সার্চ লাইট নেই, ৬০০ যাত্রী নিয়ে দুর্ঘটনায় লঞ্চ

বরিশাল ব্যুরো, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ১৩ জুন ২০১৭, ২৩:১৪

কীর্তনখোলা নদীতে বরিশাল থেকে ঢাকাগামী যাত্রীবাহী এমভি তাসরিফ-১ লঞ্চের সাথে একটি তেলবাহী ট্যাংকারের সংঘর্ষ হয়েছে। এ ঘটনায় লঞ্চের ১০-১২ জন যাত্রী আহত হয়েছেন বলে জানা গেছে। 

মঙ্গলবার রাত পৌনে ১০টায় কীর্তনখোলা নদীর চরবাড়িয়া পয়েন্টে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

সংঘর্ষের সময় যাত্রীদের মাঝে আতঙ্ক ছরিয়ে পড়লেও উভয় নৌযানের তেমন কোনো ক্ষতি হয়নি ।

তাসরিফ ১ লঞ্চের যাত্রী বরিশাল সরকারি ব্রজমোহন কলেজের ইংরেজী বিভাগের সহকারী অধ্যাপক মুনমুন আহম্মেদ জানান- লঞ্চটি নৌ বন্দর ত্যাগ করার পর থেকেই লঞ্চের সার্চ লাইট অচল ছিল। প্রথম থেকেই লঞ্চ কর্তৃপক্ষকে বিষয়টি অবহিত করা হলেও তারা বিষয়টি আমলে না নিয়ে লঞ্চটি বরিশাল ঘাট থেকে ছেড়ে যায়। এর কিছুক্ষণ পরেই চরবাড়িয়া পয়েন্টে ট্যাংকারের সাথে সংঘর্ষ হলে আমিসহ বেশ কয়েকন লঞ্চের যাত্রী আহত হই। 

সর্বশেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত যাত্রীদের অনুরোধে লঞ্চটি চরমোনাই লঞ্চ ঘাটে নোঙর করে আছে।  

বরিশাল নৌ-ফাঁড়ি পুলিশের ইনচার্জ উপ পরিদর্শক শফিকুল ইসলাম যাত্রীদের বরাত দিয়ে জানান- লঞ্চটি প্রায় ৬০০ যাত্রী নিয়ে বরিশাল নদী বন্দর থেকে ঢাকার উদ্দেশ্যে যাচ্ছিল। কীর্তনখোলা নদীর চরবাড়িয়া পয়েন্টে পৌঁছালে সেখানে একটি নৌযানের সাথে লঞ্চটির সংঘর্ষ হয়। এতে তেমন কোনো ক্ষয়ক্ষতি হয়নি।

বরিশাল বিআইডব্লিউটিএ’র নৌ-নিরাপত্তা ও ট্রাফিক ব্যবস্থাপনা বিভাগের উপ-পরিচালক আজমল হুদা মিঠু সরকার জানান- ওই লঞ্চে তাদের একজন কর্মকর্তা রয়েছেন। তিনি জানিয়েছে একটি তেলের ট্যাংকার লঞ্চটিকে ধাক্কা দিয়ে দ্রুত চলে যায়। তবে এতে লঞ্চের বা যাত্রীদের কোনো ক্ষতি সাধন হয়নি।

এমভি তাসরিফ ১ লঞ্চটি বরিশাল-ঢাকা রুটে কালাম খান-১ লঞ্চের বিপরীতে সম্প্রতি চলাচল করছে।

(ঢাকাটাইমস/১৩জুন/ ব্যুরো প্রধান/ ইএস)

সংবাদটি শেয়ার করুন

বাংলাদেশ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত