ব্যাংকে আবগারি শুল্ক নিয়ে মুহিতের নরম সুর

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকাটাইমস
| আপডেট : ১৪ জুন ২০১৭, ১৮:১০ | প্রকাশিত : ১৪ জুন ২০১৭, ১৬:২২

লাখ টাকার ব্যাংক হিসাবে আবগারি শুল্ক বৃদ্ধির প্রস্তাব থেকে সরে আসার ইঙ্গিত দিয়েছেন অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত। তিনি বলেন, যেহেতু বিষয়টি নিয়ে সমালোচনা হচ্ছে, তাই এটা কমানো হতে পারে।

বুধবার সচিবালয়ে সরকারি ক্রয় সংক্রান্ত মন্ত্রিসভার বৈঠকের পর অর্থমন্ত্রী সাংবাদিকদের এমন কথা বলেন।

গত ১ জুন জাতীয় সংসদে ২০১৭-১৮ অর্থবছরের যে বাজেট উপস্থাপন করেছেন অর্থমন্ত্রী তাতে লাখ টাকার ওপরে ব্যাংক হিসাবে আবগারি শুল্ক বাড়ানোর কথা বলা আছে। এক লাখ টাকার কম ব্যাংক হিসাব থেকে তিনি শুল্ক তুলে দেয়ার প্রস্তাব করলেও এক লাখ ঊর্ধ্ব থেকে ১০ লাখ টাকা পর্যন্ত শুল্ক ৫০০ থেকে ৮০০ টাকা করার প্রস্তাব করেন। একইভাবে এর ঊর্ধ্বসীমার বিভিন্ন ব্যাংক হিসাবেও শুল্ক আগের চেয়ে বাড়ানোর কথা বলেন তিনি।

বাজেট প্রস্তাবে থাকা যেসব বিষয় নিয়ে আলোচনা হচ্ছে তার মধ্যে প্রথমেই থাকছে আবগারি শুল্কের বিষয়টি। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম এবং গণমাধ্যমে সাধারণ মানুষ থেকে শুরু করে ব্যাংকার, অর্থনীতিবিদরাও এর সমালোচনা করছেন।

আর জাতীয় সংসদে সরকার দলীয় একাধিক সংসদ সদস্যও এই প্রস্তাব থেকে সরে আসনে অনুরোধ করেছেন অর্থমন্ত্রীকে। 

তবে এই সমালোচনা ও দাবির মুখেও অর্থমন্ত্রী গত ৮ জুন সিলেটে সাংবাদিকদেরকে বলেছেন, তিনি এই প্রস্তাব সংশোধনের পক্ষে নন। মন্ত্রী বলেন, ‘আবগারি শুল্ক প্রত্যাহারে আমার কোনো পরিকল্পনা নেই। তবু এ ব্যাপারে সংসদে আলোচনা হবে। সংসদই এ ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নেবে।’

তবে এক সপ্তাহের মধ্যেই সেই অবস্থান থেকে অনেকটাই সরে এসেছেন অর্থমন্ত্রী। সচিবালয়ে আজ তিনি বলেন, ‘প্রস্তাবিত বাজেটে আবগারি শুল্কহার বাড়ানো হয়েছে। এরপর থেকেই আপনারা চিৎকার শুরু করেছেন। ব্যাংক হিসাবে আবগারি শুল্ক নতুন কোনো বিষয় নয়।এতোদিন আপনারা এই শুল্ক দিয়ে এসেছেন। আমরা কেবল এর হার কিছুটা বাড়িয়েছি। বিষয়টি নিয়ে যেহেতু এত সমালোচনা তাই বিষয়টি সংসদে আলোচনা করে একটা সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে। হয়তো কমানো হবে।’

ঢাকাটাইমস/১৪জুন/জেআর/ডব্লিউবি

সংবাদটি শেয়ার করুন

অর্থনীতি বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন ফিচার বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত