গফরগাঁওয়ে গৃহবধূকে গণধর্ষণে মামলা, গ্রেপ্তার ১

আঞ্চলিক প্রতিনিধি, ময়মনসিংহ
 | প্রকাশিত : ২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৭, ১২:৩৮

ময়মনসিংহের গফরগাঁওয়ে গৃহবধূকে গণধর্ষণের ঘটনায় মামলা হয়েছে। রবিবার রাতে দুইজনকে আসামি করে গফরগাঁও থানায় একটি ধর্ষণ মামলা করেছেন ভিকটিম নিজেই।

ধর্ষণের অভিযোগে রবিবার সন্ধ্যায় আটক রবিকে সোমবার সকালে ধর্ষণ মামলায় গ্রেপ্তার দেখিয়ে ময়মনসিংহ জেল হাজতে পাঠানো হয়েছে।

মামলা সূত্রে জানা গেছে, ৬ সেপ্টেম্বর রাতে স্মামীকে নিয়ে বাবার বাড়ি কদম রসুলপুর গ্রাম থেকে বাড়ি ফিরছিলেন ওই গৃহবধূ। রসুলপুর গ্রামের সাঈদ বেপারীর ছেলে আ. রশিদ ও হযরত আলীর ছেলে রবি মিয়া তাদের পথরোধ করে। পরে অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে গৃহবধূর স্বামীকে স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান সাইফুল আলমের অস্থায়ী কার্যালয়ের বারান্দায় নিয়ে হাত-পা ও মুখ বেঁধে রাখে। আর গৃহবধূ রুমাকে পাশের মৎস খামারের পরিত্যক্ত একটি ঘরে আটকে রেখে রাতভর ধর্ষণ করে। পরে বখাটেরা স্বামীকে ছেড়ে দিলে তিনি স্ত্রীকে আহত অবস্থায় বাড়ি নিয়ে আসেন। পরদিন স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যানের কাছে বিচার দাবি করেন গৃহবধুর স্বামী। এ নিয়ে সালিশি বৈঠক হলেও অপরাধীদের কোনো শাস্তি হয়নি। ধর্ষণের শিকার গৃহবধূ ২০ সেপ্টেম্বর থানায় অভিযোগ করার পর রবিবার রাতে দুই ধর্ষককে আসামি করে মামলা রুজু হয়।

ধর্ষিতার স্বামী বলেন, এতদিন প্রভাবশালীদের চাপের মুখে থানায় অভিযোগ করতে পারিনি।

এ ঘটনায় রসুলপুর ইউপি চেয়ারম্যান সাইফুল আলম এলাকাবাসীর চাপে অভিযুক্তদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি জানিয়ে বলেন, নির্যাতিতার পরিবারকে সার্বিক সহযোগিতা দেয়া হবে।

এ ব্যাপারে গফরগাঁও থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা একে এম মাহবুবুল আলম বলেন, এ ঘটনায় গৃহবধূ বাদী হয়ে রবিবার রাতে মামলা করেছেন। অভিযুক্ত একজনকে গ্রেপ্তার করে জেল হাজতে পাঠানো হয়েছে। অন্য আসামিকে ধরতে অভিযান চলছে।

(ঢাকাটাইমস/২৫সেপ্টেম্বর/জেডএ)

সংবাদটি শেয়ার করুন

বাংলাদেশ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন ফিচার বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত