ফল মেলায় ৯০ প্রজাতির আম

আফরোজ ইসলাম, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ১৮ জুন ২০১৭, ১৭:৫৩

আমকে ফলের রাজা বলা হয়। সেই রাজাদের আছে রকমভেদ। নানা জাতের আম হয় এই দেশে। অনেকেই আছেন অল্প কয়েকটি জাতের আম চেনেন। কিছু কিছু জাত আছে দুঃস্প্রাপ্য। ফলের এই রাজার ৯০ রকমের জাতের দেখা মেললো ফল মেলায়। মেলাটি চলছে রাজধানীর খামারবাড়ির আ. ক. ম. গিয়াস উদ্দিন মিলকী অডিটরিয়াম। ১৬ জুন শুক্রবার শুরু হওয়া এই মেলার শেষ দিন আজ।

কৃষি মন্ত্রণালয়ের আয়োজনে এই ফল মেলায় প্রদর্শন করা হয়েছে দেশের প্রচলিত ও অপ্রচলিত প্রায় ১৩০ ধরনের ফল। একইসাথে মেলায় আগতরা চিনতে পেরেছেন বিভিন্ন ধরনের বিলুপ্তপ্রায় ফলের গাছ সম্পর্কে।

মেলায় আগত দর্শকদের আকর্ষণের কেন্দ্রেবিন্দু ছিল আফ্রিকান ভারতীয় বংশোদ্ভূত ‘ব্রুনাই কিং’ নামের এক প্রজাতির আম। লম্বা গড়নের এ আম ওজনে প্রায় পাচ কেজি পর্যন্ত হয়। আম প্রদর্শনীর দায়িত্বে থাকা ঢাকা রিজিওনের মাস্টার ট্রেইনার হর্টিকালচারিস্ট জহিরুল হক ঢাকাটাইমসকে জানান, ব্রুনাই কিং আফ্রিকা অঞ্চলের ফল হলেও তা বাংলাদেশের সকল অঞ্চলে চাষযোগ্য। বর্তমানে বগুড়া হর্টিকালচার সেন্টারে এ আম পরিক্ষামূলকভাবে চাষ করা হয়েছে। তবে কেউ এ গাছের চারা কিনতে চাইলে তা বগুড়া হর্টিকালচার সেন্টার থেকে কিনতে পারবে।

এছাড়া উন্নত প্রজাতির আম পলিমার, বারি ৪ ও ৭, ব্যানান, কিউ জাই, মলদাহ, সৌদি রঙিন ইত্যাদিও কেড়েছে দর্শনার্থীদের নজর। বিদেশি ও উন্নত প্রজাতির আমের সাথে সাথে রয়েছে বিভিন্ন ধরনের দেশি প্রচলিত প্রজাতির আম।

এছাড়া মেলায় ছিল ফরমালিনমুক্ত আমের বিক্রয়কেন্দ্র। এসব বিক্রয়কেন্দ্র থেকে দর্শনার্থীরা সংগ্রহ করতে পারবেন পছন্দনুযায়ী বিভিন্ন প্রজাতির আম।

মিরপুর ১৪ থেকে আসা দর্শনার্থী রফিকুল ইসলাম বলেন, ফল সম্পর্কে আমাদের জ্ঞান খুবই কম। ফল মেলায় দেশের প্রায় সকল ধরনের ফল রয়েছে। ফলে এখান থেকে ফল সম্পর্কে ধারণা নেওয়া যায়। তাই তিনি সন্তানদের নিয়ে এই মেলায় এসেছি। এখান থেকে ফরমালিনমুক্ত আম কিনলাম।

দর্শনার্থীদের পছন্দের প্রজাতির আম ও আম গাছে নিয়ে তথ্য দেয়ার জন্য মেলায় রয়েছে তথ্য সেবা কেন্দ্র। যেখান থেকে জানা যাচ্ছে কোন আম প্রজাতির আম কোন জায়গা থেকে এসেছে, কোথায় পাওয়া যাবে এবং কীভাবে পাওয়া যাবে। এসব তথ্য।

জহিরুল হক বলেন, এই ফল মেলার প্রধান উদ্দেশ্য হলো দর্শনার্থীদের বিভিন্ন ধরনের ফল সম্পর্কে ধারণা দেওয়া, ফল সম্পর্কে মানুষের জ্ঞান বৃদ্ধি করা। একই সাথে মানুষকে ফলদ বৃক্ষ রোপনে উৎসাহিত করা।

আম ছাড়াও ফল মেলায় প্রদর্শিত হচ্ছে, রক মেলন, ড্রাগন ফল, জারা লেবু, ডে-ফল, চাপালিচা কাঠাল, আশফল, পাম ফল, টক আতা, তৈকর সহ অপ্রচলিত বিভিন্ন ধরনের ফল।

(ঢাকাটাইমস/১৮জুন/এআই/এজেড)

সংবাদটি শেয়ার করুন

ফিচার বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন ফিচার বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত