নারায়ণগঞ্জে কাউন্সিলরের ওপর হামলার অভিযোগ

নারায়ণগঞ্জ প্রতিনিধি, ঢাকাটাইমস
| আপডেট : ২৯ মে ২০১৭, ২০:৩১ | প্রকাশিত : ২৯ মে ২০১৭, ১৯:৫৪

নারায়ণগঞ্জ বন্দরে ড্রেন নির্মাণ কাজকে কেন্দ্র করে সিটি কর্পোরেশনের এক কাউন্সিলরের ওপর হামলার অভিযোগ উঠেছে। এসময় ওই মাকের্টের মালিকপক্ষের লোকজন ২২ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর সুলতান আহম্মেদের ওপর হামলা চালিয়ে তাকে ও তার লোকজনকে মারধর করে।

সোমবার দুপুরে শীতলক্ষ্যা নদীর পূর্বপাড় খেয়াঘাট এলাকায় চাঁদনী মার্কেটের সামনে এই ঘটনা ঘটে।

তবে পাল্টা অভিযোগে মার্কেট মালিক চাঁন মিয়া দাবি করেছেন, নোটিশ ছাড়াই তার মার্কেটের জায়গায় ড্রেন নির্মাণ করলে তিনি বাধা দিলে কাউন্সিলর ও তার লোকজন তার উপর অতর্কিত  হামলা চালিয়েছে।

প্রত্যক্ষদর্শী ও পুলিশ জানায়, বন্দর খেয়াঘাট এলাকায় আমিন আবাসিক এলাকায় ২২নং ওয়ার্ডে শীতলক্ষ্যা নদীর পাড় থেকে রূপালী আবাসিক এলাকা থেকে শুরু করে আমিনা আবাসিক এলাকা পর্যন্ত ড্রেনসহ রাস্তা নির্মাণ কাজ শুরু করে নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশন। সোমবার দুপুরে আমিন আবাসিক এলাকায় চাঁদনী মার্কেটের সামনের রাস্তায় আরসিসি ড্রেন নির্মাণ কাজের জন্য সিটি কর্পোরেশনের নিযুক্ত ঠিকাদারের লোকজন মাটি খনন কাজ শুরু করে। এসময় চাঁদনী মার্কেটের মালিক চাঁন মিয়ার নেতৃত্বে তার লোকজন ড্রেন নির্মাণ কাজে বাধা দেয় এবং শ্রমিকদের অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করে।

খবর পেয়ে কাউন্সিলর সুলতান আহম্মেদ ঘটনাস্থলে ছুটে যান এবং কাজে বাধা দেয়ার কারণ জানতে চান। এতে চাঁদনী মার্কেটের মালিক চাঁন মিয়া তার লোকজন নিয়ে লাঠিসোটা ও ধারালো অস্ত্র নিয়ে কাউন্সিলর সুলতান আহম্মেদ ও ঠিকাদারের শ্রমিকদের উপর হামলা চালায়।

এসময় কাউন্সিলর সুলতান আহম্মেদকে মারধর করে তার পড়নের পাঞ্জাবি ছিড়ে ফেলে দেয়। তবে মার্কেট মালিক চাঁন মিয়ার দাবি এই ঘটনায় কাউন্সিলর সুলতান আহম্মেদের লোকজন ক্ষুদ্ধ হয়ে চাঁন মিয়া ও তার লোকজনকে পাল্টা মারধর করেছে। দুপক্ষের দাবিতে ১০ জন আহত হয়েছে।

কাউন্সিলর সুলতান আহম্মেদ অভিযোগ করেন, সিটি কর্পোরেশনের নিজস্ব জায়গায় ড্রেন নির্মাণ কাজ করতে গেলে চাঁদনী মার্কেটের মালিক চাঁন মিয়ার নেতৃত্বে তার লোকজন লাঠিসোটা ও ধারালো অস্ত্র নিয়ে হামলা চালিয়েছে। আমাকে ও আমার লোকজনকে মারধর করা হয়েছে। হামলায় আমাদের ঠিকাদারের লোকজন বেশ কয়েকজন আহত হয়েছে।

তবে হামলার অভিযোগ অস্বীকার করে চাঁদনী মার্কেটের মালিক চাঁন মিয়া দাবি করেন, তার মার্কেটের জায়গা দখল করে কোন নোটিশ ছাড়াই ড্রেন নির্মাণ কাজ চালাচ্ছে সিটি কর্পোরেশন। তিনি দাবি করেন, বাধা দিলে কাউন্সিলর সুলতান আহম্মেদের লোকজন পাল্টা হামলা করে আমার লোকজনের উপর হামলা চালিয়েছে।

ঘটনাস্থলে যাওয়া বন্দর থানার উপ-পরিদর্শক মোখলেছুর রহমান জানান, হামলার খবর পেয়ে পুলিশ গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। পুলিশ উভয়পক্ষকে শান্তি শৃঙ্খলা বজায় রাখার জন্য নির্দেশ দিয়ে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

(ঢাকাটাইমস/২৯মে/প্রতিনিধি/এলএ)

সংবাদটি শেয়ার করুন

বাংলাদেশ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন ফিচার বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত