ঢাকা-১৮

সাহারার বিকল্প দেখছেন না কর্মীরা

তানিম আহমেদ
| আপডেট : ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৭, ১৫:৪৪ | প্রকাশিত : ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৭, ০৮:০৩

জাতীয় সংসদের গত দুটি নির্বাচনে ঢাকা-১৮ আসনে বিজয়ী হয় ক্ষমতাসীন দল আওয়ামী লীগ। দেশের গুরুত্বপূর্ণ এই সংসদীয় আসনটি আগামী নির্বাচনেও ধরে রাখতে চায় দলটি। নেতাকর্মীরা বলছেন, আর এ জন্য বর্তমান সাংসদ সাহারা খাতুনের বিকল্প নেই। বয়স বাধা না হলে তিনিই মনোনয়ন পাবেন বলে তারা আশা করছেন।

সংবিধান অনুযায়ী আগামী বছরের শেষের দিকে অনুষ্ঠিত হবে ১১তম জাতীয় সংসদ নির্বাচন। দলের মনোনয়ন পাওয়ার জন্য ইতিমধ্যে কাজ শুরু করেছেন আওয়ামী লীগের মনোনয়নপ্রত্যাশীরা।

সাহারা খাতুন ছাড়াও এ আসন থেকে আরো তিনজন আওয়ামী লীগের মনোনয়ন চাইবেন বলে জানা গেছে। ঢাকা মহানগর উত্তর আওয়ামী লীগের সহসভাপতি নাজিম উদ্দিন, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক হাবিব হাসান এবং দক্ষিণ খান ইউনিয়ন চেয়ারম্যান ও ঢাকা মহানগর উত্তর আওয়ামী লীগের বন ও পরিবেশবিষয়ক সম্পাদক তোফাজ্জল হোসেন।

ঢাকা-১৮ সংসদীয় আসনটি ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের ১ ও ১৭ নম্বর ওয়ার্ড, হরিরামপুর ইউনিয়ন, উত্তরখান ইউনিয়ন, দক্ষিণখান ইউনিয়ন, ডুমনি ইউনিয়ন ও বিমানবন্দর এলাকা নিয়ে গঠিত। এ আসনের বর্তমান সংসদ সদস্য আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য সাহারা খাতুন।

আওয়ামী লীগের একটি সূত্র বলেন, ‘আগামী নির্বাচন আমাদের জন্য গুরুত্বপূর্ণ। সাহারা খাতুন একজন পরীক্ষিত নেতা। বয়স বিবেচনায় না এলে এ আসন থেকে আগামীতে আবার মনোনয়ন পাবেন তিনি।

সাহারা খাতুন ২০০৮ সালের ২৯ ডিসেম্বর অনুষ্ঠিত নির্বাচনে বিএনপির প্রার্থী আজিজুল বারী হেলালকে লক্ষাধিক ভোটে পরাজিত করেন। বিজয়ী হয়েই তিনি স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর দায়িত্ব পান। তবে এ সময় বিতর্কিত মন্তব্য করে সমালোচিত হন তিনি। এরপর তাকে সরিয়ে ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রীর দায়িত্ব দেয়া হয়।

অন্যদিকে বিগত ২০১৪ সালের ৫ জানুয়ারি অনুষ্ঠিত দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে তিনি বিএনএফ প্রার্থীকে পরাজিত করে পুনরায় সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন।

২০০২ সালে অনুষ্ঠিত আওয়ামী লীগের জাতীয় সম্মেলনে দলের আইনবিষয়ক সম্পাদক নির্বাচিত হন সাহারা খাতুন। এরপর ২০০৯ সালের অনুষ্ঠিত সম্মেলনে তিনি দলের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য মনোনীত হন। ২০১৬ সালে অনুষ্ঠিত সম্মেলনের মাধ্যমে টানা তৃতীয়বারের মতো একই পদে বহাল থাকেন। আওয়ামী আইনজিবী পরিষদের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি ছিলেন। এ ছাড়া তিনি আন্তর্জাতিক মহিলা আইনজীবী সমিতির ও আন্তর্জাতিক মহিলা জোটের সদস্য।

সাহারা খাতুন কর্মীবান্ধব নেতা হিসেবে পরিচিত। নিয়মিত বিভিন্ন সামাজিক অনুষ্ঠানে যোগ দেন তিনি। তার একজন সমর্থক বলেন, ‘সাহারা আপা আওয়ামী লীগের একজন বড় নেতা। তিনি নিয়মিতই নেতাকর্মীদের খোঁজ-খবর রাখেন। আগামী নির্বাচনে এ আসনে তার বিকল্প নেই। আমাদের বিশ্বাস দল তাকেই আগামীতে আবার মনোনীত করবেন।’

এ আসনের আরেক মনোনয়নপ্রত্যাশী নাজিম উদ্দিন প্রবীণ রাজনীতিবিদ। তিনি উত্তর খান ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি ছিলেন। এরপর অবিভক্ত ঢাকা মহানগর আওয়ামী লীগের বন ও পরিবেশ সম্পাদক ছিলেন। গত বছর ঢাকা মহানগর উত্তর আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি মনোনীত হন নাজিম উদ্দিন। এ ছাড়া তিনি তিতুমীর কলেজ ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্ব পালন করেন। নাজিম উদ্দিন ২০০৪ সালের ভয়াল ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলায় আহত হয়েছিলেন। আগামী নির্বাচনে প্রার্থী হতে তিনি নিয়মিত কাজ করছেন।

হাবিব হাসান বৃহত্তর উত্তরা থানা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ছিলেন। এরপর গত বছর ঢাকা মহানগর উত্তর আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হন। আগামী নির্বাচন সামনে রেখে তিনি নিয়মিতিই দলীয় সভা-সমাবেশে যোগ দিচ্ছেন। দীর্ঘদিন বৃহত্তর উত্তরা থানা আওয়ামী লীগের দায়িত্ব পালন করায় নেতাকর্মী এবং সাধারণ জনগণের সঙ্গে তার নিয়মিতই যোগাযোগ রয়েছে।

আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য সাহারা খাতুন ঢাকাটাইমসকে বলেন, ‘আমি আগামীতেও নির্বাচন করব। এখন আমি একদিকে আমার নির্বাচনী এলাকার অবকাঠামোগত উন্নয়নের জন্য কাজ করছি, আরেকদিকে আগামী নির্বাচনের জন্য প্রস্তুতি নিচ্ছি।’

২০০৮ সালের মনোনয়ন চেয়ে পাননি, তবে এবার পাবেন বলে আশাবাদী ঢাকা মহানগর উত্তর আওয়ামী লীগের সহসভাপতি নাজিম উদ্দিন। ঢাকাটাইমসকে তিনি বলেন, ‘এবারও মনোনয়ন চাইব। দল যদি মনে করে আমাকে মনোনয়ন দিয়ে পার্লামেন্টে দলের জন্য কাজ করার সুযোগ করে দেবে, সেই চ্যালেঞ্জ নিতে আমি প্রস্তুত আছি।’ তবে দল যে সিদ্ধান্ত দেবে সেটা মেনে নেবেন বলে জানান তিনি।

জাতীয় সংসদ নির্বাচনে প্রথমবারের মতো দলের মনোনয়ন চাইবেন ঢাকা মহানগর উত্তর আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক হাবিব হাসান। সেই লক্ষে কাজ করছেন তিনি। ঢাকাটাইমসকে তিনি বলেন, ‘মানুষ কাজ করে কোনো একটা আশায়। আমিও ভবিষ্যতে জনপ্রতিনিধি হয়ে জনগণের সেবা করার জন্য কাজ করছি। নির্বাচনে মনোনয়ন দেয়ার বিষয়টি দলীয় হাইকমান্ডের বিষয়। হাইকমান্ড যে সিদ্ধান্ত দেবে আমি সেই অনুযায়ী কাজ করব।’

(ঢাকাটাইমস/২০সেপ্টেম্বর/মোআ)

সংবাদটি শেয়ার করুন

রাজনীতি বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন ফিচার বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত