স্কুলে ছাত্রীকে ধর্ষণ, বাঁচানোর আর্তি প্রধানমন্ত্রীর কাছে

আন্তর্জাতিক ডেস্ক, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৭, ২০:০৪

দুই স্কুল কর্মচারীর বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ জানিয়ে প্রধানমন্ত্রীকে চিঠি লিখেছে ভারতের হরিয়ানা রাজ্যের ওম পাবলিক স্কুলের এক ছাত্রী। সেই চিঠির একটা কপি পাঠানো হয়েছে হরিয়ানা সোনেপত পুলিশ থানাতেও।

চিঠিতে ওই ছাত্রীর অভিযোগ, সম্প্রতি স্কুলের কেরানি কর্মবীর এবং হিসাবরক্ষক সুখবীর তাকে আলাদা ঘরে ডেকে নিয়ে গিয়ে ধর্ষণ করে। তাকে জোর করে পর্ণো ভিডিও দেখায়। এমনকী সন্ধ্যার পর তাকে গোহানার একটি হোটেলেও নিয়ে যায়।

ওই ছাত্রী আরও লিখেছে, হরিয়ানার এক প্রত্যন্ত এলাকায় তার বাড়ি। বাড়িতে জানাজানি হলে সে হয়তো আর বাঁচতে পারবে না। তার ভাই তাকে খুন করতে পারে। এই ভয়ে সে বাড়িতে কিছুই জানায়নি। তবে স্কুলের শ্রেণিশিক্ষক ও অধ্যক্ষকে সে ধর্ষণের কথা জানিয়েছিল। কিন্তু তাতে স্কুলের অধ্যক্ষ তাকে জানায়, এ রকম ঘটনা হয়েই থাকে। এত উদ্বেগের কিছু নেই। কোনও আইনি ব্যবস্থা না নিলে তার আত্মঘাতী হওয়া ছাড়া আর কোনও উপায় থাকবে না।

চিঠি পাওয়ার পরই রবিবার সোনেপত পুলিশ ওই স্কুলের ব্যবস্থাপনা পরিচালক, অধ্যক্ষ এবং অন্যান্য কর্মীদের জিজ্ঞাসাবাদ শুরু করে। তবে ওই ছাত্রীর খোঁজ পায়নি পুলিশ।

কারণ ডিএসপি মুকেশ জাখার জানান, চিঠিতে কোন ক্লাসে পড়ে বা তার নাম-ঠিকানা সম্বন্ধে কিছুই জানায়নি সে। স্কুল কর্তৃপক্ষও এমন কোনও অভিযোগের কথা অস্বীকার করেছে। জিজ্ঞাসাবাদ চলছে বলে জানান তিনি। গতকাল রবিবার পুলিশ ঐ স্কুলের দুই কর্মচারীকে গ্রেপ্তার করেছে।

সূত্র: আনন্দবাজার পত্রিকা

(ঢাকাটাইমস/২৫সেপ্টেম্বর/এসআই)

সংবাদটি শেয়ার করুন

আন্তর্জাতিক বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন ফিচার বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত