নড়াইলে পুলিশ কর্মকর্তার বিরুদ্ধে ধর্ষণ মামলা

নড়াইল প্রতিনিধি, ঢাকাটাইমস
| আপডেট : ১৭ জুলাই ২০১৭, ২২:৪০ | প্রকাশিত : ১৭ জুলাই ২০১৭, ২১:৫৪

এক নারীর সঙ্গে দৈহিক সম্পর্ক গড়ে তোলা এবং গর্ভপাতে বাধ্য করার অভিযোগে নড়াইলে এক পুলিশ কর্মকর্তার বিরুদ্ধে মামলা দায়ের হয়েছে। অভিযুক্ত পুলিশ কর্মকর্তা হলেন- উপপরিদর্শক (এসআই) আব্দুল করিম।

সোমবার দুপুরে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইবুনালের বিচারক আবুল বাশার মুন্সীর আদালতে এই মামলা দায়ের করেন ভুক্তভোগী ওই নারী।

আগামী ৩ আগস্টের মধ্যে জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট জাহিদ হাসানকে তদন্ত করে প্রতিবেদন দাখিলের নির্দেশ দিয়েছেন আদালত।

মামলার বিবরণ ও ভুক্তভোগীর লিখিত অভিযোগে জানা যায়, নড়াইলের কালিয়া থানা সংলগ্ন চাঁদপুর এলাকায় প্রায় সাত মাস আগে এক নারীর সঙ্গে অবৈধ সম্পর্ক গড়ে তোলেন এসআই আব্দুল করিম। এক পর্যায়ে ওই নারী গর্ভবতী হয়ে পড়েন। পুলিশের ওই কর্মকর্তাকে বিয়ের কথা বললে এড়িয়ে যান তিনি। এমনকি পুলিশ কর্মকর্তা আব্দুল করিম ওই নারীকে গর্ভপাত ঘটানোর চাপ দেন। গর্ভের সন্তান নষ্ট করতে অস্বীকৃতি জানালে পরবর্তীতে চিকিৎসার নামে গত ১৪ মার্চ কালিয়ার চাঁচুড়ি এলাকার এক পল্লী চিকিৎসকের মাধ্যমে ওই নারীকে ইনজেকশন দেয়া হয়। ইনজেকশন নেয়ার পর ওইদিন রাতেই তার দুইমাসের গর্ভের সন্তান নষ্ট হয়ে যায়। এ ঘটনায় বিচার চেয়ে ভুক্তভোগী নারী পুলিশ সুপারের কাছে এসআই করিমের বিরুদ্ধে লিখিত অভিযোগ করেন। পরবর্তীতে গত ২০ মে তাকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়।

এসআই আব্দুল করিম নড়াইলের শেখহাটি পুলিশ ক্যাম্পের দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (আইসি) ছিলেন। এর আগে কালিয়া থানায় কর্মরত ছিলেন। সাময়িক বরখাস্তের পর তাকে নড়াইল পুলিশ লাইনসে রাখা হয়।

(ঢাকাটাইমস/১৭জুলাই/প্রতিনিধি/ইএস)

সংবাদটি শেয়ার করুন

অপরাধ ও দুর্নীতি বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন ফিচার বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত