নরসিংদীতে ব্যবসায়ী নেতার ৫ লাখ টাকা ছিনতাই

নরসিংদী প্রতিনিধি, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ০৪ জুন ২০১৭, ১৮:২৪
প্রতীকী ছবি

প্রকাশ্য দিন দুপুরে সশস্ত্র পুলিশের উপস্থিতিতে ব্যাংকের সামনে দুর্ধর্ষ ছিনতাই হয়েছে। ছিনতাইকারীরা নরসিংদী চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাস্ট্রির ভাইস-প্রেসিডেন্ট মো. শফিকুল ইসলাম শেখ তুলুর ৫ লাখ ১০ হাজার টাকা ছিনিয়ে নিয়ে গেছে।

রবিবার সকালে সোনালী ব্যাংক, নরসিংদী ট্রেজারী শাখার প্রধান ফটকের ভেতরে এই ছিনতাইয়ের ঘটনা ঘটেছে।

নরসিংদী মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা গোলাম মোস্তফা জানান, নরসিংদী চেম্বার অব কমার্সের এন্ড ইন্ডাস্ট্রির ভাইস প্রেসিডেন্ট মো. শফিকুল ইসলাম শেখ তুলু সকাল পৌনে ১০টার দিকে তার মোটরসাইকেল নিয়ে সোনালী ব্যাংকে টাকা উত্তোলন করতে যান। মূল ফটকের ভেতরে মোটরসাইকেলটি তালাবদ্ধ করে তিনি ব্যাংকের ভেতরে প্রবেশ করেন। সেখানে কাউন্টার থেকে ৫ লাখ ১০ হাজার টাকা তুলে একটি ব্যাগে ভর্তি করে সোয়া ১০টায় ব্যাংক থেকে বেরিয়ে আসেন। তিনি টাকা ভর্তি ব্যাগটি মোটরসাইকেলের সামনে ঝুলিয়ে রেখে পেছনের চাকার তালা খুলতে যান। এসময় ৪ জন ছিনতাইকারী তার সামনে কতগুলো টাকা ফেলে দিয়ে বলতে থাকে এই টাকাগুলো কার? শেখ তুলু তখন বিভ্রান্ত হয়ে নিচে পতিত টাকাগুলোর দিকে তাকানোর সাথে সাথেই ছিনতাইকারীরা মোটরসাইকেলে  ঝুলানো টাকার ব্যাগটি ছিনিয়ে নেয়। পরে মুহূর্তের মধ্যে  ছিনতাইকৃত টাকার ব্যাগটি নিয়ে একটি ইজিবাইকে চড়ে নিরাপদে চলে  যায়। এ সময় ব্যাংক প্রেমিসে ৩ জন অস্ত্রধারী পুলিশের মধ্যে ২ জন পুলিশ বক্সে মোবাইল ফোন নিয়ে ব্যস্ত ছিল এবং ভ্রাম্যমাণ পুলিশটি তখন ব্যাংক ভবনের ভিতরে অবস্থান করছিল।

ঘটনাস্থলে উপস্থিত লোকজন জানিয়েছেন, পুলিশ সজাগ থাকলে ছিনতাইকারীদেরকে তাৎক্ষণিক আটক করা সম্ভব হতো। ছিনতাইকারীদের বহনের জন্য কোন দ্রুতযান ছিল না। তারা ছিনতাই করে টাকা নিয়ে একটি ইজিবাইকে চড়ে নিরাপদে স্থান ত্যাগ করে।

এব্যাপারে ব্যাংক ম্যানেজার মো. নুরুল আবেদীনের সাথে  যোগাযোগ করলে তিনি জানান, ট্রেজারি ব্রাঞ্চ হিসেবে ৩ জন করে পুলিশ ৮ ঘণ্টা করে ব্যাংকে নিরাপত্তার দায়িত্ব পালন করে। এর মধ্যে ২ জন দুই গেইটে এবং ১ জন ভ্রাম্যমাণ দায়িত্ব পালন করে। ঘটনার সময় পুলিশ ছিল।

তবে তারা মোবাইল ফোন নিয়ে ব্যস্ত ছিল বলে জানা গেছে। ঘটনার পর পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন।

নরসিংদী সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার ব্যাংকের সিসি ফুটেজ জব্দ করেছেন। ফুটেজে ছিনতাইয়ের ঘটনা রেকর্ড হয়েছে। ছিনতাইকারীদের চেহারা স্পষ্টভাবেই ধরা পড়েছে বলে জানিয়েছেন ব্যাংক ম্যানেজার।

সদর সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার শাহরিয়ার আলম বলেন, ছিনতাইকারীদের অবয়বগুলো ততটা স্পষ্ট নয়, তবে ফুটেজগুলো পরীক্ষা-নিরীক্ষা ও তদন্ত চলছে।

এ ব্যাপারে চেম্বার নেতা শেখ তুলু বাদী হয়ে নরসিংদী সদর মডেল থানায় একটি মামলা করেছেন।

(ঢাকাটাইমস/৪জুন/প্রতিনিধি/এলএ)

সংবাদটি শেয়ার করুন

বাংলাদেশ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন ফিচার বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত