চিকুনগুনিয়া ‘মহামারি’, ‘মহামারি নয়’

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকাটাইমস
| আপডেট : ১৪ জুলাই ২০১৭, ১৯:৪৭ | প্রকাশিত : ১৪ জুলাই ২০১৭, ১৯:২৪

চিকুনগুনিয়া কি মহামারির আকার ধারণ করেছে? ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের বিশেষজ্ঞরা মনে করেন বর্তমান পরিস্থিতিকে মহামারি বলাই যেতে পারে। তবে ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের বিশেষজ্ঞরা বলছেন, পরিস্থিতি অতটা খারাপ নয়।

চিকুনগুনিয়া বিস্তারের প্রেক্ষিতে মশক নিধন কার্যক্রম নিয়ে উঠা প্রশ্নের জবাব দিতে শুক্রবার সংবাদ সম্মেলন করেন ঢাকার দুই মেয়র। এ সময় সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে দুই সিটির কর্মকর্তারা দুই ধরনের বক্তব্য দেন।

‘পরিস্থিতিকে মহামারি বলা যায়’

গুলশান-২ এর ঢাকা উত্তর সিটির প্রধান কার্যালয়ে মেয়র আনিসুল হকের ডাকা সংবাদ সম্মেলনে রোগতত্ত্ববিদ মাহমুদুর রহমান, তৌহিদ উদ্দিন আহমেদ, মুনজুর এ চৌধুরী (এন্টোমলজিস্ট)।

চিকুনগুনিয়া ভাইরাসের বাহক এডিস মশা ও কীভাবে এটা মানুষের মধ্যে ছড়ায় এবং কোন উপায়ে সাবধান থাকা যায় সে বিষয়ে কথা বলেন এই বিশেষজ্ঞরা। প্রশ্ন-উত্তর পর্বে সাংবাদিকরা এই বিশেষজ্ঞদের কাছে চিকুনগুনিয়া বর্তমানে মহামারি আকার ধারণ করেছে কিনা তাদের গবেষণায় কি বলে এ বিষয়ে জানতে চাইলে, একজন অকপটে বলেন ‘বর্তমানে চিকুনগুনিয়া মাহমারি আকর ধারণ করেছে’।

তবে মেয়র আনিসুল হক বলেন, ‘মহামারি কী সেটার সংজ্ঞা আমি জানি না। যদি মৃত্যু না হয় তবে এটা মহামারি নয়। আবার যদি প্রাদুর্ভাব মাত্রা ছাড়ায় তবে সেটা বিশেষজ্ঞরা ভালো বলতে পারেন। তবে কোন মহামারির জন্য ডিএনসিসি দায়ী নয়।’

অধ্যাপক মাহমুদুর রহমান বলেন, ‘চিকুনগুনিয়া কোন ছোঁয়াচে নয়, তবে আক্রান্ত ব্যক্তিকে প্রথম পাঁচ দিনের মধ্যে অন্য এডিস মশা কামড়ালে এবং সেই মশাটি আবার অন্য কোন স্বাভাবিক মানুষকে কামড়ালে ভাইরাসটি সুস্থ মানুষটির শরীরে চলে যায়। 

ব্যক্তি চিকুনগুনিয়ায় আক্রান্ত হলে প্রথম পাঁচদিন আক্রান্ত ব্যক্তিতে মশারির ভেতরে রাখার পরামর্শ দেন এই বিশেষজ্ঞ। তিনি বলেন, এতে পরিবারের বাকি সদস্যদের চিকুনগুনিয়া হবার আশঙ্কা কমবে।

মাহমুদুর রহমান বলেন, ‘এডিস মশা জন্মানোর স্থানগুলো সব সময় ধ্বংস করতে হবে। এডিস মশা থেকে যেমন চিকুনগুনিয়া ছড়ায় তেমনি ডেঙ্গু জ্বরও ছড়ায়।’

এই বিশেষজ্ঞ বলেন, বাড়ির ভেতরের এসি ও ফ্রিজের পানি জমার ট্রে, ফুলের টব, সানশেড ও ছাদ, ডাবের খোসা, গাড়ির পরিত্যক্ত টায়ার, নির্মাণাধীন ভবনের চৌবাচ্চা, ড্রামে জমে থাকা পরিষ্কার পানিতে এডিস মশা ডিম পাড়ে ও বংশ বিস্তার করে। আর বড় হয়ে এই মশার মাধ্যমে ভাইরাস মানব দেহে ছড়ায়। নর্দমার পানিতে কখনো এডিস মশা জন্মায় না।

মহামারি হয়নি: মেয়র খোকন

একই সময়ে ঢাকা দক্ষিণের নগর ভবনে সংবাদ সম্মেলন করেন ঢাকা দক্ষিণ সিটি কপোরেশনের মেয়ল সাঈদ খোকন। এ সময় এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, চিকুনগুনিয়া মহামারির মত ছড়ায়নি।

মেয়র খোকন বলেন, ‘সীমিত লোকবল নিয়ে সাধ্যমত চেষ্টা করছি চিকুনগুনিয়া নিয়ন্ত্রণে আনতে। চিকুনগুনিয়া মহামারি আকার ধারণ করেছে তা বলা যাবে না।  এই রোগের যে ব্যপকতা রয়েছে, তা আগামী ৩-৪ সপ্তাহের মধ্যে নিয়ন্ত্রণে আনবো। তবে নিয়ন্ত্রণে আনতে নাগরিকদের সচেতনতা জরুরি।’

উত্তর সিটি করপোরেশনের বিশেষজ্ঞরা পরিস্থিতিতে মহামারী বলছেন-এই মন্তব্যের জবাবে মেয়র বলেন, ‘উত্তর এটাকে মহামারি বলেছে সেটা তাদের বিষয়। কিন্তু আমি দ্ব্যর্থহীন কণ্ঠে বলতে পারি দক্ষিণ এলাকায় মহামারির ধারেকাছে নেই।’

চিকুনগুনিয়া প্রতিরোধে দুই সিটি করপোরেশন ব্যর্থ- স্বাস্থ্যমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিমের এমন বক্তব্যের প্রতিক্রিয়া জানতে চাইলে মেয়র বলেন, ‘তিনি হয়তো অন্য কিছু বোঝাতে চেয়েছেন, আমরা অন্যটা বুঝেছি। আমি সমালোচনাকে অনেক ইতিবাচকভাবেই দেখি, বুঝবার চেষ্টা করি। আলোচনা সমালোচনা হবে এটাই স্বাভাবিক।’

চিকুনগুনিয়া শুধু বাংলাদেশে নয় ভারত, পাকিস্তান ও নেপালেও ছড়িয়েছে জানিয়ে মেয়র খোকন বলেন, সিঙ্গাপুর গত দুই সপ্তাহ  আগে ডেঙ্গুর ভেকশিনেশন বাজারজাত করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। চিকুনগুনিয়ার জন্য ট্রয়ালের কাজ চলছে। আশা করি দ্রুতই তারা সফল হবে।  তখন আমরাও এটা দেশে নিয়ে আসবো।

ঢাকাটাইমস/১৪জুলাই/এএকে/জিএম/ডব্লিউবি

সংবাদটি শেয়ার করুন

জাতীয় বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন ফিচার বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত