সেই দুর্ধর্ষ মোস্তাফিজে কাঁপছে আয়ারল্যান্ড

ক্রীড়া প্রতিবেদক, ঢাকাটাইমস
| আপডেট : ১৯ মে ২০১৭, ১৮:৪২ | প্রকাশিত : ১৯ মে ২০১৭, ১৮:০৯

কেউ কেউ বলেন, নাহ, মোস্তাফিজের আগের সেই দিন নেই। তার কাটার চিনে ফেলেছে ক্রিকেট বিশ্ব। কে বলে হারিয়ে গেছেন কাটার বয়?  নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে গত ম্যাচেই অসাধারণ বোলিং করেছিলেন। জানিয়ে দিয়েছিলেন, নাহ, তিনি  মোটেও হারিয়ে যাননি।

আজ? আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে রীতিমত জ্বলে উঠেছেন তিনি। বল করতে এসে শুরুতেই দলকে এনে দেন উইকেট। এরপর থেকে নিয়মিত বিরতিতে উইকেট নিয়েই চলেছেন কাটার বয়। তাকে খেলতেই পারছে না আইরিশ ব্যাটসম্যানরা। একাই চার উইকেট নিয়ে গুঁড়িয়ে দিয়েছেন স্বাগতিকদের ব্যাটিং। এ প্রতিবেদন লেখার সময় আয়ারল্যান্ডের সংগ্রহ ৪২ ওভারে ৭ উইকেট হারিয়ে ১৬৫ রান। ২২ রানে ৪ উইকেট নিয়েছেন মোস্তাফিজ।

 অথচ এই মোস্তাফিজকে আইপিএল কতাটা অবজ্ঞাই না করা হয়েছিল। তার মতো বোলারকে ম্যাচের পর ম্যাচ বসিয়ে রাখা হলো ডাগ আউটে! ব্যাপারটা প্রতিভাবান বোলারটির জন্য একদিকে যেমন বিব্রতকর, তেমনটি লজ্জারও।

অনেকেই বলেছেন, এবারের আইপিএল একরকম অবিচারই করা হয়েছে মোস্তাফিজের উপর। ১২ মে প্রথম ম্যাচটা খেলতে নেমে ২.৪ ওভারে ৩৪ রান দিয়েছিলেন তিনি। এই অপরাধে তাকে এক মাস বসিয়ে রাখা হয়েছে ড্রেসিং রুমে।

এক ম্যাচে খারাপ করায় টানা একাদশের বাইরে রাখাটা অনেকেই মানতে পারেননি। একজন খেলোয়াড় তো সব ম্যাচ ভালো করবেন না। খারাপ দিন আসতেই পারে। মোস্তাফিজের প্রথম ম্যাচটা খারাপ গেছে, এটা যেতেই পারে। কিন্তু তাই বলে বিশ্বের অন্যতম সেরা বোলারকে ওভাবে উপেক্ষা করে ঠিক করেনি সানরাইজারার্স হায়দরাবাদ। যে কিনা ঠিক তার আগেই টি-টোয়েন্টি ম্যাচেই জ্বলে উঠেছিলেন বল হাতে। মাত্র ২১ রানে ৪ উইকেট নিয়ে শ্রীলঙ্কাকে একাই গুঁড়িয়ে দিয়েছিলেন এ পেসার।

হায়দরাবাদ কাজটা যে ঠিক করেনি সেই প্রমাণ এখনও দিচ্ছেন কাটার বয়। আগের ম্যাচে আয়ারল্যান্ড ‘এ’ দলের বিপক্ষে ১৭ রানে নিয়েছিলেন ২ উইকেট।

ত্রিদেশীয় সিরিজে আরো উজ্জ্বল তিনি। আগের সেই স্লোয়ার, কাটার। আগের ম্যাচে তাকে  খেলতেই পারেনি কিউই ব্যাটসম্যানরা। অন্য বোলাররা যেখানে প্রচুর রান দিয়েছেন, সেখানে মোস্তাফিজ ব্যতিক্রম। আজ তো  আরো বিপজ্জনক তিনি। তার বোলিং তোপে কাঁপছে  আইরিশ ব্যাটিং।

(ঢাকাটাইমস/১৯ মে/ডিএইচ)

সংবাদটি শেয়ার করুন

খেলাধুলা বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন ফিচার বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত