATNEW ACCOUNT  প্রবেশ করে, User Name:- আপনার নাম, First Name:- নামের প্রথম শব্দ, Last Name:- নামের দ্বিতীয় শব্দ, Password:- ********, Confirm Password:- আগের পাসওয়ার্ডটি পুনরায় লিখুন, আপনার মোবাইল নম্বর দিন, সব শেষে আপনার নির্দিষ্ট Email:- যেমন [email protected] লিখে SIGN UP করতে হবে।

এর পর প্রতি LOGIN এ আপনার ইউজার নেম ও পাসওয়ার্ড দিতে হবে। তাই পাসওয়ার্ডটি সব সময় মনে রাখতে হবে।

অ্যাপটি ব্যবহার করতে হলে অ্যান্ড্রয়েড অপারেটিং সিস্টেমের স্মার্টফোন ও ইন্টারনেট সংযোগ থাকতে হবে।

(ঢাকাটাইমস/১৮মে/এএকে/ডব্লিউবি)

সংবাদটি শেয়ার করুন

রাজধানী বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন ফিচার বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত