পিরোজপুরে সেতু ভেঙে ১২ রুটে যান চলাচল বন্ধ

পিরোজপুর প্রতিনিধি, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ১২ আগস্ট ২০১৭, ২২:০১

পিরোজপুরের ভান্ডারিয়া-মঠবাড়িয়া সড়কের মাদার্সি এলাকায় একটি সেতু দুটি ট্রাকসহ ভেঙে পড়ায় উপকূলীয় অঞ্চলের ১২ রুটের যান চলাচল বন্ধ রয়েছে। এ কারণে ভোগান্তিতে পড়েছেন যাত্রী সাধারণ।

শনিবার ভোরে পাথরবোঝাই দুটি ট্রাক একসাথে মাদার্সি সেতুতে ওঠায় সেটা ভেঙে ট্রাক দুটি খালে পড়ে যায়। ফলে মঠবাড়িয়া ও পাথরঘাটার সঙ্গে ঢাকা, চট্টগ্রাম, বরিশাল, খুলনাসহ ১২টি রুটে সরাসরি যান চলাচল বন্ধ হয়ে যায়।

ঘটনার পর দুটি ট্রাকের চালক ও হেলপার পলাতক রয়েছে। তবে কোন হতাহতের খবর পাওয়া যায়নি।

স্থানীয়রা জানায়, ভোরে মঠবাড়িয়াগামী পাথরবোঝাই একটি ট্রাক সেতুটির প্রায় এক প্রান্তে চলে আসে। অপর প্রান্ত থেকে আরেকটি পাথরবোঝাই ট্রাক উঠলে সেতুটি ভেঙে পড়ে।

স্থানীয় মাসুদ নামে এক প্রত্যক্ষদর্শী বলেন, পাথর, সিমেন্ট, রড কিংবা মালবোঝাই নিয়ে এক সঙ্গে একাধিক ট্রাক সেতু পারাপারের ক্ষেত্রে সড়ক ও জনপথ বিভাগের নিষেধাজ্ঞা থাকলেও রাস্তায় চলাচলকারী অধিকাংশ ট্রাক চালকদের তা মানতে দেখা যায় না। এর আগেও এই রুটে একই ধরনের দুর্ঘটনা ঘটেছে। অথচ এ বিষয়ে তারা অসচেতনতার পরিচয় দিচ্ছে।

ভান্ডারিয়া থানার উপ-পরিদর্শক শহিদুল ইসলাম বলেন, ‘ভেঙে পড়া সেতু দিয়ে মানুষ ঝুঁকি নিয়ে পারাপার হচ্ছিল। আমরা মানুষের চলাচল বন্ধ করে খেয়া নৌকায় পারাপারের ব্যবস্থা করেছি। ঘটনার পর থেকে ট্রাকের চালক পলাতক রয়েছেন।’

সড়ক ও জনপথ বিভাগের (সওজ) পিরোজপুর কার্যালয়ের উপ-সহকারী প্রকৌশলী ফখরুল ইসলাম বলেন, সর্বোচ্চ ২০ টন ধারণক্ষমতাসম্পন্ন বেইলি সেতুটি দিয়ে মোট ৫০ টনের পাথরবোঝাই দুটি ট্রাক (প্রতি ট্রাকে ২৫ টন) একসঙ্গে পার হওয়ায় সেতুটি ভেঙে যায়।

পিরোজপুর সড়ক ও জনপথ বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী নজরুল ইসলাম বলেন, ওই সেতুটি আগে থেকেই ঝুঁকিপূর্ণ ছিল। পাথরবোঝাই দুটি ট্রাক একসাথে ওঠায় এ দুর্ঘটনার কবলে পড়ে। ঘটনার পর বরিশাল থেকে ক্রেন এনে ট্রাক দুটি উঠানোর চেষ্টা চলছে।

(ঢাকাটাইমস/১২আগস্ট/প্রতিনিধি/এলএ)

সংবাদটি শেয়ার করুন

বাংলাদেশ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন ফিচার বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত