মেয়র আরিফের বিরুদ্ধে হাসপাতালের এমডিকে মারধরের অভিযোগ

সিলেট ব্যুরো, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ১৭ জুলাই ২০১৭, ২২:৩৪

সড়ক প্রশস্ত করা নিয়ে বিরোধে জড়িয়ে পড়েছে সিলেট সিটি করপোরেশন ও সিলেট উইমেন্স মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল। এই বিরোধ নিয়ে পাল্টাপাল্টি লাঞ্ছিতের অভিযোগও পাওয়া গেছে।

হাসপাতালটির ভাইস-চেয়ারম্যান বশির আহমদের অভিযোগ, হাসপাতালের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ডা. শাহ আব্দুল আহাদকে মারধর করেছেন সিটি করপোরেশনের মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী।

তবে আরিফুল হক এই অভিযোগ অস্বীকার করে বলেছেন, সড়ক বড় করার জন্য হাসপাতালের জায়গা ছাড়ার নোটিশ দিলে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ তাঁর সঙ্গে দুর্ব্যবহার করে।

উইমেন্স মেডিক্যাল কলেজের ভাইস-চেয়ারম্যান বশির আহমদ ঢাকাটাইমসকে বলেন, মিরাবক্সটুলা সড়ক বড় করার জন্য আমাদের ছয় ফুট জায়গা ছাড়তে সোমবার সকালে সিটি কর্তৃপক্ষ নোটিশ দেয়। আমরা তাদের আইনি প্রক্রিয়া মেনে নোটিশ প্রদান করার কথা বলি। এরপর বেলা তিনটার দিকে মেয়র আরিফুল হক ২০/২৫ জন লোক নিয়ে হাসপাতালে এসে হাসপাতালের এমডি  ডা. শাহ আব্দুল আহাদকে মারধর করেন।

এ ব্যাপারে মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী ঢাকাটাইমসকে বলেন, মিরবক্সটুলা সড়ক বড় করার কাজ চলছে। এজন্য জায়গা ছাড়ার জন্য উইমেন্স হাসপাতাল কর্তৃপক্ষকে নোটিশ দিলে তারা আপত্তি জানান। বিকালে কয়েকজন কাউন্সিলর ও সিটি করপোরেশনের কর্মকর্তাদের নিয়ে আমি হাসপাতালে গেলে তারা আমার সঙ্গে দুর্ব্যবহার করেন।

হাসপাতালের এমডিকে মারধরের কোনো ঘটনা ঘটেনি বলে দাবি করেন মেয়র। তিনি বলেন, সড়কের জায়গা না ছাড়তেই তারা এসব মিথ্যে বলছে।

কোতয়ালী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. গৌছুল হোসেন ঢাকাটাইমসকে বলেন, মেয়রের সঙ্গে এক চিকিৎসকের তর্কাতর্কি হয়েছে বলে শুনেছি। তবে পুরো ঘটনা এখনো জানি না। কোনো অভিযোগ পাইনি।

(ঢাকাটাইমস/১৭জুলাই/এমএ/জেবি)

সংবাদটি শেয়ার করুন

বাংলাদেশ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন ফিচার বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত