মুন্সীগঞ্জে মিলে আগুন

জিএমসহ ছয় কর্মকর্তা আটক, তদন্ত কমিটি গঠন

নাদিম মাহমুদ, মুন্সীগঞ্জ প্রতিনিধি
| আপডেট : ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৭, ১৭:৫৯ | প্রকাশিত : ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৭, ১৭:৩৬

মুন্সীগঞ্জ সদরের চরমুক্তারপুরের আইডিয়াল টেক্সটাইল মিলে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় মিলটির জিএম খিদির সারমাসহ ছয় কর্মকর্তাকে আটক করেছে পুলিশ। জেলা প্রশাসক সায়লা ফারজানার নির্দেশে তাদের আটক করা হয়। এছাড়া অগ্নিকাণ্ডের ওই ঘটনা তদন্ত করতে একটি কমিটি গঠন করা হয়েছে।

অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা পরিদর্শনে গিয়ে জেলা প্রশাসকের নিদের্শ ছয়জনকে আটক করা হয় এবং তদন্ত পাঁচ সদস্য বিশিষ্ট একটি কমিটি গঠন করা হয়। অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট শওকত আলম মজুমদার কমিটির নেতৃত্ব দেবেন।

জেলা প্রশাসক জানান, ঘটনা তদন্ত করে ওই ফ্যাক্টরির বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে। তিনি বলেন, ছয় শ্রমিকের মরদেহ ময়নাতদন্ত শেষে পরিবারের স্বজনদের কাছে হস্তান্তর করা হবে। জেলা প্রশাসনের উদ্দ্যোগেই মরদেহ পৌঁছে দেওয়া হবে।

উল্লেখ্য, বুধবার সকাল ১০টার দিকে চরমুক্তারপুর আইডিয়াল টেক্সটাইল মিলে আগুন লাগে। খবর পেয়ে মুন্সীগঞ্জ ও নারায়ণগঞ্জ থেকে ফায়ার সার্ভিসের মোট চারটি ইউনিট আগুন নেভাতে কাজ শুরু করে। চার ঘণ্টা চেষ্টা চালানোর পর বেলা দুইটার দিকে আগুন নিয়ন্ত্রণে আসে। পরে ভবনের ভেতর থেকে এক নারীসহ মোট ছয় শ্রমিকের মরদেহ উদ্ধার করা হয়।

তারা হলেন- চুয়াডাঙ্গার রহিম বক্সের ছেলে ইস্রাফিল, সিরাজগঞ্জের আমির হামজার ছেলে নাজমুল ও হানিফ বেপারীর ছেলে বাবু মিয়া, ঝিনাইদহের  কালিগঞ্জ থানার সাহেদ আলীর ছেলে সজিব, মানিকগঞ্জের ঘিওর থানার কলিমউদ্দিনের ছেলে রতন এবং বরগুনার রশিদের স্ত্রী হাসিনা।

ভবনের নিচ তলায় ওয়েল্ডিংয়ের কাজ করার সময় আগুনের ফুলকি গোডাউনের  কেমিক্যালে গেলে আগুনের সূত্রপাত হয় বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করছেন মুক্তারপুর নৌ-পুলিশ ফাঁড়ির ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা জয়নাল আবেদীন।

ঢাকাটাইমস/২০সেপ্টেম্বর/প্রতিনিধি/এমআর

সংবাদটি শেয়ার করুন

বাংলাদেশ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন ফিচার বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত