প্রতিকূল আবহাওয়ায়ও ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় কাঁঠালের আশানুরূপ ফলন

ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধি, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ০৬ জুন ২০১৭, ১৬:১১

প্রতিকূল আবহাওয়ায়ও ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় কাঁঠালের আশানুরূপ ফলন হয়েছে। বছরের শুরুতেই ভারী বৃষ্টিপাত, ঝড়োহাওয়ায় কাঁঠাল গাছের ব্যাপক ক্ষতি হয়। কোনো কোনো গাছ ফেটে গেছে, ছিঁড়ে গেছে। কোনোটা মাটি থেকে উপড়ে পড়েছে। তারপরও জেলার কাঁঠালের ভালো ফলন হয়েছে।

কৃষি বিভাগ বলছে, উৎপাদনের এই ধারাবাহিকতা ধরে রাখতে পারলে কৃষক কাঁঠাল চাষে উৎসাহিত হবে।

কাঁঠাল চাষিরা বলছেন, প্রতিটি কাঁঠাল তারা ৬০/১০০ টাকায় বিক্রি করতে পারছেন। এতে তারা লাভবান।

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় কাঁঠালের আবাদ বৃদ্ধি পাচ্ছে। অন্যান্য বছরের তুলনায় কাঁঠালের আবাদ ও উৎপাদন দুটিই বেশি হবে বলে আশা করছে কৃষি বিভাগ। চলতি বছর জেলায় এক হাজার ৩৫০ হেক্টর জমিতে কাঁঠালের আবাদ হয়েছে। প্রতিটি গাছেই ধরেছে বিপুল পরিমাণ কাঁঠাল।

কৃষি বিভাগের হিসাবে এবার জেলায় ১৩ হাজার ৯৫০ মেট্রিকটন কাঁঠাল উৎপাদন হবে। কাঁঠালের এ উৎপাদেন চাষিরা বেজায় খুশী। দামও ক্রেতাদের নাগালের মধ্যে। কৃষক এতে আর্থিকভাবে লাভবান হবে। পাশাপাশি মিটবে জেলার পুষ্টির চাহিদা।

জেলা প্রশিক্ষণ অফিসার সাইফুল আলম জানিয়েছেন, ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার চলতি বছর এক হাজার ৩৫০ হেক্টর জমিতে কাঁঠালের আবাদ হয়েছে। ১৩ হাজার ৯৫০ মেট্রিক টন কাঁঠাল উৎপাদন হবে বলে আশা করছি। কাঁঠালের উৎপাদন ও আবাদ অনেক ভালো। কৃষক আনন্দিত ও খুশি।

কাঁঠাল চাষি হুমায়ুন কবীর জানিয়েছেন, মেঘ বৃষ্টি বেশি হওয়ায় কাঁঠালের ক্ষতি হয়েছে। মেঘ বৃষ্টির কারণে কাঁঠাল গাছ ফেটে যাওয়ায় বড় হয়নি। তারপরও ভালো ফলন হয়েছে। একটি কাঁঠালের মূল্য ৬০ টাকা হলে ও ১০০ টাকায় বিক্রি করতে পারব। এতে কয়েক লাখ টাকা লাভ হবে বলে আশা করছি।

(ঢাকাটাইমস/০৬জুন/প্রতিনিধি/জেবি)

সংবাদটি শেয়ার করুন

সারাদেশ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন ফিচার বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত