প্রধানমন্ত্রী দেশে ফেরার পর মিয়ানমার সফরের সিদ্ধান্ত

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকাটাইমস
| আপডেট : ২৬ সেপ্টেম্বর ২০১৭, ১৪:১৬ | প্রকাশিত : ২৬ সেপ্টেম্বর ২০১৭, ১৪:০০
ফাইল ছবি

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল বলেছেন, মিয়ানমার সফরে যাওয়ার বিষয়ে সিদ্ধান্ত হবে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দেশে ফেরার পর। প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে আলোচনা করেই মিয়ানমার সফর ঠিক করা হবে।

মঙ্গলবার সচিবালয়ে নিজ দপ্তরে সাংবাদিকদের এসব কথা বলেন মন্ত্রী।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, মিয়ানমার সফল চূড়ান্ত হলে দুইটি বিষয় নিয়ে আলোচনা হবে। রোহিঙ্গাদের ফিরিয়ে নেয়ার বিষয়টিই গুরুত্ব দিয়ে আলোচনা হবে। এরপর আরেকটি ইস্যু নিয়ে আলোচনা করবো সেটি হচ্ছে মাদক। মিয়ানমার থেকে অনেক মাদক আমাদের দেশে আাসছে। সেটি নিয়ে আমরা আলোচনা করবো।

এক প্রশ্নের জবাবে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, রোহিঙ্গারা যাতে অপরাধে জড়িয়ে পড়তে না পারে সেজন্য ২৪ ঘণ্টা নজরদারি আছে। সেখানে আমাদের আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী বেশ তৎপর রয়েছে। তারা ২৪ ঘণ্টা রোহিঙ্গাদের উপর নজরদারি রাখছে, যাতে কোনো ধরনের অপরাধ কার্যক্রম সংগঠিত না হতে পারে।

সম্প্রতি মন্ত্রী-সচিবরা উল্টোপথে গাড়ি চালাচ্ছেন- এমন বিষয়ে মন্ত্রীর দৃষ্টি আকর্ষণ করা হলে তিনি বলেন, সবাইকেই ট্রাফিক আইন মেনে চলতে হবে। আইন তার নিজস্ব গতিতে চলবে। অভিযানও অব্যাহত থাকবে বলে জানান স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী।

মিয়ানমারের বাংলাদেশের আকাশসীমা লঙ্ঘন কিংবা সীমান্তে সৈন্য সমাবেশকে হুমকি মনে করছেন না স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল।

তিনি বলেছেন, ‘মিয়ানমারের আকাশসীমা লঙ্ঘন ও সীমান্তে সৈন্য সমাবেশের বিষয়টি বাংলাদেশের নিরাপত্তার জন্য হুমকি মনে করি না। আমরা  ধৈর্যের  সঙ্গে  বিষয়টি  পর্যবেক্ষণ  করছি। যুদ্ধ নয়, আলোচনার মাধ্যমে সমস্যার সমাধান করতে আমরা বিশ্বাসী।’

সম্প্রতি মিয়ানমার অভিযোগ করেছে যে, তাদের দেশে সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ড চালাতে বাংলাদেশ সন্ত্রাসীদের আশ্রয় দিচ্ছে। এমন অভিযোগ প্রত্যাখ্যান করে মন্ত্রী বলেন, ‘বাংলাদেশ  কোনো  বিচ্ছিন্নতাবাদী বা সন্ত্রাসীদের আশ্রয়-প্রশয় দেয় না, দেবেও না। এ বিষয়ে মিয়ানমারের অভিযোগ সত্য নয়।’

(ঢাকাটাইমস.২৬সেপ্টেম্বর/এমএম/জেডএ)

সংবাদটি শেয়ার করুন

জাতীয় বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন ফিচার বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত