রঙ বাংলাদেশে শারদীয় পোশাক

ফিচার প্রতিবেদক, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ১৭ সেপ্টেম্বর ২০১৭, ১৪:১১

বৃষ্টির দাপট কিছুটা কমেছে। নদীর দুইকুলে ছড়িয়ে ছিটিয়ে আছে কালফুল। রোদ আর ছায়ার লুকোচুরির মধ্যেই তরতরিয়ে বাড়ছে এই শুভ্রতা। আকাশে সাদা মেঘের আনাগোনাও বাড়ছে। এই বৃষ্টি এই মেঘের খেলা চলছে। প্রকৃতি প্রস্তুত শারদ উৎসবকে স্বাগত জানাতে। আর কদিন পরেই সনাতন ধর্মের মানুষ মেতে উঠবে শারদীয় উৎসবে। প্রকৃতির মতো উচ্ছ্বল এখন সবাই উৎসবের রঙে রঙ মেলাতে। রঙ বাংলাদেশও সবাইকে রাঙাতে প্রস্তুত নজরকাড়া শারদ সংগ্রহে।

বাংলার সময়কে রাঙাতেই সদা প্রস্তুত রঙ বাংলাদেশ। তাই বাঙালিকে নানা পার্বণ আর উৎসবে ফ্যাশনেবল করে তুলছে। আর প্রতিবারের মতো রঙ বাংলাদেশ-এর পূজো সংগ্রহ অন্য সবার চেয়ে আলাদা। এবারও এই সংগ্রহ দারুণ সমৃদ্ধ। কেবল বড়দের নয়, প্রতিটি উপলক্ষে ছোটদের পোশাককে সমান গুরুত্ব দিয়ে থাকে বলেই বাচ্চাদের সংগ্রহও হয় বিশেষভাবে আকর্ষণীয়।

রঙ বাংলাদেশ সবসময়েই বিভিন্ন থিমেই সংগ্রহ সাজিয়ে থাকে। এবার সেই ধারা অব্যাহত রাখা হয়েছে। আর শারদীয় আয়োজনকে অনিন্দ্যসুন্দর করতে থিম হিসাবে বেছে নেয়া হয়েছে পদ্ম, শিউলি, নানা ধরণের ক্যালিওগ্রাফি, দুর্গার অলঙ্কার ও গনেশের অবয়ব।

লাল, সাদা, অফহোয়াইট, মেরুন আর গেরুয়াকে উপজীব্য করে সাজানো এবারের সংগ্রহে নকশাকে মনোগ্রাহী করতে আরো ব্যবহার করা হয়েছে কমলা, ফিরোজা, ক্রিম, টিয়া, নীল, অ্যাশ, সোনালি হলুদ ও মেজেন্টা।

বড়দের জন্য রঙ বাংলাদেশ-এর এবারের  শারদ সংগ্রহে রয়েছে শাড়ি, থ্রি-পিস, লং স্কার্ট-টপস, সিঙ্গেল কামিজ, শর্ট ও লং পাঞ্জাবি, উত্তরীয়, ধুতি,শার্ট, টি-শার্ট ও ফতুয়া।

আর শিশু কিশোরদের সংগ্রহের এবারের থিম পদ্ম, শিউলি, ক্যালিওগ্রাফি আর দুর্গার শোলার অলংকার। মূল রঙ অফহোয়াইট, হলুদ আর বাসন্তীর সঙ্গে আরো ব্যবহার করা হয়েছে  লাল, মেজেন্টা, সবুজ ও নীল। মেয়েদের জন্য রঙ বাংলাদেশ এই পূজায় তৈরি করেছে ফ্রক, কামিজ আর থ্রিপিস এই সময়ের আবহাওয়া উষ্ণ আর আর্দ্র।

এই বিষয়কে গুরুত্ব দিয়েই শারদসংগ্রহের সিংহাভাগ পোশাক সুতি কাপড়ে তৈরি করা হয়েছে। পাশাপাশি এই কালেকশনকে উৎসবময় করতে আরো ব্যবহার করা হয়েছে বলাকা সিল্ক, হাফ-সিল্ক, জয়সিল্ক, এন্ডি কটন এবং এন্ডি সিল্ক। ষষ্ঠী থেকে দশমী, কুমারী পূজা থেকে সিঁদুর খেলা, ধুনুচি নাচ থেকে প্রসাদ বিতরণ, প্রতিদিন সন্ধ্যা আর সকালের অঞ্জলি থেকে ভাসান- প্রতিটি উপলক্ষকে বর্ণময় আর আনন্দময় করতে কোন ত্রুটি রাখেনি রঙ বাংলাদেশ শারদসংগ্রহকে দৃষ্টিনন্দন করতে। 

এবারের এই উৎসব সংগ্রহে নকশা ফুটিয়ে তোলার মাধ্যমে আকর্ষণীয় করতে বিভিন্ন ধরণের ভ্যালু অ্যাডেড মিডিয়ার ব্যবহার করা হয়েছে। নানা ধরণের প্রিন্টের ব্যবহার এই কালেকশনের মূল বৈশিষ্ট্য। নকশার চাহিদা অনুযায়ী কারচুপি, মেশিন ও হ্যান্ড এম্বয়ডারির পাশাপাশি তাই ব্যবহার করা হয়েছে ব্লক ও স্ক্রিন প্রিন্ট।

পূজা কালেকশনে রঙ বাংলাদেশ-এর শাড়ি কেনা যাবে শাড়ি: সুতি শাড়ী-৮৫০-৪,০০০টাকা , হাফ সিল্ক-২,২৫০-৮,৫০০টাকা , মসলিন- ১০,৫০০-২০,০০০ টাকা। সালোয়ার-কামিজ ২,০০০-৪৫০০ টাকা, সিঙ্গল কামিজ ৮৫০-৩,০০০ টাকা, স্কার্ট-টপস ১,২০০-২,৫০০ টাকা, পাঞ্জাবি ৮৫০-৪,০০০ টাকা, টি-শার্ট ৩৫০-৫০০ টাকা,পলো শার্ট- ৬৫০-১,২০০টাকা, শাটর্- ৬৫০-১,৮০০ টাকা, ফতুয়া ৭৫০-১,২৫০ টাকা, উত্তরীয় ৩৫০-৫০০ টাকা, ধুতি ৬৫০-১,০৫০টাকা, ব্লাউজ পিস ৩০০-৫০০টাকা, আনস্টিচড  ১,৫০০-৪,০০০ টাকা, অলংকার সামগ্রী ৫০-২,০০০ টাকায় পাওয়া যাবে।

শিশু কিশোরদের পোশাক : পাঞ্জাবি ৬০০-৮৫০ টাকা,ফ্রক ৬০০-১,০৫০ টাকা,শার্ট ৫০০-৭০০টাকা, সিঙ্গল কামিজ ৬০০-১,০৫০ টাকা,শাড়ী ৯৫০-১,১৫০ টাকায় পাওয়া যাবে।

এছাড়া পাবেন ঘর সাজানোর জন্য নানা সামগ্রী।

কেনাকাটাকে সহজ, সুলভ আর নির্ঝঞ্ঝাট করতে রঙ বাংলাদেশ পৌঁছে যাচ্ছে একেবারে আপনার দোরগোড়ায়। এজন্য রয়েছে অনলাইনে কেনা আর ক্যাশ অন ডেলিভারির সুবিধা। আরো আছে রঙ বাংলাদেশ-এর গিফট ভাউচার। উপহার দিতে পারেন প্রিয়জনকে যেকোন উৎসব আর উপলক্ষে। তাতে করে আপনার প্রিয়জন পছন্দ মতো সামগ্রী কিনে নিতে পারেন ঐ গিফট ভাউচার দিয়ে রঙ বাংলাদেশ-এর যেকোন আউটলেট থেকে।

(ঢাকাটাইমস/১৭সেপ্টেম্বর/এজেড)

সংবাদটি শেয়ার করুন

ফিচার বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন ফিচার বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত