বিশ্বে উবারের জনপ্রিয়তায় এগিয়ে ঢাকা

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ২৮ মে ২০১৭, ১১:২৮

যুক্তরাষ্ট্রের স্মার্টফোনের অ্যাপ ভিত্তিক ট্যাক্সি পরিষেবা উবার। বিশ্বের বিভিন্ন দেশে এই পরিষেবা চালু আছে। ঢাকায় উবার চালু হয় উবার গত বছরের ২২ নভেম্বর। দেখতে দেখতে  এই সেবার ১৮০ দিন অতিক্রম করেছে। বিশ্বের অন্যান্য দেশে উবারের জনপ্রিয়তার তুলনা এগিয়ে আছে ঢাকা। প্রতিষ্ঠানটি জানিয়েছে, এশিয়া প্যাসিফিক অঞ্চলে উবারের দ্রুত বর্ধনশীল শহরগুলোর মধ্যে অন্যতম ঢাকা। 

এ নিয়ে উবার ঢাকার মহাব্যবস্থাপক অর্পিত মুন্দ্রা বলেন, ‘বিশ্বের সবচেয়ে যানজটপূর্ণ শহরগুলোর মধ্যে ঢাকা অন্যতম। কর্মস্থলে যাতায়াতের জন্য বিশ্বস্ত, কার্যকর এবং সহজলভ্য আরো বিকল্প পরিবহন ব্যবস্থার চাহিদা রয়েছে। বিশেষ করে যেসব রুটে গণপরিবহন ব্যবস্থা চাহিদার তুলনায় অপ্রতুল। এসব জায়গায় রাইড-শেয়ারিং জরুরি। উবার -এর মতো স্মার্টফোন অ্যাপগুলো বর্তমানের অবকাঠামো, বিশেষ করে ব্যক্তিগত গাড়ির গঠনমূলক ব্যবহারে সহায়তা করতে পারে।

তিনি আরও বলেন, উবারের মাধ্যমে ঢাকার গণপরিবহনে কিছুটা স্থিরতা এসেছে। প্রয়োজন মাফিক ঘরের দোরগোড়ায় পৌঁছে যাচ্ছে উবার। এতে করে জীবনযাত্রা খানিকটা সহজ হয়েছে। 

উবারের পক্ষ থেকে জানানো হয়, কর্মস্থলে যাতায়াতের দৈনন্দিন মাধ্যম হিসেবে উবার ব্যবহার ছাড়াও ভোরবেলা এয়ারপোর্ট যেতে কিংবা গভীর রাতে বন্ধু বা পরিবারের সঙ্গে ডিনার শেষে বাসায় ফিরতে ঢাকাবাসী আস্থা রাখছেন উবার -এর ওপর। সর্বোপরি, যাতায়াতে স্বাধীনতা এবং সব সময় নিরাপত্তা ও নির্ভরযোগ্যতার আশ্বাস দিয়েছে উবার, তাই এটিকে স্বাগত জানিয়েছেন ঢাকার নারী যাত্রীরা। 

উবারের চাহিদা সকাল আট টা থেকে ১০ টা এবং সন্ধ্যা ৬টা থেকে রাত ১০ টা। এটি সবচেয়ে বেশি ব্যবহৃত হয়েছে এয়ারপোর্ট রোড, ব্র্যাক ইউনিভার্সিটি এবং গুলশান ২ এলাকায় যাতায়াতের জন্য। ঢাকায় একজন ড্রাইভার একাই ট্রিপ নিয়েছেন ১৬৭১টি। ঢাকায় একজন যাত্রী উবারে ট্রিপ নিয়েছেন ৩৯১টি।

উবারে যখন কেউ গাড়ি ডাকেন, তখন চালক অনুরোধে সাড়া দেয়া মাত্রই তার নাম, ছবি, গাড়ির লাইন্সেস প্লেট নম্বর এবং রেটিং যাত্রীর কাছে পৌঁছে যায়। এছাড়া, চালক যাত্রীর নাম ও রেটিং দেখতে পারেন। গাড়ি ডাকার পর ঠিকানা বুঝতে সমস্যা হলে চালক ও যাত্রী একে অপরের সঙ্গে অ্যাপের মাধ্যমেই যোগাযোগ করতে পারছেন। 

অ্যাপে গন্তব্য জানিয়ে দেবার পর যাত্রীরা সেখানে সরাসরি তাদের রুট ম্যাপ দেখতে পারেন। এতে সব সময় তারা নিজেদের অবস্থান সম্পর্কে জানতে পারেন এবং এটাও দেখতে পারেন যে তারা সঠিক পথে যাচ্ছেন কিনা। 

কোন পথে যাচ্ছেন, যাত্রায় আনুমানিক কতোটা সময় লাগবে বন্ধু বা পরিবারকে আশ্বস্ত করতে এসব তথ্য তাদের সহজেই জানাতে পারছেন যাত্রীরা। যখন কাউকে এসব তথ্য জানাতে চাইবেন, তখন তিনি একটি লিংক পাবেন যেখানে চালকের নাম ও ছবি, গাড়ি এবং ট্রিপ রুট একটি ম্যাপে সরাসরি দেখা যাবে যাত্রা শেষ না হওয়া পর্যন্ত। আর তিনি এই পুরো ব্যাপারটাই করতে পারছেন মোবাইল ফোনে উবার অ্যাপ ডাউনলোড না করে। 

উবার ব্যবহারে গতি আনতে,  প্রতিটি যাত্রা ‘শেয়ার-রাইড’ করতে, শহরে যাত্রীদের জন্য উবার -কে আরো নির্ভরযোগ্য ও সুবিধাজনক করে তুলতে এবং চালকদের জন্য সহজ করতে প্রযুক্তিগত উদ্ভাবনে বেশি জোর দিচ্ছে কোম্পানিটি। এ সংযোজনগুলোর জন্য যাত্রী ও চালকদের মতামত নেয়া হবে এবং সব মিলিয়ে উবার দেবে আরো দারুণ অভিজ্ঞতা।  

(ঢাকাটাইমস/২৮মে/এজেড)

সংবাদটি শেয়ার করুন

বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন ফিচার বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত