শাহবাগে ইমরানের ওপর আবার ‘হামলা’

ঢাবি প্রতিনিধি, ঢাকাটাইমস
| আপডেট : ১৮ আগস্ট ২০১৭, ২০:৫৮ | প্রকাশিত : ১৮ আগস্ট ২০১৭, ১৮:৩৬

রাজধানীর শাহবাগ এলাকায় ডিম ছোড়ার পরদিন একই এলাকায় আবারো তার ওপর হামলার অভিযোগ করেছেন গণজাগরণ মঞ্চের মুখপাত্র ইমরান এইচ সরকার।

শুক্রবার বিকালে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় হাসপাতালের সামনে এই হামলা হয় বলে জানান ইমরান।

বিকালে নিজের ফেসবুক স্ট্যাটাসে এই কথা উল্লেখ করেন ইমরান। তিনি এই হাসপাতালকে বঙ্গবন্ধু মেডিকেল না লিখে এর আগের নাম পিজি বলে উল্লেখ করেন।

ইমরান লেখেন, ‘শাহবাগ থেকে ফেরার পথে পিজি হাসপাতালের সামনে আবারো হামলা। মুখ বন্ধ করেই ছাড়বে। এইদেশে থাকতে হলে কথা বলা যাবে না, এটাই পরিস্কার বার্তা।’

ইমরান এইচ সরকার ঢাকাটাইমসকে বলেন, ‘গতকালের ঘটনায় আজকে বিকালে আমাদের প্রতিবাদ সমাবেশ করার কথা ছিল শাহাবাগে। কিন্তু পুলিশ আমাদের অনুমতি না দেয়ায় আমরা সমাবেশ না করে শুধু প্রেস বিজ্ঞপ্তি বিতরণ করে ফিরছিলাম। এমন সময় ৮-১০ জন ছেলে আমাদের ওপর অতর্কিত হামলা চালায়। হামলার সময় তারা আমাদের ওপর ইটপাটরকেল ছোড়ে।’

ইমরানের দাবি, হামলার  ঘটনায় তাদের কয়েকজন কর্মী আহত হয়েছেন। কারা হামলা করেছেন এই বিষয়ে জানতে চাইলে ইমরান জানান, এটা বলা মুশকিল। কারণ তাদের কাউকে আমি চিনতে পারিনি। কিন্তু এটা বলতে পারি, গতকাল যারা হামলা করেছিল তাদের দোসররাই আজকে আবার হামলা করেছে।

এর আগে বৃহস্পতিবার বন্যার্তদের জন্য টাকা তোলার সময় শাহবাগে ইমরান ও তার সহযোগীদের ওপর হামলা হয় বলে শাহবাগ থানায় দেয়া এক ভিডিওতে দেখা গেছে। ইমরান অভিযোগ করেছেন, লাঠিসোঠা ও হকিস্টিক নিয়ে তার ওপর হামলা হয়। তবে এই ঘটনায় প্রকাশিত এক ভিডিওচিত্রে দেখা গেছে, ইমরানের দিকে ডিম ছুঁড়ে মারছেন কয়েকজন যুবক। তারা ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের একটি হলের ছাত্রলীগ কর্মী বলে ঢাকাটাইমসকের অনুসন্ধানে জানা গেছে।

ইমরানের ওপর ছাত্রলীগের ‘ডিম হামলা’ এর আগেও হয়েছে। প্রধানমন্ত্রীকে নিয়ে কটূক্তির অভিযোগে এক ছাত্রলীগ নেতার করা মামলায় হাজিরা দিতে গত ১৬ জুলাই মুখ্য মহানগর হাকিম আদালতে গেলে ইমরানের ওপর পচা ডিম ছুড়ে মারেন ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা।

২৮ মে রাজধানীর শাহবাগে গণজাগরণ মঞ্চের এক সমাবেশে ‘ছি. ছি. হাসিনা, লজ্জায় বাঁচি না’ শিরোনামে প্রধানমন্ত্রীকে নিয়ে মানহানিকর স্লোগান দেয়া হয় বলে অভিযোগ করছেন ছাত্রলীগ নেতাকর্মীরা। এই ঘটনার পর থেকে ইমরান এইচ সরকারকে প্রতিরোধের ঘোষণা দিয়েছে ক্ষমতাসীন দলের ছাত্র সংগঠন।

২০১৩ সালের ফেব্রুয়ারিতে যুদ্ধাপরাধী কাদের মোল্লার সর্বোচ্চ মৃত্যুদণ্ডের দাবিতে শাহবাগে গড়ে ওঠা গণজাগরণ মঞ্চের মুখপাত্র করা হয় ছাত্রলীগের সাবেক নেতা ইমরান এইচ সরকারকে। তখন ছাত্রলীগও এই আন্দোলনে নেপথ্য ভূমিকা পালন করে। পরে নানা ইস্যুতে ছাত্রলীগের সঙ্গে দূরত্ব সৃষ্টি হয় ইমরানের। এক পর্যায়ে গণজাগরণ মঞ্চেও দেখা দেয় ভাঙন।

(ঢাকাটাইমস/১৮আগস্ট/প্রতিনিধি/জেবি)

সংবাদটি শেয়ার করুন

জাতীয় বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন ফিচার বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত