পরিণত ‘নাবালক’ ফখরুলের বক্তব্যে ‘লজ্জিত’ হাছান

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ১৮ আগস্ট ২০১৭, ১৩:৪০
ফাইল ছবি

বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরকে ‘পরিণত বয়সের নাবালক’ বলেছেন আওয়ামী লীগ নেতা হাছান মাহমুদ। বিএনপি নেতার বক্তব্যে লজ্জা পাওয়ার কথাও জানিয়েছেন তিনি।

শুক্রবার সকালে রাজধানীতে এক আলোচনায় এ কথা বলেন আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক। গত বুধবার বঙ্গভবনে রাষ্ট্রপতির আবদুল হামিদের সঙ্গে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বৈঠক নিয়ে মির্জা ফখরুলের প্রতিক্রিয়ার জবাব দিতে গিয়ে এ কথা বলেন হাছান।

বৃহস্পতিবার মির্জা ফখরুল রাজধানীতে এক আলোচনায় বলেন, ‘আমরা গতকাল দেখলাম প্রধানমন্ত্রী স্বয়ং অ্যাটর্নি জেনারেল এবং আইনমন্ত্রীকে নিয়ে রাষ্ট্রপতির সঙ্গে দেখা করতে গেছেন। ষোড়শ সংশোধনী বাতিলের রায়ের পরে এভাবে সাক্ষাৎ করায় জাতি উদ্বিগ্ন এবং হতাশ। এর আগেও আমরা দেখেছি আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক প্রধান বিচারপতির সঙ্গে দেখা করলেন।’

হাছান মাহমুদ বলেন, ‘রাষ্ট্রপতির সাথে প্রধানমন্ত্রী ও অন্যান্য মন্ত্রীরা দেখা করবেন এটাই স্বাভাবিক, বরং দেখা না করাটাই হচ্ছে অস্বাভাবিক। বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর এখানে ষড়যন্ত্রের গন্ধ খুঁজছেন। তিনি পরিণত বয়সে নাবালকের মত বক্তব্য দিচ্ছেন। মহাসচিবের দায়িত্ব থেকে, পরিণত বয়সে বালকের মত বক্তব্য দেন তাতে রাজনীতিবিদ হিসাবে আমি লজ্জিত হই। বিএনপিরও অনেকেরই লাগে।’

সুষ্ঠু নির্বাচনের জন্য সংলাপের প্রয়োজন- মির্জা ফখরুলের এমন বক্তব্য প্রসঙ্গে হাছান মাহমুদ বলেন, ‘সুষ্ঠু নির্বাচনের জন্য নির্বাচন কমিশনের সাথে সংলাপ প্রয়োজন, সরকারের সাথে নয়। কারণ, নির্বাচন পরিচালনা করবে নির্বাচন কমিশন। সরকার তার রুটিন কাজ করবে। অন্যদিকে ১৫ আগস্ট জন্মদিনের তারিখ পরিবর্তন করে কেক কাটবেন আর তাঁর সঙ্গে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আলোচনায় বসবেন? প্রধানমন্ত্রী যদি আলোচনায় বসতেও চায়, আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা বলবেন, যিনি জন্মের তারিখ পরিবর্তন করে ১৫ আগস্ট কেক কাটবেন। তার সঙ্গে কোন বিষয়ে আলোচনা হতে পারে না। আওয়ামী লীগ এত দৈন্য দশায় পড়ে নাই যে তাদের সাথে বৈঠক করতে হবে।’

‘নানামুখী ষড়যন্ত্র হচ্ছে’- মন্তব্য করে হাছান বলেন, ‘১৫ আগস্ট ধানমন্ডি ৩২ নম্বরের ৩০০ মিটারের মধ্যে যে জঙ্গি তৎপরতা, তা বৃহত্তর ষড়যন্ত্রের অংশ। এর সাথে বিএনপি জড়িত। কারণ জঙ্গি সাইফুল ছাত্র শিবিরের কর্মী, তাঁর বাবা জামায়াতে ইসলামীর নেতা। আর জামায়াতের প্রধান পৃষ্ঠপোষক হলো বিএনপি। জামায়াত-বিএনপির পৃষ্ঠপোষকতা শিবিরের নেতাদের খোলস পাল্টিয়ে নব্য জেএমবি বানিয়েছে। তারা সারাদেশে হামলা চালিয়ে বিশেষ পরিস্থিতি তৈরি করতে চায়। তাই সবাইকে সজাগ থাকতে হবে।’

ঢাকাটাইমস/১৮আগস্ট/টিএ/ডব্লিউবি

সংবাদটি শেয়ার করুন

রাজনীতি বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন ফিচার বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত