আট ফুটবলারের ‘চাকরি খাচ্ছেন’ নেইমার

ক্রীড়া প্রতিবেদক, ঢাকাটাইমস
| আপডেট : ২৬ সেপ্টেম্বর ২০১৭, ১৭:০১ | প্রকাশিত : ২৬ সেপ্টেম্বর ২০১৭, ১২:৩৫

গত ৪ আগস্ট ২২২ মিলিয়ন ইউরোর রেকর্ড গড়ে বার্সা থেকে নেইমারকে উড়িয়ে নেয় পিএসজি। নেইমারকে কেনার আগে থেকেই আলোচনার টেবিলে ছিল, কী বলে উয়েফাকে বুঝ দেবে ফরাসি ক্লাবটি। কারণ নেইমারের দলবদলে ইউরোপীয় ফুটবলের অভিভাবক সংস্থা উয়েফার ফিন্যান্সিয়াল ফেয়ার প্লে (এফএফপি) নীতির লঙ্ঘন হতে পারে, এমন প্রশ্ন উঠেছিল জোরেশোরে।

সে সময় কারো কথার তোয়াক্কা করেননি পিএসজি মালিক নাসের আল খেলাইফি। উল্টো নেইমারের পর মোনাকো থেকে এমবাপ্পেকে কিনে নিলেন ১৮০ মিলিয়ন ইউরোতে। নেইমারের ২২২ মিলিয়ন ইউরোর দলবদলের পর যা হচ্ছে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ অঙ্কের আর্থিক লেনদেন। উয়েফার চোখ ফাঁকি দিতে আগামী মৌসুমে এমবাপ্পের সঙ্গে আনুষ্ঠানিক চুক্তি করার পরিকল্পনাও আঁটে পিএসজি। কিন্তু শেষ পর্যন্ত পার পেল না ক্লাবটি। উয়েফার কাছে কৈফিয়ত দিতেই হচ্ছে পিএসজিকে।

ইতোমধ্যে উয়েফা সাফ জানিয়ে দিয়েছে, ফেয়ার প্লে’ নীতির বাইরে গিয়ে কোনো কাজ করে থাকলে ২০১৮/১৯ চ্যাম্পিয়নস লিগে অংশ নিতে পারবে না পিএসজি। শিগগিরই উয়েফা এটা যাচাই-বাছাইয়ে মাঠে নামবে।

স্প্যানিশ দৈনিক এল পেইস জানিয়েছে, রিয়াল মাদ্রিদ, বায়ার্ন মিউনিখ এবং জুভেন্টাসের অভিযোগের ওপর ভিত্তি করে পিএসজিকে কাঠগড়ায় দাঁড় করাল উয়েফা। প্রতিবেদনে আরও বলা হয়, উয়েফার কাছ থেকে এমন হুঁশিয়ারি পাওয়ার পর আটজন খেলোয়াড়কে তড়িঘড়ি করে ছাড়তে চাচ্ছে ফরাসিরা।

যে তালিকায় আছেন-অ্যাঞ্জেল দি মারিয়া, হাভিয়ের পাস্তোরে, ব্লাইসে মাতুইদি, লুকাস মৌরা, জুলিয়ান ড্রাক্সলার, হাতেম বিন আরাফা, সার্জি আওরিয়ের এবং থিয়াগো সিলভা। ক্লাবের জেনারেল ম্যানেজার জ্যান ক্লদ ব্লাঙ্ক বলছে, ৪৮ ঘণ্টার মধ্যে এই আট ফুটবলারকে ছাড়তে চায় তারা।

যদিও কেবল দুইজন ছাড়া বাকিদের যাওয়ার রাস্তা বেশ কঠিন বলে মনে হচ্ছে। ২৫ মিলিয়ন ইউরোতে সার্জি আওরিয়েরকে পেতে আগ্রহী টটেনহ্যাম হটস্পার আর ব্লাইসে মাতুইদির জন্য ২০ মিলিয়ন ইউরো খরচ করতে প্রস্তুত জুভেন্টাস।

এদিকে বেশ কয়েকটা ফরাসি সংবাদমাধ্যম দাবি করছে, এক নেইমারের জন্য উয়েফার গ্যাঁড়াকলে পড়ল প্যারিস সেন্ট জার্মেইন (পিএসজি)। নেইমারকে কিনে কাড়ি কাড়ি টাকা খরচ করায় অন্যরা উয়েফাকে লেলিয়ে দিয়েছে। 

উল্লেখ্য, ক্লাবগুলোর আর্থিক সক্ষমতার ভিত্তিতে উয়েফা ফিন্যান্সিয়াল ফেয়ার প্লে (এফএফপি) নীতি রেখেছে। যাতে একটি ক্লাব কখনো সর্বশেষ তিন মৌসুমে ১০০ মিলিয়ন ইউরোর বেশি ক্ষতির মধ্যে থাকতে পারবে না। নেইমারের বদলিতে কেবল বার্সেলোনাকেই দিতে হয় ২২২ মিলিয়ন ইউরো। এর সঙ্গে আছে বোনাসের হিসাব। পিএসজি কয়েক মৌসুম ধরে কাতারি পেট্রো ডলারের টাকাই ঢালছে। ক্লাবটি এখনো লাভের মুখে নেই।

(ঢাকাটাইমস/২৬সেপ্টেম্বর/জেইউএম)

সংবাদটি শেয়ার করুন

খেলাধুলা বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন ফিচার বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত