বগুড়া-৩ আসনে প্রচারে আ.লীগের চার-বিএনপির তিন জন

প্রতীক ওমর, বগুড়া থেকে
 | প্রকাশিত : ০৯ জুন ২০১৭, ০৯:০৫

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের আর বাকি দেড় বছর। ইতোমধ্যে জমে উঠেছে নির্বাচনী এলাকায় বিভিন্ন প্রার্থীদের পরিচিত হওয়ার পালা।

সম্ভাব্য প্রার্থীদের পদচারণে আগামী একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের আবহ আঁচ করতে পারছে জনসাধারণ।
দুই বড় রাজনৈতিক দলের একাধিক নেতা এলাকায় সময় দিতে শুরু করেছেন। বিভিন্ন সামাজিক কাজ, দলীয় সভা সমাবেশ হাট বাজারে সাধারণ মানুষের সাথে কুশল বিনিময় করছেন তারা। বিভিন্ন দিবস উপলক্ষে ব্যানার ফেস্টুন পোস্টারে ছেয়ে গেছে এলাকার বিভিন্ন জনসমাগমস্থল। এতে নির্বাচনী হাওয়া অনুভব করছে ভোটাররা।

দলের কেন্দ্রীয় নেতাদের চোখে পড়ার জন্য মাঠে নামার দৃশ্য গণমাধ্যম ও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রচারের মাধ্যমে সবাইকে জানানোর চেষ্টা চালাচ্ছেন তারা। নিজের মনোনয়ন নিশ্চিত করতে ইতোমধ্যে মাঠ গোছাতে শুরু করেছেন সম্ভাব্য প্রার্থীরা।

বগুড়া জেলার ১২টি উপজেলা ৭টি সংসদীয় আসনে বিভক্ত। এসব আসনে আওয়ামী লীগ, বিএনপি, এরশাদের জাতীয় পার্টি, জাদস (ইনু) এর সম্ভাব্য প্রার্থীদের তৎপরতা চোখে পড়ার মতো।

বিগত দশম সংসদ নির্বাচনে বিএনপি, জামায়াতসহ ২০ দলীয় জোট ও সমমনা দলগুলো নির্বাচনে অংশ না নেয়ায় এখানে আওয়ামী লীগ, জাতীয় পার্টি ও জাসদ নির্বাচনে অংশ নেয়। ওই নির্বাচনে সাতটি আসনের মধ্যে পাঁচটিতে বিনাপ্রতিদ্বন্দি¦তায় নির্বাচিত হন আওয়ামী লীগের দুই জন, জাতীয় পার্টিও চার জন ও জাসদের (ইনু) একজন।

বগুড়ায় জামায়াতের উল্লেখযোগ্য শক্তি শাকলেন শীর্ষ নেতাদের ফাঁসি কার্যকর ও নির্বাচন কমিশনে নিবন্ধন বাতিল হওয়ার পর দলটির কোনো তৎপরতা নির্বাচনী চোখে পড়ছে না।

আদমদীঘি-দুপচাঁচিয়ায় নির্বাচনে আগ্রহী যারা
বগুড়া -৩ আসন আদমদীঘি ও দুপচাঁচিয়া উপজেলা নিয়ে গঠিত। পশ্চিম বগুড়া নামে পরিচিত এ আসনের মধ্যে  রয়েছে শান্তাহার রেলওয়ে জংশন। এর পাশেই রয়েছে নওগাঁ জেলা শহর। এ আসনে আওয়ামী লীগের সম্ভাব্য প্রার্থী বিশিষ্ট জনশক্তি রপ্তানিকারক ও আদমদীঘি উপজেলা সভাপতি আনছার আলী মৃধা, জেলা সহসভাপতি সোলায়মান আলী মাস্টার, সিরাজুল ইসলাম খান রাজু, মিজানুর রহমান খান সেলিম।

বিএনপির সম্ভাব্য প্রার্থী সাবেক সংসদ সদস্য ও রাজশাহী বিভাগীয় সহসাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুল মোমিন তালুকদার খোকা, তার ছোট ভাই ও আদমদীঘি উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আব্দুল মুহিত তালুকদার, ব্যবসায়ী সুলতান মাহমুদ চৌধুরী ওরাফি আহমেদ আচ্চু।
 
জাতীয় পার্টির বর্তমান সংসদ সদস্য নূরুল ইসলাম তালুকদারও সম্ভাব্য প্রার্থী বলে জানিয়েছেন তার অনুসারীরা।

আদমদীঘি উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আনছার আলী মৃধা ঢাকাটাইমসকে বলেন, এবার তিনি দলের হয়ে নির্বাচনে অংশ নেবেন। এজন্য ইতোমধ্যেই তিনি তৃণমূল কর্মীদের সংঘটিত করছেন। তিনি কেন্দ্রের সমর্থন প্রাপ্তিতে শতভাগ আশাবাদী।

আদমদীঘি উপজেলা বিএনপির সভাপতি ও উপজেলা চেয়ারম্যান আব্দুল মুহিত তালুকদার দাবি করেছেন এবার তাকেই এই আসনে মনোনয়ন দেবে বিএনপি। এমন ইঙ্গিত তিনি কেন্দ্র থেকে পেয়েছেন বলে ঢাকাটাইমসের কাছে দাবি করেছেন।

(ঢাকাটাইমস/০৮জুন/প্রতিনিধি/এমএম)

সংবাদটি শেয়ার করুন

রাজনীতি বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন ফিচার বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত