জমির দ্বন্দ্বে পথের ভিখারি বরিশালের সেই বৃদ্ধা মা

ব্যুরো প্রধান, বরিশাল
| আপডেট : ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৭, ১৮:০৬ | প্রকাশিত : ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৭, ১৭:৪২

তিন সন্তান পুলিশে চাকরি করার পরেও বরিশালের বাবুগঞ্জে বৃদ্ধা মায়ের ভিক্ষা করা এবং অসুস্থ হবার পরও সন্তানদের অবহেলার ঘটনায় তিন সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করেছেন বরিশালের ডিআইজি। এছাড়া বৃদ্ধা মায়ের চিকিৎসা এবং তার সকল ব্যয়ভার গ্রহণ করেছে পুলিশ।

বৃহস্পতিবার দুপুরে বরিশাল ডিআইজির সম্মেলন কক্ষে আয়োজিত প্রেসব্রিফিংয়ে ডিআইজি মো. শফিকুল ইসলাম এ তথ্য জানান।

তিনি বলেন, ডিআইজ অফিসের এসপি মো. হাবিবুর রহমান প্রামাণিকের নেতৃত্বে এডিশনাল এসপি মোল্লা আজাদ এবং এডিশনাল এসপি  মোফিজুল ইসলাম এই কমিটিতে রয়েছেন। আগামী তিন কার্য দিবসের মধ্যে তাদের রিপোর্ট দিতে বলা হয়েছে। এছাড়া এই বৃদ্ধা মায়ের চিকিৎসা এবং তার সকল ব্যয়ভার পুলিশের পক্ষ থেকে গ্রহণ করার কথাও জানিয়েছেন তিনি।

ডিআইজি আরও জানান, বৃহস্পতিবার বৃদ্ধা মায়ের পাঁচ ছেলেকে ডিআইজি কার্যালয়ে ডেকে এ বিষয়ে তাদের সাথে কথা বলেন তিনি। ৮ শতাংশ জমি নিয়ে পারিবারিক বিরোধের জের ধরে বৃদ্ধা মায়ের এই পরিস্থিতি বলে ছেলেদের পক্ষ থেকে ডিআইজিকে জানানো হয়। তবে তারা সবাই অনুতপ্ত এবং মায়ের দায়িত্ব গ্রহণে সম্মতির কথা জানান ডিআইজিকে।

এদিকে অযত্ন ও অবহেলার কারণে বৃদ্ধা মা ভিক্ষা করেছেন বলে দাবি করেন বৃদ্ধার ৪র্থ ছেলে ও অটোরিকশা চালক  গিয়াসউদ্দিন। তবে ৫ম ছেলে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশে কর্মরত এএসআই নেছারউদ্দিন  ও মেঝ ছেলে ও বরিশাল রেঞ্জ পুলিশে কর্মরত কনস্টেবল মো. জসিমউদ্দিন দাবি করেন তার মা কখনও ভিক্ষা করেননি।

বরিশালের বাবুগঞ্জ উপজেলার ক্ষুদ্রকাঠি গ্রামের বাসিন্দা ৮২ বছরের বৃদ্ধ মা মনোয়ারা বেগম। তিন সন্তান পুলিশে চাকরি করার পরেও পেটের তাড়নায়  ভিক্ষাবৃত্তি এবং হাঁটতে গিয়ে পা ভাঙার পরও যথাযথ চিকিৎসা না হবার খবর সম্প্রতি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ে। এরপর বরিশাল-৩ আসনের সংসদ সদস্য শেখ টিপু সুলতান এই বৃদ্ধাকে ১৮ সেপ্টেম্বর বরিশাল মেডিকেলে ভর্তি করেন। খবর পেয়ে বরিশালের ডিআইজি, এসপি এবং জেলা প্রশাসক তাকে দেখতে যান এবং তিনজনে ৩৭ হাজার টাকা আর্থিক সহায়তা প্রদান করেন। সমাজসেবা অধিদপ্তর বৃদ্ধার ওষুধের খরচ বহন করছে।

এ ঘটনায় ইতোমধ্যে বৃদ্ধার আরেক সন্তান পূর্ব ভুতেরদিয়া নবারুন সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মরিয়ম সুলতানাকে মায়ের প্রতি অবহেলা করার জন্য কেন আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে না এই মর্মে উপজেলা শিক্ষা অফিস থেকে কারণদর্শানোর নোটিশ দেয়া হয়েছে ১৮ সেপ্টেম্বর।

(ঢাকাটাইমস/২১সেপ্টেম্বর/টিটি/এলএ)

সংবাদটি শেয়ার করুন

বাংলাদেশ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন ফিচার বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত