সাংবাদিক নাঈমের ওপর হামলায় ব্যবস্থা নেওয়ার আশ্বাস পুলিশের

নিজস্ব প্রতিবেদক,ঢাকাটাইমস
| আপডেট : ২০ মে ২০১৭, ২১:১৭ | প্রকাশিত : ২০ মে ২০১৭, ২০:৩২

মূলধারার অনলাইন নিউজপোর্টাল ঢাকাটাইমস টোয়েন্টিফোর ডটকমের ফরিদপুরের আলফাডাঙ্গা উপজেলা প্রতিনিধি মুজাহিদুল ইসলাম নাঈমের ওপর হামলার ঘটনায় এখনও পর্যন্ত কাউকে গ্রেপ্তার করতে পারেনি পুলিশ। তবে পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের পক্ষ থেকে বলা হচ্ছে তারা ঘটনা সম্পর্কে জেনে শুনে উপযুক্ত ব্যবস্থা নেবেন। 

গত ১৭ মে দুপুরে আলফাডাঙ্গার কলেজ রোডে সন্ত্রাসী হামলার শিকার হন সাংবাদিক মুজাহিদুল ইসলাম নাঈম। স্থানীয় সন্ত্রাসী তন্ময় উদ্দৌলা দিনে দুপুরে এ সাংবাদিকের ওপর সশস্ত্র হামলা চালায়। এতে নাঈম গুরুতর আহত হন। এ ঘটনার পরের দিন আলফাডাঙ্গা থানায় জেলা ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি তন্ময় উদ-দৌলাসহ চার থেকে পাঁচজনকে আসামি করে একটি মামলা করা হয়েছে।

ঘটনার পর আহত নাঈমকে বৃহস্পতিবার হাসপাতালে এসে দেখে গেছেন আলফাডাঙ্গা উপজেলা আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক নুরুল বাসার মিয়া, উপজেলা যুবলীগ সভাপতি আহসান উদ্দৌলা রানা, ফরিদপুর জেলা পরিষদের সদস্য ও কাঞ্চন মুন্সী ফাউন্ডেশনের পরিচালক শেখ শহীদুল ইসলাম শহীদ, আলফাডাঙ্গা সরকারি কলেজের উপাধ্যক্ষ সারেকুল হাসান নয়ন, উপজেলার গোপালপুর ইউপি চেয়ারম্যান প্রার্থী ও ফরিদপুর জেলা ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি ইনামুল হাসান, সহ-সভাপতি কামরুল ইসলাম, আলফাডাঙ্গা আদর্শ কলেজের উপাধ্যক্ষ কামাল আতাউর রহমান, উপজেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক সাইফুর রহমান সাইফার, আলফাডাঙ্গা সদর বাজার বণিক সমিতির সধারণ সম্পাদক মিয়া আব্দুল মান্নান আব্বাস, গোপালপুর ইউপি চেয়ারম্যান খান সাইফুল ইসলাম, উপজেলা ছাত্রলীগের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক তৌকির আহমেদ ডালিম, আলফাডাঙ্গা অনলাইন প্রেস ক্লাবের সভাপতি মোহাম্মাদ মুনেম সরকার, কার্যকরী সদস্য এসএম মামুন অর রশীদ, সৈকত মাহমুদ, হাসীজ শরীফ প্রমুখ।

এসময় তারা সাংবাদিক নাঈমের দ্রুত আরোগ্য কামনা করেন। একই সাথে তার ওপর হামলাকারী সন্ত্রাসী তন্ময়ের গ্রেপ্তার ও বিচার দাবি করেন।

এছাড়া নাঈমের ওপর হামলার ঘটনাকে দুঃখজনক আখ্যা দিয়ে সন্ত্রাসীদের বিচার দাবি করেছেন জাতীয় প্রেস ক্লাব, ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটিসহ সাংবাদিকদের বিভিন্ন জাতীয় সংগঠন। এসব সংগঠনের নেতারা বলেছেন, সাংবাদিকদের ওপর হামলার ব্যাপারে সরকারকে কঠোর হতে হবে। তারা অবিলম্বে মুজাহিদুল ইসলাম নাঈমের ওপর হামলাকারীর গ্রেপ্তারের দাবি জানান।

তবে হামলার দুইদিন পার হলেও এখনো পর্যন্ত কাউকে গ্রেপ্তার করতে পারেনি পুলিশ। এ ব্যাপারে ঢাকা রেঞ্জের অতিরিক্ত উপ-মহাপরিদর্শক আবু কালাম সিদ্দিকী ঢাকাটাইমসকে বলেন, ‘আমি এই ঘটনা সম্পর্কে কিছু জানি না। বিষয়টি জেনে ব্যবস্থা নেয়া হবে। ফরিদপুরের পুলিশ সুপারের সঙ্গেও এ ব্যাপারে কথা বলব বলেও জানান তিনি।

(ঢাকাটাইমস/২০মে/এএ/জেডএ)

সংবাদটি শেয়ার করুন

গণমাধ্যম বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন ফিচার বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত