গাজীপুরে মহাসড়কে পানি, থেমে থেমে চলছে যানবাহন

গাজীপুর প্রতিনিধি, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ১২ জুন ২০১৭, ১৭:৩০

টানা বৃষ্টিতে গাজীপুরের ঢাকা-ময়মনসিংহ ও ঢাকা-টাঙ্গাইল  মহাসড়কের বিভিন্ন অংশে পানি জমে গেছে। এতে সকাল থেকেই থেমে থেমে যানজটের সৃষ্টি হয়েছে। মানুষ চলাচলেও পোহাতে হচ্ছে দুর্ভোগ।

এছাড়া ময়লা আবর্জনা ও ড্রেনের দুষিত পানি ঢুকে গেছে মহাসড়কের পাশের অনেক বাসা-বাড়িতে। এতে নাকাল হচ্ছেন নগরবাসী। সড়ক-মহাসড়কে পানি জমে থাকায় হাঁটু পানির ভোগান্তি ঠেলে শিল্প-কারখানার হাজার হাজার শ্রমিকের সঙ্গে ভোগান্তিতে পড়েছে স্কুল-কলেজের শিক্ষার্থীরাও।

সরেজমিনে দেখা গেছে, চার লেনের উন্নীতকরণের কাজ আর বৃষ্টির কারণে ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়কে সকাল থেকেই যানজট দেখা দিয়েছে। এতে থেমে থেমে ধীরগতিতে চলছে সব যান। চার লেইনের কাজ চলায় মূল সড়কের পাশে খোঁড়াখুঁড়ি চলছে। বৃষ্টির পানি এসব গর্তে জমায় গাড়িগুলো স্বাভাবিক গতিতে চলতে পারছে না। ফলে গাজীপুরের কালিয়াকৈর উপজেলার বংশাই ব্রিজ থেকে ওই মহাসড়কের নাওজোড় পর্যন্ত যানজটের সৃষ্টি হয়। ফলে ঘণ্টার পর ঘণ্টা যানজটে আটকে থেকে নাকাল হন যাত্রীরা।

এদিকে, প্রবল বর্ষণের কারণে ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কের গাজীপুরের চান্দনা চৌরাস্তা, ভোগড়া বাইপাসসহ টঙ্গীর বিভিন্ন এলাকায় হাঁটু পানি জমে গেছে। একই অবস্থা ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়কের কোনাবাড়িসহ বিভিন্ন এলাকায়। পানি জমে থাকায় এবং খানাখন্দের কারণে মহাসড়কে যানবাহনগুলো চলছে ধীরগতিতে। এতে কালিয়াকৈরের চন্দ্রা মোড় থেকে নাওজোর পর্যন্ত এবং টঙ্গী থেকে গাজীপুরের ভোগড়া বাইপাস সড়ক পর্যন্ত থেমে থেমে যানবাহন চলাচল করছে। ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়কের চার লেন নির্মাণ এবং এই প্রকল্পে কোনাবাড়ি শিল্প এলাকায় ফ্লাইওভার নির্মাণ কাজ চলমান থাকায় মহাসড়কের কোনাবাড়ি অংশে প্রায় এক কিলোমিটারজুড়ে কাদা-পানিতে একাকার হয়ে গেছে। ওই অংশে যানবাহন ফেঁসে যাচ্ছে যখন তখন। এতে যানজটের মাত্রা আরও বেড়ে যাচ্ছে। যদিও হাইওয়ে পুলিশ যানজট নিরসনে কাজ করে যাচ্ছে। পানি জমে থাকায় মহাসড়কের পাশের অনেক দোকানপাট বন্ধ রয়েছে।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, নগরের জয়দেবপুরের ভোগড়া, আউট পাড়া, নলজানি, নাওজোর, বাসন সড়ক, মালেকেরবাড়ি, চান্দনা, দিঘীরচালাসহ বিভিন্ন ঘনবসতি এলাকার অনেক বাসা-বাড়ির মানুষ পানিবন্দি হয়ে পড়েছেন টানা বৃষ্টির কারণে। তাদের বাসাবাড়ির সামনের স্থানীয় সড়কগুলো ডুবে আছে পানির নিচে। ড্রেনেজ ব্যবস্থা সঠিক না থাকায় অনেকের বাসা-বাড়ির ভেতরেও পানি ঢুকে গেছে। বাসা-বাড়ি, কলকারখানার বর্জ্য, ভোগড়ার কয়েকটি পাইকারি বাজারের ময়লা-আবর্জনা পানির স্রোত ডেনে যেতে না পেরে ঢুকে গেছে বাসা-বাড়িতে। এ নিয়ে চরম দুর্ভোগে পড়েছেন নগরবাসী।

(ঢাকাটাইমস/১২জুন/প্রতিনিধি/জেবি)

সংবাদটি শেয়ার করুন

বাংলাদেশ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন ফিচার বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত