মুমিনুল বাদ কেন? প্রশ্নবাণে বিদ্ধ নান্নু ও হাথুরা

ক্রীড়া প্রতিবেদক, ঢাকাটাইমস
| আপডেট : ১৯ আগস্ট ২০১৭, ২২:১১ | প্রকাশিত : ১৯ আগস্ট ২০১৭, ১৯:২৪

কোচ চন্ডিকা হাথুরসিংহেকে নিয়ে সংবাদ সম্মেলনে আসলেন প্রধান নির্বাচক মিনহাজুল আবেদীন নান্নু। বিসিবির নতুন কাঠামো অনুযায়ী কোচও নির্বাচক কমিটির একজন সদস্য। তিনি দল ঘোষণার সংবাদ সম্মেলনে আসতেই পারেন। তবে তিনি সাধারণত আসেন না। দুই নির্বাচক সুমন ও শিপনকে নিয়েই দল ঘোষণার সংবাদ সম্মেলন করে থাকেন নান্নু।

কোচের ইচ্ছাতেই যে অস্ট্রেলিয়া সিরিজে থাকছেন না মুমিনুল, এটা সবাই জানেন। কোচের চাওয়ার কাছে আসলে প্রধান নির্বাচকের করার কিছু নেই, বর্তমান পরিস্থিতিতে।

মুমিনুলের বাদ পড়াটা মিডিয়া কর্মীরা কিছুতেই মেনে নিতে পারছিলেন না। পারার কথাও নয়। শনিবারের সংবাদ সম্মেলনে যে মুমিনুল প্রসঙ্গটাই বড় হয়ে উঠবে, এটা অনুমান করতে পারছিলেন প্রধান নির্বাচক! তাই কোচকে নিয়ে এসেছিলেন সংবাদ সম্মেলনে। কোচকে যে কৈফিয়ত দিতে হবে।

কিন্তু সাংবাদিকদের প্রশ্নবাণে বিন্ধ হতে হলো প্রধানত প্রধান নির্বাচককেই। পুরো সংবাদ সম্মেলন জুড়ে মুমিনুল প্রসঙ্গ। কেন, কোন যুক্তিতে বাদ ইত্যাদি অসংখ্য প্রশ্ন। মুমিনুলকে নিয়ে অন্তত গোটা ১২ প্রশ্নের জবাব দিতে হয়েছে প্রধান নির্বাচককে। উত্তর দিতে গিয়ে দুই একবার মেজাজও হারান নান্নু।

পাশে বসা কোচ হাথুরাসিংহে দেখিয়ে দিয়ে নান্নু বারবার বুঝাতে চেয়েছেন, আসলে মুমিনুলের বাদ পড়াটা প্রধানত কোচের ইচ্ছাতেই। তারপরেও নিস্তার মিলেনি প্রধান নির্বাচকের। একের পর এক প্রশ্নে গলদঘর্ম অবস্থা হয়েছে নান্নুর।

এক প্রশ্নের জবাবে প্রধান নির্বাচক মেজাজ হারিয়ে বলেন, ‘আমাকে এভাবে বলে ঠিক হবে না। আপনি এভাবে আমাকে বলতে পারেন না। আমাদের প্রধান কোচ এখানে আছেন, উনাকেও ব্যাপারটি জিজ্ঞেস করতে পারেন। মুমিনুলের প্রসঙ্গে আপনারা ওর পরিসংখ্যানের দিকে যাচ্ছেন না। গত এক বছরে ওর গড় ২৮-এ নেমে এসেছে। ও যেভাবে ওর ক্যারিয়ার শুরু করেছিল, সেই মাত্রায় কিন্তু নেই।একজন ক্রিকেটারকে নিয়ে এরকম আলোচনা আসলে ঠিক নয়। দেশের মাটিতে চাপ থাকে অনেক বেশি। এ জিনিসগুলো চিন্তা করে এবং অস্ট্রেলিয়ার মতো একটি দলের বিপক্ষে খেলা। টিম ম্যানেজমেন্ট যেভাবে চায়, সেভাবে ১৪ জনের দল সাজানো হয়েছে। এজন্য মুমিনুল বাদ পড়েছে ।’

মুমিনুলের বাদ পড়া নিয়ে একর পর এক প্রশ্নের জবাব দিলেও প্রধান নির্বাচকের সেই জবাব যুক্তিসঙ্গত মনে হয়নি সাংবাদিকের কাছে। নান্নুর পর একের পর এক প্রশ্নের জবাব দিতে হয় কোচ চন্ডিকা হাথুরাসিংহেকেও। কোচের সার কথা হলো,‘ এখানে কাউকে বাড়তি সুযোগ দেওয়া হয়নি। কারো প্রতি অবিচারও করা হযনি। যা করা হয়েছে দলের স্বার্থে। আমরা সম্প্রতি ফর্মই বিবেচনায় এনেছি।’

অবশ্য কোচের উত্তরেও মন ভরেনি সাংবাদিকরে।শুধু সাংবাদিকরাই নন, মুমিনুলের বাদ পড়ায় বিস্মিত সাবেক ক্রিকেটাররাও। মুমিনুলের মতো জাত টেস্ট খেলোয়াড়কে বাদ দেওয়াটা যুক্তিসংগত মনে করছেন না তারা।

(ঢাকাটাইমস/১৯আগস্ট/ডিএইচ)

সংবাদটি শেয়ার করুন

খেলাধুলা বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন ফিচার বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত