আসামি ধরার সময় পুলিশের গুলিতে ‘নির্দোষ’ ব্যক্তি নিহত

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ০৯ জুন ২০১৭, ১৫:০৬

সাভারের বিরুলিয়ায় আসামি ধরতে এসে পুলিশের গুলিতে এক ‘নির্দোষ’ ব্যক্তি নিহত হয়েছেন। নিহতের নাম ইসমাইল হোসেন। তার মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।

পুলিশ বলছে, আসামি ধরতে গেলে নিহত ইসমাইলসহ অন্যরা পুলিশের উপর হামলা চালায়। এসময় উভয়পক্ষে গোলাগুলি হলে ইসমাইল গুলিবিদ্ধ হয়। তবে নিহতের পরিবার বলছে, ইসমাইল নির্দোষ। এলাকায় পুলিশ আসার খবর শুনে তিনি তা দেখতে গিয়েছিলেন।

বৃহস্পতিবার গভীর রাতে  বিরুলিয়ার শ্যামপুর এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

নিহত ইসমাইল হোসেন বিরুলিয়া এলাকার শহিদুল ইসলামের ছেলে। তিনি পেশায় এক জন ফুল ব্যবসায়ী।

এ বিষয়ে নিহতের বড় ভাই আলাল হোসেন জানান, ভবানীপুর এলাকার সন্ত্রাসী আল-আমিনকে গ্রেপ্তার করতে রাতে তার বাড়িতে অভিযানে যায় বিরুলিয়া পুলিশ ফাড়ির ইনচার্জ উপ-পরিদর্শক তরিকুল ইসলাম। এসময় উপ-পরিদর্শক তরিকুল ও আসামি আল-আমিন তর্কে লিপ্ত হয়। বিষয়টি দেখার জন্য অন্যান্য প্রতিবেশীর মত ফুল ব্যবসায়ী ইসমাইল হোসেনও ঘর থেকে বের হন। এসময় হঠাৎ করেই উপ-পরিদর্শক তরিকুল ইসলামের বন্দুক থেকে একটি গুলি ইসমাইলের ঘাড়ে বিদ্ধ হয়। এতে ইসমাইল গুরুতর আহত হলে তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়া হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান ইসমাইল হোসেন।

সাভার মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা এসএম কামরুজ্জামান মিয়া জানায়,  বিরুলিয়ায় আল-আমিন নামে এক সন্ত্রাসীকে  গ্রেপ্তার করতে গেলে তার সহযোগী ইসমাইলসহ বেশ কয়েকজন পুলিশের ওপর হামলা চালায়। এসময় উভয় পক্ষের গোগুলিতে সন্ত্রাসীদের ছোড়া গুলিতে ইসমাইল গুলিবিদ্ধ হয়। তাকে উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করে।

ওসি বলেন, আল-আলামিন ঘটনাস্থল থেকে পালিয়ে যায়। তবে পুলিশ আল-আমিনের শশুর ইউপি মেম্বার অজল হকসহ চার জনকে আটক করেছে।

(ঢাকাটাইমস/৯জুন/প্রতিনিধি/জেডএ)

সংবাদটি শেয়ার করুন

বাংলাদেশ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন ফিচার বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত