আইএফ একাডেমির পুনর্মিলনী ও ইফতার মাহফিল

ঢাকাটাইমস ডেস্ক
 | প্রকাশিত : ১৮ জুন ২০১৭, ২২:০৪

ইসলামি অর্থনীতি, ফাইন্যান্স ও ব্যাংকিং বিষয়ক একাডেমি ও কনসালটেন্সি প্রতিষ্ঠান ‘আই এফ একাডেমি অ্যান্ড কনসালটেন্সি’ -এর পুনর্মিলনী অনুষ্ঠান ও ইফতার মাহফিল শুক্রবার অনুষ্ঠিত হয়েছে।

রাজধানীর বিজয়নগরস্থ সুং ফুড গার্ডেন রেস্টুরেন্টে আয়োজিত পুনর্মিলনী ও ইফতার মাহফিলে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ‘সেন্ট্রাল শরিয়াহ বোর্ড ফর ইসলামিক ব্যাংকস অব বাংলাদেশ’ এর সেক্রেটারি জেনারেল একিউ এম ছফিউল্লাহ আরিফ।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে আরিফ বলেন, ‘ইসলামিক ব্যাংকিং ইন্ডাস্ট্রি একটি সমস্যার মধ্যে আছে। সে সমস্যা আর কিছু নয়, দক্ষ ম্যান পাওয়ারের ঘাটতি। আলহামদুলিল্লাহ, আই এফ একাডেমি অ্যান্ড কনসালটিন্সির অধীনে পরিচালিত ইসলামি অর্থনীতি ও ব্যাংকিং বিষয়ক কোর্সের মাধ্যমে সেই ঘাটতি কিছুটা পূরণ হবে। তাই একে আমরা পূর্ণ সমর্থন করি। একে সামনে এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার জন্য উক্ত কোর্স সমাপনকারীদেরকে আই এফ একাডেমি ও সেন্ট্রাল শরিয়াহ যৌথ উদ্যোগে সার্টিফিকেট ইস্যু করেছে। শুধু এ কোর্স নয়, ইসলামী অর্থনীতি ও ব্যাংকিং বিষয়ক যেকোনো ভালো উদ্যোগকে আমরা প্রমোট করবো।’

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ইসলামি ব্যাংক বাংলাদেশ লিমিটেডের অ্যাসিসট্যান্ট ভাইস প্রেসিডেন্ট আতিকুর রহমান খাদিম। অনুষ্ঠানে ‘ফিকহুল মুআমালার গুরুত্ব’ বিষয়ে প্রেজেন্টশন উপস্থাপন করেন, মালেশিয়া প্রবাসী পি এইচ ডি গবেষক, মুফতি ইউসুফ সুলতান।

অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন, বাংলাদেশ ব্যাংকের ফরেইন এক্সচেঞ্জ ডিপার্টমেন্টের জয়েন্ট ডিরেক্টর জনাব মেজবাহ উদ্দীন। সোশ্যাল ইসলামী ব্যাংকের শরিয়াহ সুপারভাইজরি বোর্ডের সেক্রেটারি ইসহাক হুসাইন। ইউনিয়ন ব্যাংকের শরিয়াহ মেম্বার ড. শামসুল হক সিদ্দীক। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আরবি বিভাগের সহকারী অধ্যাপক ড. মুহাম্মদ রফিকুল ইসলাম। প্রিয় ডটকমের বিভাগীয় প্রধান, মাওলানা মিরাজ রহমান। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেছেন, আইএফ একাডেমি অ্যান্ড কনসালটেন্সির প্রতিষ্ঠাতা পরিচালক শাইখ মুফতি আব্দুল্লাহ মাসুম। তিনি তাঁর সংক্ষিপ্ত বক্তব্যে বলেছেন, ‘ইসলামে যেমন ইবাদতের নিদের্শ রয়েছে, তেমনি মুআমালা-লেনদেন হালাল উপায়ে করার নির্দেশ রয়েছে। সূরা বাকারার ১৭২ নং আয়াতে স্পষ্ট  ভাষায় হালাল গ্রহণের প্রতি জোর নির্দেশ দেয়া হয়েছে। তেমনিভাবে বিভিন্ন আয়াত ও হাদিসে হারাম বর্জনেরও নির্দেশ দেয়া হয়েছে। কিন্তু আমাদের সমাজে এ ব্যাপারটি চরম অবহেলার শিকার। হালাল উপার্জন, হারাম বর্জন  বিষয়ে গণসচেতনতা তৈরি ও ইসলামিক ব্যাংকিং বিষয়ে ট্রেইন আপ করাই আমাদের লক্ষ্য।’ –বিজ্ঞপ্তি

(ঢাকাটাইমস/১৮জুন/জেবি)

সংবাদটি শেয়ার করুন

অর্থনীতি বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন ফিচার বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত