রেলে যাতায়াত সহজ করা হচ্ছে: মন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকাটাইমস
| আপডেট : ১৪ সেপ্টেম্বর ২০১৭, ১৬:০৪ | প্রকাশিত : ১৪ সেপ্টেম্বর ২০১৭, ১৫:৫৯

রেলপথ মন্ত্রী মো. মুজিবুল হক বলেছেন, ‘বর্তমান সরকার রেলখাতের প্রতি অধিক গুরুত্ব দিয়েছে। এজন্যই বাজেটে বরাদ্দ বৃদ্ধি পেয়েছে। এর ফলে আমরা নতুন প্রকল্প গ্রহণ করতে পারছি। রেলওয়েতে এখন উন্নয়ন দৃশ্যমান হচ্ছে।’

বৃহস্পতিবার রাজধানীল রেলভবনে দোহাজারী-রামু-কক্সবাজার প্রকল্পের পরামর্শক নিয়োগ ও বাংলাদেশ রেলওয়ের জন্য ২০০টি মিটারগেজ যাত্রীবাহী কোচ সংগ্রহের আলাদা দুটি প্রকল্পের চুক্তি সই অনুষ্ঠানে মন্ত্রী এসব কথা বলেন।

রেলমন্ত্রী বলেন, ‘রেলখাত এগিয়ে চলেছে। পর্যটন কেন্দ্র কক্সবাজারে রেললাইন নির্মাণের উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। যমুনার উপর আলাদা রেলসেতু নির্মাণ করা হবে। কোচের সংখ্যা বাড়ানো হচ্ছে। যাত্রীরা যাতে রেলের মাধ্যমে সহজে যাতায়াত করতে পারে এর ব্যবস্থা করা হচ্ছে।’

সকালে প্রথমে দোহাজারী-রামু-কক্সবাজার প্রকল্পের পরামর্শক নিয়োগ চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়। এতে পাঁচটি প্রতিষ্ঠান যৌথভাবে পরামর্শক হিসেবে নিয়োগ পেয়েছে।

এ চুক্তিতে বাংলাদেশের পক্ষে প্রকল্প পরিচালক মো. মফিজুর রহমান ও স্মেক এর পক্ষে এ এস সাবাহ সই করেন। পরামর্শকের চুক্তিমূল্য প্রায় ৪১৭ কোটি টাকা। চুক্তির মেয়াদ ৬০ মাস। এডিবির অর্থায়নে এটি বাস্তবায়িত হচ্ছে।

পরে বাংলাদেশ রেলওয়ের জন্য ২০০টি মিটার গেজ কোচ সংগ্রহের চুক্তি সই হয়। এতে বাংলাদেশের পক্ষে সই করেন অতিরিক্ত মহাপরিচালক  (রোলিং স্টক) মো. শামছুজ্জামান ও ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান পিটি ইনকার প্রেসিডেন্ট ডিরেক্টর R.Agus H Purnomo। এ সময় বাংলাদেশে নিযুক্ত ইন্দোনেশিয়ার রাষ্ট্রদূত Rina.P.Soemarno উপস্থিত ছিলেন।

প্রসঙ্গত, ইন্দোনেশিয়ার প্রতিষ্ঠান পিটি ইনকা ৫৭৯ কোটি ৩৮ লাখ ৯৭ হাজার টাকায় ২০০টি মিটারগেজ কোচ সরবরাহ করবে। ২০ থেকে ৩৩ মাসের মধ্যে সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠান কোচগুলো সরবরাহ করবে। এটিও এডিবির অর্থায়য়ে সংগ্রহ করা হচ্ছে।

এ উভয় অনুষ্ঠানে বাংলাদেশ রেলওয়ের মহাপরিচালক মো. আমজাদ হোসেনসহ ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন। রেলপথ মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব কমল কৃঞ্চ ভট্রাচার্য অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন।

(ঢাকাটাইমস/১৪সেপ্টেম্বর/এসও/জেবি)

সংবাদটি শেয়ার করুন

জাতীয় বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন ফিচার বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত