ইউজিসির অভিন্ন নীতিমালা প্রত্যাখ্যান কুবি বঙ্গবন্ধু পরিষদের

কুবি প্রতিনিধি, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ১৭ জুলাই ২০১৭, ১৮:৩৮

বিশ্ববিদ্যালয়ে শিক্ষক নিয়োগ ও পদোন্নতি বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশনের (ইউজিসি) তৈরি করা অভিন্ন নীতিমালাকে প্রত্যাখ্যান করেছে কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয় বঙ্গবন্ধু পরিষদ।

সোমবার বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক লাউঞ্জে সদ্য নিয়োগপ্রাপ্ত নবীন শিক্ষকদের বরণ ও ইউজিসি প্রণীত অভিন্ন নীতিমালা বিষয়ক আলোচনা সভায় বক্তারা নতুন এ নীতিমালাকে প্রত্যাখ্যান করেন।

সংগঠনের সাহিত্য ও সংস্কৃতি বিষয়ক সম্পাদক সুমাইয়া আফরিন সানীর সঞ্চালনা এবং সংগঠনের সভাপতি ও বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান হলের প্রভোস্ট দুলাল চন্দ্র নন্দীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে আলোচক ছিলেন- বাণিজ্য অনুষদের সাবেক ডিন ও অ্যাকাউন্টিং অ্যান্ড ইনফরমেশন সিস্টেমস বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ড.বিশ্বজিৎ চন্দ্র দেব, বঙ্গবন্ধু পরিষদের সাধারণ সম্পাদক ও বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর ড. কাজী মোহাম্মদ কামাল উদ্দিন। এছাড়াও নতুন এ অভিন্ন নীতিমালার বিভিন্ন অসঙ্গতি তুলে ধরে অনুষ্ঠানে অনেক শিক্ষক বক্তব্য রাখেন।

পরে সংগঠনের পক্ষ থেকে সংগঠনের সভাপতি ও সম্পাদক স্বাক্ষরিত একটি প্রেস বিজ্ঞপ্তি দেওয়া হয়।

প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে তারা উল্লেখ করেন, বাংলাদেশের পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়গুলো সুনির্দিষ্ট নীতিমালার ভিত্তিতে যুগ যুগ ধরে পরিচালিত হলেও ইউজিসি প্রণীত নীতিমালায় ব্যাপক অসঙ্গতি পরিলক্ষিত হয়। তাছাড়া আমরা দেখে এসেছি যে কোনো নীতিমালা প্রয়োগ করার ক্ষেত্রে বিভিন্ন প্রক্রিয়া সম্পন্ন করে একটি সুনির্দিষ্ট সময় শেষে বাস্তবায়নের নির্দেশনা প্রদান করা হয়। যা এখানে মোটেও পরিলক্ষিত হয়নি। এসকল প্রেক্ষাপট বিবেচনা করে ইউজিসি প্রেরিত অভিন্ন নীতিমালাটি বঙ্গবন্ধু পরিষদ কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয় প্রত্যাখ্যান করছে। পাশাপাশি কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ের বিদ্যমান নীতিমালা অনুযায়ী শিক্ষক নিয়োগ ও পদোন্নতি চলমান রাখার জন্য কতৃপক্ষের প্রতি সদয় আহ্বান জানাচ্ছি।

বাংলাদেশের পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়গুলো যে নীতিমালা অনুযায়ী চলছে সে নীতিমালা অনুসরণ করে একটি শিক্ষক বান্ধব নীতিমালা সুপারিশ করলে কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয় বঙ্গবন্ধু পরিষদ উক্ত প্রক্রিয়াকে স্বাগত জানাবে বলে বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়।

আলোচনা অনুষ্ঠানের শুরুতে বিশ্ববিদ্যালয়ে সদ্য নিয়োগপ্রাপ্ত শিক্ষকদের ফুলেল শুভেচ্ছায় বরণ করা হয়। এ সময় তারা তাদের আনন্দঘন অনুভূতি ব্যক্ত করেন।

(ঢাকাটাইমস/১৭জুলাই/প্রতিনিধি/ইএস)

সংবাদটি শেয়ার করুন

শিক্ষা বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন ফিচার বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত