ভাঙচুর মামলায় ভূমিমন্ত্রীর ছেলে কারাগারে

পাবনা প্রতিনিধি, ঢাকাটাইমস
| আপডেট : ১৯ মে ২০১৭, ১৬:৪৭ | প্রকাশিত : ১৯ মে ২০১৭, ১৫:৫০

পাবনার ঈশ্বরদীতে ব্যবসা প্রতিষ্ঠান ও মুক্তিযোদ্ধার বাড়িতে হামলা এবং ভাঙচুরের মামলায় ভূমিমন্ত্রী শামসুর রহমান ডিলুর ছেলে শিরহান শরীফকে কারাগারে পাঠিয়েছে আদালত। তার সঙ্গে আরও ১০ আসামিকেও কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

বৃহস্পতিবার মামলার পর রাতেই ভূমিমন্ত্রীর ছেলেসহ ১১জনকে আটক করে পুলিশ। এরপর শুক্রবার বেলা সাড়ে ১২টার দিকে তাদেরকে পাবনার মুখ্য বিচারিক হাকিম আবদুল বাসেত বুলু মিয়ার আদালতে হাজির করা হয়।

পুলিশ আদালতে জানায়, আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে পাবনা-৪ আসনের সংসদ সদস্য ও ভূমিমন্ত্রী শামসুর রহমান শরীফের সঙ্গে তার জামাতা ঈশ্বরদীর পৌর মেয়র আবুল কালাম আজাদের দীর্ঘদিন ধরে বিরোধ চলছিলো। গতকাল (বৃহস্পতিবার) বিকালে যুবলীগ নেতা রাজিব সরকারের নেতৃত্বে ১৫ থেকে ২০ জনের একটি দল ঈশ্বরদী পৌর এলাকার বিভিন্ন ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে হামলা চালায়।

এ সময় স্থানীয় ছাত্রলীগের সভাপতি জুবায়ের বিশ্বাসের বাড়িতেও ভাঙচুর চালানো হয় বলে জানিয়েছে পুলিশ। আর এর পেছনে ভূমিমন্ত্রীর ছেলে ও তার সমর্থকরা জড়িত বলে জানায় তারা।

এ সময় আসামিদের বাধা দিতে গেলে জুবায়েরের মা আহত হন বলেও আদালতে জানায় পুলিশ। এ ঘটনায় ২৪ জনকে আসামি করে মামলা করেন মুক্তিযোদ্ধা আজমল হক। মামলায় মন্ত্রীপুত্র তমালকে প্রধান ও যুবলীগ নেতা রাজিব সরকারকে দুই নম্বর আসামি করা হয়েছে।

মামলার বাদী মুক্তিযোদ্ধা আতিয়ার রহমান বলেন, অর্তকিতে বাড়িতে হামলা চালিয়ে ব্যাপক ভাঙচুর লুটপাট করে যাওয়ার সময় তার স্ত্রীকে লাথি মেরে গুরুতর আহত করেছে হামলাকারীরা। এই ঘটনায় প্রধান মন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন তিনি।

এ ব্যাপারে ঈশ্বরদী উপজেলা আওয়ামী লীগ নেতা ও পৌর মেয়র আবুল কালাম আজাদ বলেন, ‘প্রকাশ দিবালোকে এই সব সন্ত্রাসীরা যে তাণ্ডবলীলা চালিয়েছে তারে দৃষ্ঠান্ত মূল শাস্তি দাবি করছি আমি।’

জানতে চাইলে পাবনা সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আব্দুর রাজ্জাক বলেন, ‘শুক্রবার দুপুরে আসামিদের পাবনা চীফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আব্দুল বাছেদ বুলু মিয়ার আদালতে হাজির করলে আসামিদের কারাগারে পাঠায় আদালত।’

ঢাকাটাইমস/১৯মে/প্রতিনিধি/ডব্লিউবি

সংবাদটি শেয়ার করুন

বাংলাদেশ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন ফিচার বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত