ষোড়শ সংশোধনী বাতিল রায়

সার্টিফায়েড কপি তোলার প্রক্রিয়া চলছে: আইনমন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৭, ২১:২০

আইনমন্ত্রী আনিসুল হক বলেছেন, ষোড়শ সংশোধনীর বাতিল রায়ের সার্টিফায়েড কপি তোলার প্রক্রিয়া চলছে বলে জানিয়েছেন আইনমন্ত্রী আনিসুল হক। তবে তিনি বলেছেন, তারা রায়টি পরীক্ষা-নিরীক্ষা করছেন। পরীক্ষা-নিরীক্ষা শেষ না করে রিভিউ করবেন না।

বৃহস্পতিবার দুপুরে রংপুর চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালত ভবনের উদ্বোধন শেষে সাংবাদিকদের এ কথা বলেন তিনি।

ষোড়শ সংশোধনী বাতিলের রায়ের কপি আদালতে তৈরি থাকলেও রাষ্ট্রপক্ষ তা তুলছে না বলে পত্রিকায় খবর প্রকাশিত হয়েছে। রিভিউ করার ক্ষেত্রে নিয়ম হলো- রায়ের সার্টিফাএয়ড কপি তোলার এক মাসের মধ্যে রিভিউ করতে হয়।

সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে আইনমন্ত্রী বলেন, ‘ষোড়শ সংশোধনীর রায়ের সার্টিফায়েড কপি আমরা উঠাচ্ছি না কথাটা ঠিক নয়। এটি উঠানোর প্রক্রিয়া চলছে। খুব শিগগির আমরা এটা নিয়ে নিব।’

আইনমন্ত্রী বলেন, ‘ষোড়শ সংশোধনীর ওই রায় ৭৯৯ পাতার। রায়ের কী কী বিষয় আমরা রিভিউ করব, তা আগে আমাদের বুঝে নিতে হবে। এ জন্য পরীক্ষা-নিরীক্ষা করা হচ্ছে। যতক্ষণ পর্যন্ত না পরীক্ষা-নিরীক্ষা শেষ হবে, ততক্ষণ কোনো রিভিউ করা হবে না।’

ষোড়শ সংশোধনী বিচার বিভাগকে খাটো করার জন্য করা হয়নি দাবি করে আইনমন্ত্রী বলেন, ‘বিচার বিভাগের সম্মান ও মর্যাদা সমুন্নত রাখতে এবং বিচারকদের অপসারণের ক্ষমতা সংসদের হাত ফিরিয়ে দিতেই সংবিধানের ষোড়শ সংশোধনী বিল জাতীয় সংসদে পাস করা হয়েছিল।’

বিচার বিভাগকে একটা দৃঢ় ভিত্তির ওপর দাঁড় করাতে সরকার সব ধরনের কাজ করছে উল্লেখ করেন আনিসুল হক। তিনি বলেন, অপরাধ করে এখন আর কেউ পার পাচ্ছে না। ন্যায়বিচার এখন দুষ্প্রাপ্য নয়।

এক প্রশ্নের জবাবে আনিসুল হক জানান, যুদ্ধাপরাধ ট্রাইব্যুনালের চেয়ারম্যান নিয়োগের জন্য তিনি বুধবার প্রধানমন্ত্রীর কাছে লিখিত আবেদন করেছেন।

ভবনের উদ্বোধন ছাড়াও জেলা জজ আদালত চত্বরে সুধী সমাবেশের আয়োজন করা হয়।

রংপুর মহানগর পুলিশ গঠন বিষয়ে সুধী সমাজের প্রশ্নের জবাবে আইনমন্ত্রী বলেন, রংপুর মেট্রোপলিটন পুলিশ গঠনের প্রক্রিয়া শেষ পর্যায়ে। এ-সংক্রান্ত আইনটি মন্ত্রিপরিষদে পাস হলে সেটি জাতীয় সংসদে উত্থাপন করা হবে।

সুধীজনের উদ্দেশে মন্ত্রী হেসে বলেন, ‘আইনটি আমার টেবিলেই আছে। আপনাদের আতিথেয়তায় মুগ্ধ হয়েছি। আইনটি আর টেবিলে রাখতে পারব না। চলতি মাসের শেষ সপ্তাহে এটি মন্ত্রিপরিষদে পাঠিয়ে দেব।’

সমাবেশে আরো বক্তব্য দেন এলজিআরডি প্রতিমন্ত্রী মসিউর রহমান রাঙ্গা, সিটি মেয়র সরফুদ্দীন আহম্মেদ ঝন্টু, সাংসদ হোসনে আরা লুৎফা ডালিয়া, আইন মন্ত্রণালয়ের সচিব আবু সালেহ শেখ মোহাম্মদ জহুরুল হক, অতিরিক্ত সচিব মোস্তাফিজার রহমান, জেলা প্রশাসক মুহাম্মদ ওয়াহিদুজ্জামান, পুলিশ সুপার মিজানুর রহমান, জেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মমতাজ উদ্দিন, ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক মাজেদ আলী মুকুল, আইনজীবি সমিতির সভাপতি সভাপতি আব্দুল কাইয়ুম মন্ডল, সেক্রেটারি পিপি আব্দুল মালেক প্রমুখ।

(ঢাকাটাইমস/২১সেপ্টেম্বর/প্রতিনিধি/এমএবি/মোআ)

সংবাদটি শেয়ার করুন

জাতীয় বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন ফিচার বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত