শীতলক্ষ্যা থেকে পাঁচটি এসএমজি উদ্ধার

নারায়ণগঞ্জ ও রূপগঞ্জ প্রতিনিধি, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ০৩ জুন ২০১৭, ২১:৪৬

নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জের ভোলাব ইউনিয়নের বাসুন্দা আতলাবো এলাকায় শীতলক্ষ্যা নদী থেকে পাচঁটি এসএমজি উদ্ধার করা করেছে পুলিশ। শনিবার বিকাল সাড়ে পাঁচটার দিকে ভোলাব ইউনিয়নের বাসুন্দা এলাকায় শীতলক্ষ্যা নদী থেকে একটি বস্তায় ভরানো পাঁচটি এসএমজি উদ্ধার করে ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরি দল।

নারায়ণগঞ্জের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোস্তাফিজুর রহমান জানান, রূপগঞ্জের পূর্বাচলের লেক থেকে বিপুল অস্ত্র ও গোলাবারুদ উদ্ধারের ঘটনায় গ্রেপ্তার আসামিদের দেয়া তথ্য অনুযায়ী আজ শীতলক্ষ্যা নদী থেকে পাঁচটি এসএমজি উদ্ধার করা হয়। এসব অস্ত্র একটি বস্তায় ভরানো ছিল।

এদিকে পূর্বাচল লেকে দ্বিতীয় দিনের মতো অস্ত্র ও গোলাবারুদ উদ্ধারে অভিযান চালানো হলেও কোনো কিছু উদ্ধার করা সম্ভব হয়নি। আগামীকাল লেকটি সেচে আবারো তল্লাশি চালাবে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী। এছাড়া গতকাল উদ্ধার করা হ্যান্ডগ্রেনেড ও টারবাইন সেল আজ নিষ্ক্রিয় করেছে বোম ডিসপোজাল ইউনিটের সদস্যরা।

নারায়ণগঞ্জ ফায়ার সার্ভিসের উপ-পরিচালক মামুনুর রশিদ জানান, আজ বিকালে উদ্ধার করা এসএমজি পাঁচটি নদীর পূর্বপাড়ের ৩০/৩৫ ফুট নদীর মাঝে ফেলে রাখা হয়েছিল। অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোস্তাফিজুর রহমান জানান, গ্রেপ্তার আসামিদের দেয়া তথ্যের ভিত্তিতেই অস্ত্রগুলি নদী থেকে উদ্ধার করা হয়েছে।

এদিকে রূপগঞ্জের পূর্বাচলের লেক থেকে অস্ত্র নিয়ে নিজেদের হেফাজতে ও বিভিন্ন এলাকায় লুকিয়ে রাখা অভিযোগে চারজনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। তারা হলেন রূপগঞ্জের বাগলা গ্রামের মোসলেম উদ্দিনের ছেলে শরীফুল, একই উপজেলার গোবিন্দপুর গ্রামের শহীদুল্লার ছেলে শাহীন ওরফে সানু, মাঝপাড়া গ্রামের মুজিবুর রহমানের ছেলে রাসেল এবং গুতিয়াবো এলাকার নাঈমের ছেলে শান্ত।

নারায়ণগঞ্জের পুলিশ সুপার মঈনুল হক জানান, পূর্বাচল লেকে অস্ত্র ও গোলাবারুদ উদ্ধার অভিযান দ্বিতীয় দিনের মতো শেষ হয়েছে। আগামীকাল লেকের পানি সেচে আরও অস্ত্রগুলি আছে কি না তা তল্লাশি করে দেখা হবে। তিনি বলেন, শুক্রবার লেক থেকে উদ্ধার করা ৪২টি হ্যান্ডগ্রেনেড ও ৫৮টি টারবাইন সেল নিষ্ক্রিয় করেছে ঢাকার বোম ডিসপোজাল ইউনিট।

ঢাকাটাইমস/৩জুন/প্রতিনিধি/এমআর

সংবাদটি শেয়ার করুন

বাংলাদেশ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত