নড়াইলে চেয়ারম্যান হত্যা: আ.লীগ নেতাসহ ছয়জনের নামে মামলা

নড়াইল প্রতিনিধি, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ২৭ আগস্ট ২০১৭, ১৬:৫০

নড়াইলের হামিদপুর ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) চেয়ারম্যান নাহিদ হোসেন মোল্যাকে (৪৮) গুলি করে হত্যার ঘটনায় ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি চেয়ারম্যান গোলাম মোহাম্মদসহ (৫২) ছয়জনের নামে মামলা দায়ের করা হয়েছে।

নিহত চেয়ারম্যানের স্ত্রী পলি বেগম বাদী হয়ে শনিবার (২৬ আগস্ট) রাত ১২টার দিকে খুলনার দিঘলিয়া থানায় এ মামলা দায়ের করেন।

দিঘলিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) হাবিবুর রহমান জানান, ছয়জনের নাম উল্লেখসহ অজ্ঞাত সাত থেকে আটজনকে আসামি করে এ মামলাটি দায়ের হয়েছে। আজ রবিবার বিকেল চারটা পর্যন্ত কাউকে গ্রেপ্তার করতে পারেনি পুলিশ।  

পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, ঘুমন্ত অবস্থায় গত ২৫ আগস্ট ভোরে হামিদপুর ইউপি চেয়ারম্যান নাহিদ হোসেন মোল্যাকে গুলি করে হত্যা করে দুবৃর্ত্তরা। এ সময় তিনি খুলনার দিঘলিয়া উপজেলার গাজীরহাট এলাকার বাড়িতে ঘুমিয়ে ছিলেন। হামিদপুর ইউনিয়ন সংলগ্ন গাজীরহাট এলাকার বাগানবাড়িতে পরিবারসহ বসবাস করতেন নাহিদ হোসেন।

শুক্রবার রাত ৪টা ২০মিনিটের দিকে মুখোশ পরিহিত দুবৃর্ত্তরা দোতলায় উঠে জানালা দিয়ে গুলি ছুঁড়ে পালিয়ে যায়। এ সময় নাহিদ একাই ওই বিছানায় ঘুমিয়ে ছিলেন। পরিবারের সদস্যরা অন্য কক্ষে ঘুমিয়ে ছিলেন। জানালার সানসেট বেয়ে দোতলায় ওঠে দুবৃর্ত্তরা। তার পিঠে গুলি করা হয়। পরে গুরুতর অসুস্থ অবস্থায় নাহিদ হোসেনকে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়া হলে তিনি মারা যান।  

এলাকাবাসী জানান, ২০১৬ সালের ইউপি নির্বাচনে নাহিদ হোসেন আ.লীগ থেকে মনোনয়ন বঞ্চিত হয়ে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন। এর আগে তিনি বিএনপির রাজনীতির সঙ্গে যুক্ত ছিলেন।

(ঢাকাটাইমস/২৭আগস্ট/প্রতিনিধি/ইএস)

সংবাদটি শেয়ার করুন

বাংলাদেশ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত